X
শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

কলকাতার সেই ফ্লাইওভারের 'বাকি অংশও ঝুঁকিপূর্ণ', গ্রেফতার ৮

আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০১৬, ১৯:০৬
image

কলকাতায় ধসে পড়া ফ্লাইওভার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় আংশিক ধসে পড়া ফ্লাইওভারের বাকি অংশও ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। ঘটনাস্থল থেকে ঘুরে আসার পর শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারের কাছে এ আশঙ্কা জানান তারা। এদিকে ধসের ঘটনায় নতুন করে আর কাউকে জীবিত উদ্ধারের সম্ভাবনা নেই বলে মনে করছে উদ্ধারকারী কর্তৃপক্ষ। ঘটনাস্থল থেকে  এ পর্যন্ত ২৫টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। আহত অবস্থায় ৯০ জনেরও বেশি মানুষকে উদ্ধার করা হলেও তাদের বেশ কয়েকজনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন পুলিশ প্রধান অজয় ত্যাগী। এদিকে ফ্লাইওভারটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান আইভিআরসিএলের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। এরইমধ্যে প্রতিষ্ঠানটির ৮ কর্মকর্তা গ্রেফতারও হয়েছেন।
পশ্চিমবঙ্গভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার জানায়, ফ্লাইওভারেরর যে অংশ এখনও অক্ষত রয়েছে তার হাল জানতে শুক্রবার বিশেষজ্ঞ দলকে ডেকে পাঠায় রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার এ বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল দেখে এসেছেন। তারা জানান, ফ্লাইওভারের বাকি অংশ বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে। এরইমধ্যে ফ্লাইওভার সংলগ্ন বাড়িগুলি খালি করার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন।
বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা ২৫ মিনিটে গণেশ টকিজের কাছে ভেঙে পড়ে নির্মাণাধীন বিবেকানন্দ ফ্লাইওভারের একাংশ। এ সময় ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়েন অনেকে। বৃহস্পতিবার সারা রাত ধরে চলে উদ্ধার কাজ। কলকাতা পুলিশ ও দমকল কর্মীদের পাশাপাশি সেনাবাহিনীও উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। সেনা সদস্যরা শুক্রবার সকালে ধ্বংসস্তূপের নীচ থেকে বের করে আনেন আরও দুই জনের মরদেহ। এছাড়া আরও একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয় শুক্রবার।

এ পর্যন্ত ৯০ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে

ভারতের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা এস এস গুলেরিয়া মার্কিন সংবাদমাধ্যম এপিকে বলেন, ‘উদ্ধার অভিযান এখন শেষ পর্যায়ে আছে এবং আর কাউকে জীবিত উদ্ধারের কোনও সম্ভাবনা নেই।’

গুলেরিয়া আরও জানান, ‘বিশেষজ্ঞ দিয়ে উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে। যাতে ব্রিজের বাকি অংশ ভেঙ্গে না পড়ে, তার জন্য হাইড্রোলিক জেটের প্রয়োজন।’

ধ্বংস্তূপের নিচে আর কতগুলো মৃতদেহ চাপা পড়ে থাকতে পারে তা এখনও স্পষ্ট নয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়, উদ্ধার হওয়া কিছু মরদেহ এমনভাবে থেঁতলে গেছে বা পুড়ে গেছে, এমনকি পরিবারের সদস্যরাও স্বজনদের মরদেহ চিনতে পারছেন না। ফ্লাইওভারের আশেপাশের সাধারণ মানুষ শঙ্কার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

অনেকে খালি হাতেই চালান উদ্ধার অভিযান

এদিকে, ফ্লাইওভার ভেঙে পড়ার ঘটনায় নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান আইভিআরসিএল-এর বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। পাশাপাশি, যারা সেতু তৈরিতে কাঁচামাল সরবরাহ করেছিল, তাদের বিরুদ্ধেও একই ধারায় মামলা করা হয়েছে। সেতু যাদের দেখাশোনা করার কথা ছিল, তারা তা ঠিক মতো করেছে কিনা তাও খতিয়ে    দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতেই নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের বালি, হাওড়া, উত্তরপাড়া, আনন্দপুর এবং হায়দ্রাবাদের অফিসে তল্লাশি অভিযান চালানো হয়েছে।

