ব্যাংকিং খাতে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা অত্যন্ত জরুরি: গভর্নর

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৫৬, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০৭, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০

হবিগঞ্জে বিএফআইইউ আয়োজিত কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবির।

২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছানোর জন্য ব্যাংকিং খাতে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা অত্যন্ত জরুরি বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির। গত শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) আয়োজিত ব্যাংকগুলোর প্রধান মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ পরিপালন কর্মকর্তা সম্মেলন-২০২০ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

হবিগঞ্জের একটি রিসোর্টে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে ফজলে কবির বলেন, ব্যাংকিং খাতের শৃঙ্খলা রক্ষার ক্ষেত্রে হুইসেল ব্লোয়িং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সঠিক সময়ে হুইসেল ব্লোয়িং নিশ্চিত করা গেলে ব্যাংকিং খাতের অনেক বড় বড় অনিয়ম প্রতিরোধ করা সম্ভব। দেশের সুষম অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিতের স্বার্থে মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসী কাজে অর্থায়ন প্রতিরোধে ব্যাংকগুলোর  কর্মকর্তাদেরকে আরও বেশি সচেতন ও সচেষ্ট হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে  বিএফআইইউ এর প্রধান কর্মকর্তা আবু হেনা মোহা. রাজী হাসান বিভিন্ন গবেষণায় প্রাপ্ত তথ্যের বরাত দিয়ে বলেন, ব্যাংকিং খাতে সংঘটিত মানিলন্ডারিং এর ৮০ ভাগেরও বেশি বৈদেশিক বাণিজ্যের আড়ালে হয়ে থাকে। তাই বাণিজ্যভিত্তিক মানিলন্ডারিং প্রতিরোধে ব্যাংকগুলোকে আরও বেশি গুরুত্ব দিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ফিনটেক ও রেগটেকসহ প্রযুক্তিগত উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে মানিলন্ডারিং এর ঝুঁকিও বহুগুণে প্রতিনিয়ত বাড়ছে। তাই এ ঝুঁকি মোকাবিলায় ব্যাংকগুলোকে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। এজন্য ব্যাংক কর্মকর্তাদের সক্ষমতা আরও বাড়াতে হবে। 

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএফআইইউ এর উপপ্রধান মো. ইস্কান্দার মিয়া। তিনি ব্যাংকগুলোকে সন্দেহজনক লেনদেন রিপোর্টিং এর ক্ষেত্রে আমানতের পাশাপাশি ঋণ ও  বৈদেশিক বাণিজ্যকেও গুরুত্ব দেওয়ার আহ্বান জানান।

 

/জিএম/টিএন/

লাইভ

টপ