X
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

সেকশনস

কবর থেকে তোলা হলো তনুর লাশ

আপডেট : ৩০ মার্চ ২০১৬, ১৩:০৩

কবর থেকে তোলা হচ্ছে তনুর লাশ

দাফনের ১০দিন পর বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের কবরস্থান থেকে ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্রী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনুর লাশ উত্তোলন করা হয়েছে।

গত ২৮ মার্চ বহুল আলোচিত এ হত্যামামলার সুষ্ঠু তদন্ত, ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ, সুরতহাল তৈরি ও নতুন করে ময়নাতদন্ত করতে কবর থেকে লাশ ওঠানোর আদেশ দেন কুমিল্লার একটি আদালত। জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) ওসি একেএম মনজুর আলমের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এ আদেশ দেন।

লাশ ওঠানোর সময় ঢাকা সিআইডি‘র বিশেষ পুলিশ সুপার ড. নাজমুল করিম, কুমিল্লার পুলিশ সুপার মো.শাহ আবিদ হোসেন, লাশ উত্তোলনের জন্য দায়িত্ব পাওয়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কুমিল্লা সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা লুৎফুন নাহার, তনুর বাবা ইয়ার হোসেন ও বড় ভাই নাজমুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

সরেজমিন ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, কবরস্থানের পাশে মাঠে একটি সামিয়ানা টানিয়ে  সেখানে প্রশাসনের লোকজন অবস্থান করেন। বুধবার সকাল থেকেই কবরস্থানের পাশে উৎসুক মানুষের ভিড় জমে। তাদের নিয়ন্ত্রণে পুলিশ সদস্যদের বেগ পেতে হয়। এসময় যাত্রাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ঘটনাস্থলে এসে তনু হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ করে।

লাশ ওঠানোর সময়েও তনু হত্যার বিচার দাবিতে মির্জাপুর গ্রামে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

তনুর বাবা ইয়ার হোসেন সাংবাদিকদের বলেছেন, তনু হত্যার সঠিক বিচারের জন্য লাশ উত্তোলন করা হচ্ছে বলে প্রশাসন থেকে জানানো হয়েছে। আমি মেয়ে হত্যার সঠিক বিচার চাই।

কুমিল্লার পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন জানান, লাশ উত্তোলন পর তা কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। অধিকতর আলামত সংগ্রহের পর সেখান থেকে আজই আবার লাশ এনে আগের কবরে দাফন করা হবে।

তনুর পরিবার সূত্র জানায়, গত ২০ মার্চ রাতে তনুকে সেনানিবাস এলাকায় হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ২১ মার্চ সন্ধ্যায় তনুকে তাদের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার মির্জাপুর গ্রামে দাফন করা হয়। এ বিষয়ে তার পিতা কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের অফিস সহকারী ইয়ার হোসেন ২১মার্চ অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা কোতোয়ালী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। ঘটনার ১০দিনেও পুলিশ অপরাধীদের শনাক্ত করতে পারেনি।

/টিএন/

সর্বশেষ

ইউরোর ৬১ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিলেন পোলিশ গোলকিপার

ইউরোর ৬১ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিলেন পোলিশ গোলকিপার

মতিঝিলে ছিনতাই চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

মতিঝিলে ছিনতাই চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

সম্মুখ সারির যোদ্ধাদের কাজী এন্টারপ্রাইজ’র সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

করোনা মোকাবিলাসম্মুখ সারির যোদ্ধাদের কাজী এন্টারপ্রাইজ’র সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

মাস্ক না পরায় ২০ ব্যক্তিকে জরিমানা

মাস্ক না পরায় ২০ ব্যক্তিকে জরিমানা

বিরোধ দূর করতে মাঠে আওয়ামী লীগ

বিরোধ দূর করতে মাঠে আওয়ামী লীগ

এসডিজি বাস্তবায়নে অগ্রগতির শীর্ষ তিনে বাংলাদেশ

এসডিজি বাস্তবায়নে অগ্রগতির শীর্ষ তিনে বাংলাদেশ

এরদোয়ান-বাইডেন রুদ্ধদ্বার বৈঠক

এরদোয়ান-বাইডেন রুদ্ধদ্বার বৈঠক

নেইমার ভালো থাকলে ভালো কিছু হয়: ব্রাজিল কোচ

নেইমার ভালো থাকলে ভালো কিছু হয়: ব্রাজিল কোচ

তিতাসের ৫ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

তিতাসের ৫ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন ইনিশিয়েটিভের সদস্য হলেন ডা. নিজাম

গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন ইনিশিয়েটিভের সদস্য হলেন ডা. নিজাম

আর্জেন্টিনার ম্যাচ কখন, দেখবেন কোথায়

আর্জেন্টিনার ম্যাচ কখন, দেখবেন কোথায়

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

তিতাসের ৫ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

তিতাসের ৫ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

খুলনা বিভাগে শনাক্ত ৪০ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৭২৬

খুলনা বিভাগে শনাক্ত ৪০ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৭২৬

সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার আম বিক্রি নিয়ে শঙ্কা

সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার আম বিক্রি নিয়ে শঙ্কা

২৫ বছরে তিন বিয়ে, স্ত্রীর ওড়না গলায় বেঁধে আত্মহত্যা

২৫ বছরে তিন বিয়ে, স্ত্রীর ওড়না গলায় বেঁধে আত্মহত্যা

মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এলো ৩৭৯টি বুলেট

মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এলো ৩৭৯টি বুলেট

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন: ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন: ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

মায়ের সামনে থেকে স্কুলছাত্রীকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

মায়ের সামনে থেকে স্কুলছাত্রীকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

কুড়িগ্রামে সংক্রমিত এলাকায় ‘রেসট্রিকটেড মোড’

কুড়িগ্রামে সংক্রমিত এলাকায় ‘রেসট্রিকটেড মোড’

© 2021 Bangla Tribune