উদ্ধারকাজে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারকে সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মোদি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ফোন করে এ আশ্বাস দেন। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় এ খবর নিশ্চিত করে। সূত্র: বিবিসি, আনন্দবাজার

/এফইউ/

সম্পর্কিত

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২২:২৬

হংকংয়ে চীনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা জারির ঘটনায় পাল্টা পদক্ষেপ নিয়েছে বেইজিং। শুক্রবার চীনের পক্ষ থেকে সাবেক মার্কিন বাণিজ্যমন্ত্রী উইলবার রসসহ বেশ কয়েকজন ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

জুনে পাস হওয়া বিদেশি নিষেধাজ্ঞাবিরোধী আইনে এই প্রথম পদক্ষেপ নিলো চীন। মার্কিন উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইন্ডি শেরম্যানের চীন সফরের আগে এই নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করলো।

শুক্রবার ঘোষিত নিষেধাজ্ঞায় বেশ কয়েকটি মার্কিন সংস্থায় কর্মরত ও সাবেক কর্মকর্তারা রয়েছেন। এদের মধ্যে রয়েছে চীন বিষয়ক কংগ্রেসনাল এক্সিকিউটিভ কমিশন ও ইউএস-চায়না ইকোনমিক অ্যান্ড সিকিউরিটি রিভিউ কমিশনের বর্তমান ও সাবেক প্রতিনিধিরা রয়েছেন।

চীনা নিষেধাজ্ঞার আওতায় এসেছে ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক ইন্সটিটিউট ফর ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স, ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইন্সটিটিউট, হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ) এবং ওয়াশিংটনভিত্তিক হংকং ডেমোক্র্যাসি কাউন্সিল।

এক বিবৃতিতে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র হংকংয়ের চীনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বেআইনিভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তাদের এই পদক্ষেপ আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন ও আন্তর্জাতিক সম্পর্কের মৌলিক নীতি পরিপন্থী এবং চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে গুরুতর হস্তক্ষেপ।

/এএ/

সম্পর্কিত

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ২০:৫৪

জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ইসলামিক স্টেটের ইরাক ও লেভান্ত-খোরাসান (আইএসআইএল-কে) ইউনিটের নেতারা মার্কিন ও আফগান-তালেবান শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে নেওয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। অ্যানালাইটিক্যাল সাপোর্ট অ্যান্ড স্যাংকশন্স মনিটরিং টিমের ২৮তম প্রতিবেদনে আফগানিস্তানের ভঙ্গুর পরিস্থিতি উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। প্রতিবেদনে, পরিস্থিতির আরও অবনতির আশঙ্কা করা হয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এখবর জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আইএস কাবুলের আশেপাশে নিজেদের অবস্থান সংহত করছে। এখান থেকেই তারা সংখ্যালঘু, অ্যাক্টিভিস্ট, সরকারিকর্মী এবং আফগান সেনা ও গোয়েন্দা বাহিনীর সদস্যদের ওপর হামলা চালাচ্ছে।

এতে উল্লেখ করা হয়েছে, আইএস-এর ইউনিটটি এখন অন্য প্রদেশে চলে গেছে। তারা  নুরিস্তান, বাদঘিছ, সারি পুল, বাঘলান, বাডাখশান, কুন্দুজ ও কাবুলে স্লিপার সেল গড়ে তুলেছে। ২০২০ সালে কুনার ও নাঙ্গারহার প্রদেশে এলাকা, নেতৃত্ব, লোকবল ও আর্থিক ক্ষতির পরও তারা এসব সেল গড়ে তুলতে পেরেছে।

নিরাপত্তা পরিষদের এই টিমের প্রতিবেদনে গুরুত্ব দিয়ে উল্লেখ করা হয়েছে, আইএস(এল-কে) পুনরায় সংগঠিত ও নতুন সমর্থকদের সংগ্রহ ও প্রশিক্ষণে জোর দিয়েছে।

প্রতিবেদন অনুসারে, গোষ্ঠীটির নেতারা আশাবাদী আফগানিস্তানে শান্তি ফিরিয়ে আনতে যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবানের মধ্যকার চুক্তির বিরোধিতাকারীদের দলে ভেড়ানোর বিষয়ে। এছাড়া তারা সিরিয়া, ইরাক ও অন্যান্য সংঘাতপূর্ণ অঞ্চল থেকে যোদ্ধা সংগ্রহ করতে চাইছে।

ইসলামিক স্টেট ইরাক ও লেভান্ত খোরাসানের ৫০০ থেকে ১৫০০ যোদ্ধা রয়েছে রয়েছে জাতিসংঘের একটি সদস্য রাষ্ট্র জানিয়েছে। তবে আরেকটি দেশের মতে এই সংখ্যা ১০ হাজারের মতো। অপর একটি দেশ বলেছে, গোষ্ঠীটি আত্মগোপনে থেকে চোরাগুপ্তা হামলা চালাচ্ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আল-সাদিক কার্যালয়ের প্রধান শেখ তামিমের সঙ্গে সহযোগিতা করছে শাহাব আল-মুহাজির। তামিমের এই কার্যালয়ের দায়িত্ব হলো মূল আইএসের সঙ্গে আইএস লেভান্ত-খোরাসানের নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা।

/এএ/

সম্পর্কিত

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

হেরাতে তালেবান ঠেকানোর লড়াইয়ের নেতৃত্বে সাবেক মুজাহিদিন কমান্ডার

হেরাতে তালেবান ঠেকানোর লড়াইয়ের নেতৃত্বে সাবেক মুজাহিদিন কমান্ডার

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৯:২২

চীনকে মোকাবিলায় গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার ভারত সফরে আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে ভারতে ব্লিনকেনের এসফরটি হবে প্রথম। বুধবার তিনি ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রামনিয়াম জয়শঙ্করের সঙ্গে বৈঠক করবেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

২৬ থেকে ২৯ জুলাই ভারতে অবস্থান করবেন ব্লিনকেন। এরপর তিনি কুয়েত সফরে যাবেন।

এশিয়া ও এশিয়ার বাইরে চীনের ক্রমবর্ধমান প্রভাব মোকাবিলায় মার্কিন উদ্যোগে সহযোগিতাকারী দেশ হিসেবে ভারতকে বিবেচনা করে ওয়াশিংটন। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই সফরে তার এজেন্ডা হবে ইন্দো-প্রশান্তীয় অঞ্চলে সক্রিয়তা, দ্বিপক্ষীয় আঞ্চলিক নিরাপত্তা স্বার্থ, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও জলবায়ু সংকট মোকাবিলা। এছাড়া করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলাও থাকবে এজেন্ডায়া।

খবরে বলা হয়েছে, তথাকথিত কোয়াডের স্বশীরের একটি সম্মেলন আয়োজন নিয়ে আলোচনা করবেন ব্লিনকেন। চীনের প্রভাব মোকাবিলায় ভারত, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র কোয়াড গ্রুপে একত্রিত হয়েছে।

কূটনীতিকরা বলছেন, এই বৈঠকটি সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের সময় অনুষ্ঠিত হতে পারে। চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের পাল্টা আঞ্চলিক অবকাঠামো গড়ে তোলার উপায় নিয়ে আলোচনার সম্ভাবনা রয়েছে।

শুক্রবার ব্লিনকেন বলেছেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারত একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ। এখন তারা অভ্যন্তরীণ সংকটে আছে। কিন্তু একবার উৎপাদন পূর্ণ গতি পেয়ে গেলে বিশ্বকে তারা আবার টিকা দিতে শুরু করবে। যা বড় পার্থক্য গড়ে দেবে।

/এএ/

সম্পর্কিত

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৮:৪২

ফ্রান্স সরকারের করোনাভাইরাস মহামারি বিষয়ক শীর্ষ উপদেষ্টা শুক্রবার সতর্ক করে বলেছেন, এই বছরের শীতে ভাইরাসটির নতুন ভ্যারিয়েন্টের আত্মপ্রকাশ হতে পারে। বিএফএম নিউজ চ্যানেলকে ফরাসি সরকারের বৈজ্ঞানিক কাউন্সিলের প্রধান জ্যেন-ফ্রান্সোয়েস দেলফ্রেইজি এই সতর্কতার কথা জানিয়েছেন।

ফরাসী বিশেষজ্ঞ বলেন, শীতের সময় হয়ত আমরা আরেকটি ভ্যারিয়েন্ট দেখতে পাব।

ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। এই সংক্রমণের জন্য অতি সংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টকে দায়ী করা হচ্ছে।

তিনি জানান, নতুন ভ্যারিয়েন্টের প্রভাব সম্পর্কে কোনও পূর্বানুমান করতে পারছেন না বা এটি আরও বিপজ্জনক হবে কিনা তাও জানাননি। শুধু বলেছেন, এটির চরিত্র বদলের ক্ষমতা প্রায় সীমিত থাকবে।

ফরাসী সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ফ্রান্সের জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক পরার জন্য। তিনি বলেছেন, মহামারি পূর্ব স্বাভাবিকতায় ফিরতে ২০২২ বা ২০২৩ সাল লাগতে পারে।

দেলফ্রেইজি বলেন, আগামী কয়েক বছরের বড় চ্যালেঞ্জ হলো কীভাবে আমরা সহাবস্থান করব দুটি বিশ্বের মধ্যে: টিকা নেওয়া দেশগুলো এবং যেসব দেশে টিকা পুরোপুরি দেওয়া হয়নি।

করোনার চতুর্থ ঢেউ নিয়ন্ত্রণে রাখতে ফরাসী সরকার ‘হেলথ পাস’ ব্যবস্থা চালু করেছে। জনসমাগমস্থলে প্রবেশের ক্ষেত্রে টিকা নেওয়ার বা করোনা নেগেটিভ হওয়ার প্রমাণ দেখাতে হবে।

বুধবার থেকে চলচ্চিত্র প্রেক্ষাগৃহ, যাদুঘর, সুইমিং পুল ও ক্রীড়াক্ষেত্রে হেলথ পাস বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় অনেকেই সমালোচনা করছেন। সমালোচকরা বলছেন, এতে করে টিকা না নেওয়া মানুষদের স্বাধীনতা খর্ব করা হচ্ছে। সূত্র: এনডিটিভি

/এএ/

সম্পর্কিত

ক্ষমা চাইলেন সেই জার্মান সাংবাদিক

ক্ষমা চাইলেন সেই জার্মান সাংবাদিক

জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় মুখ্য হিট অফিসার নিয়োগ

জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় মুখ্য হিট অফিসার নিয়োগ

করোনারোধী পোশাক বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে বড় অংকের জরিমানা

করোনারোধী পোশাক বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে বড় অংকের জরিমানা

১ মাস ‘ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন’ থাকার পরীক্ষা চালালো রাশিয়া

১ মাস ‘ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন’ থাকার পরীক্ষা চালালো রাশিয়া

ব্রিটে‌নে জা‌লিয়া‌তির দা‌য়ে বাংলা‌দেশি সমকামীর কার‌াদণ্ড

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৮:০৩

ব্রিটেনে জালিয়াতি করে বসবাসের চেষ্টার দায়ে সাইফুল আ‌লম (৩৮) না‌মের এক বাংলা‌দেশি নাগ‌রিক‌কে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির একটি আদালত। গত সপ্তা‌হে সাইফুল‌কে হাল ক্রাউন কো‌র্টে হা‌জির করা হ‌য়।

আদাল‌তের উদ্ধৃতি দি‌য়ে ব্রিটে‌নের হাল লাইভ ওপেরা নিউজসহ সংবাদপত্রগু‌লো জানায়, আদ‌াল‌তে মিথ‌্যা তথ‌্য উপস্থাপন ও জাল প‌রিচয়পত্র রাখার দু‌টি অভিযোগে এই দণ্ড দেওয়া হয়েছে তাকে।   

আদ‌ালত‌কে সাইফুল জানান, তাকে বাংলা‌দে‌শে ফেরত পাঠা‌নো হ‌লে যাবজ্জীবন কারাদ‌ণ্ড দেওয়া হতে পারে। এই শঙ্কা থেকে তি‌নি প্রতারণা ও জা‌লিয়া‌তির আশ্রয় নি‌য়ে‌ছি‌লেন। সাইফুল আরও ব‌লেন, জাল ন‌থিপত্র কেনার সিদ্বান্তটি তার ভুল ছিল। এ জন‌্য তিন‌ি গভীর অনু‌শোচনা কর‌ছেন‌।

সাইফুল ২০০৪ সা‌লে এক বছ‌রের ভিসায় ব্রিটে‌নে আসেন। তার আইনজী‌বী ব‌্যারিস্টার জু‌লিয়া বাগস আদালত‌কে জানান, সাইফুল একজন সমকামী। তাই তি‌নি সামা‌জিক কুসংস্কার ও সহিংসতায় ভ‌য় পে‌য়ে‌ছি‌লেন।

ব্রিটে‌নে গত এক দশ‌কে বিপুল সংখ‌্যক মানুষ নি‌জে‌দে‌র সমকামী দাবি ও দে‌শে ফেরা সম্ভব নয়  উল্লেখ ক‌রে বসবাসের অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন। এদের ম‌ধ্যে ভারতীয়, বাংলা‌দেশি ও পা‌কিস্তানিরাও র‌য়ে‌ছেন। শুরু‌তে ব্রিটে‌নের হোম অফিস ও আদালত সহানুভু‌তিশীল হ‌য়ে ভিসা দি‌লেও একপর্যা‌য়ে প্রতারণার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।  এরপর থেকে এমন আবেদন অনুমোদনের ক্ষেত্রে কড়াক‌ড়ি আরোপ করা হয়।

ইউকে বাংলা প্রেসক্লা‌বের কার্যনির্বাহী সদস‌্য সাংবা‌দিক মাহবুব সু‌য়েদ শ‌নিবার বাংলা ট্রিবিউনকে ব‌লেন, শুরু‌তে প্রচুর মানুষ নি‌জে‌দের সমকামী দাবি ক‌রে ব্রিটে‌নে অভিবাসন সু‌বিধা নি‌য়ে‌ছেন। অনেকে গে বা লেস‌বিয়া‌নের অধিকারে ব্রিটে‌নে বসবা‌সের সু‌যোগ পে‌য়ে দেশ থে‌কে স্বামী বা স্ত্রী এনেছেন। অনেকে নতুন ক‌রে বি‌য়ে ক‌রে‌ছেন‌। এসব কার‌ণে প‌রে সরকার এ ব‌্যাপা‌রে কড়াক‌ড়ি আরোপ ক‌রে।

উল্লেখ‌্য, ব্রিটেনে শুধু ২০১৯ সা‌লে বাংলা‌দেশসহ যেসব দে‌শে সমলি‌ঙ্গের সম্পর্ক বা বি‌য়ে বৈধ নয়, সেসব দে‌শের কমপ‌ক্ষে ৩ হাজার ১০০ জনের গে, লেস‌বিয়না, বাই সেক্সুয়াল ও ট্রান্সসেক্সুয়াল দাবি ক‌রে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন প্রত্যাখ্যাত হয়েছে।  আর ২০১৬ থে‌কে ২০১৯ পর্যন্ত কমপ‌ক্ষে ১ হাজার ১৯৭ জন পা‌কিস্তানি ও ৬৪০ জন এল‌জি‌বি‌টি দাবি‌দা‌রের আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে বলে হোম অফিসের পরিসংখ্যানে জানা গেছে।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

ব্রিটেনে কয়েক লাখ শ্রমিক আইসোলেশনে, খাদ্যে ঘাটতির আশঙ্কা

ব্রিটেনে কয়েক লাখ শ্রমিক আইসোলেশনে, খাদ্যে ঘাটতির আশঙ্কা

ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকা থেকে বাদ লিভারপুল

ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকা থেকে বাদ লিভারপুল

বাংলাদেশের বন্ধু সায়মন ড্রিং মারা গেছেন

বাংলাদেশের বন্ধু সায়মন ড্রিং মারা গেছেন

সংক্রমণ ছড়ানোর জন্য বাংলাদেশি পরিবারকে দায়, সেই প্রধান শিক্ষিকার পদত্যাগ

সংক্রমণ ছড়ানোর জন্য বাংলাদেশি পরিবারকে দায়, সেই প্রধান শিক্ষিকার পদত্যাগ

সর্বশেষ

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

টিকার জন্য জাপানকে ধন্যবাদ জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

টিকার জন্য জাপানকে ধন্যবাদ জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

লকডাউনেও জমজমাট পশুর হাট

লকডাউনেও জমজমাট পশুর হাট

এক কোটি ১৬ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

এক কোটি ১৬ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

পোশাক কারখানার বাইরে তালা ভেতরে চালু

ঢাকায় এলো উপহারের ২৫০টি ভেন্টিলেটর

ঢাকায় এলো উপহারের ২৫০টি ভেন্টিলেটর

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ শিক্ষিকার

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ শিক্ষিকার

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নামে সোনালী ব্যাংকে হিসাব খোলার নির্দেশ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নামে সোনালী ব্যাংকে হিসাব খোলার নির্দেশ

মুখ চেনা হলেই খুলে বসেন ‘রাজনীতির দোকান’

‘লীগ’ যুক্ত সংগঠন আছে তিন শতাধিকমুখ চেনা হলেই খুলে বসেন ‘রাজনীতির দোকান’

রাতেই দেশে আসছে ২০০ টন অক্সিজেন

রাতেই দেশে আসছে ২০০ টন অক্সিজেন

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

ফকির আলমগীরের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালো সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ

এলপিজির মূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারি ‍উদ্যোগ থামাতে চায় লোয়াব, বিইআরসির না

এলপিজির মূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারি ‍উদ্যোগ থামাতে চায় লোয়াব, বিইআরসির না

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

শান্তিচুক্তির বিরোধিতাকারী তালেবান যোদ্ধাদের দলে ভেড়াচ্ছে আইএস!

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রবল বর্ষণে মহারাষ্ট্রে মৃত বেড়ে ১১০

প্রবল বর্ষণে মহারাষ্ট্রে মৃত বেড়ে ১১০

হেরাতে তালেবান ঠেকানোর লড়াইয়ের নেতৃত্বে সাবেক মুজাহিদিন কমান্ডার

হেরাতে তালেবান ঠেকানোর লড়াইয়ের নেতৃত্বে সাবেক মুজাহিদিন কমান্ডার

বরকে নিয়ে বিয়ের ঘোড়ার চম্পট (ভিডিও)

বরকে নিয়ে বিয়ের ঘোড়ার চম্পট (ভিডিও)

আফগানিস্তানে গৃহযুদ্ধ নিয়ে যা বললো তালেবান

আফগানিস্তানে গৃহযুদ্ধ নিয়ে যা বললো তালেবান

অতি বর্ষণে ভূমিধস, মহারাষ্ট্রে ৩৬ জনের মৃত্যু

অতি বর্ষণে ভূমিধস, মহারাষ্ট্রে ৩৬ জনের মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune