X

সেকশনস

বিএনপিকে ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ বলতে অপারগ কানাডার আদালত

আপডেট : ১৮ মার্চ ২০১৮, ১০:৫৮





বিএনপি

অভিবাসন সংক্রান্ত একটি মামলার রায়ে কানাডার সর্বোচ্চ আদালত মন্তব্য করেছে, সংসদ অধিবেশন মুলতবি করার দাবিতে বা উপনির্বাচন দেওয়ার দাবিতে আহ্বান করা হরতাল কী করে সন্ত্রাসের সমার্থক হতে পারে, তা আদালতের বোধগম্য নয়। আর সে কারণে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলকে সন্ত্রাসী সংগঠন বলা এবং সেই সংগঠনের সদস্য থাকার সূত্রে অভিবাসন আর্জি খারিজ করে দেওয়া যায় না। বিএনপিপন্থী আইনজীবী সংগঠনের সহকারী সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করা সাবেক একজন ছাত্রদল নেতার অভিবাসন বিষয়ক মামলার রায়ে এসব কথা উল্লেখ করা  হয়েছে। যে যুক্তিতে আবেদনকারীর আর্জি খারিজ করে দেওয়া হয়েছিল, তার অযথার্থতা তুলে ধরে কানাডার আদালত আবেদনকারীর অভিবাসনের আর্জি নতুন একজন কর্মকর্তার দায়িত্বে সম্পন্ন করার আদেশ দিয়েছেন।

কানাডার অভিবাসী হতে আবেদন করা বাংলাদেশি ওই নাগরিকের আবেদন যাচাই করতে গিয়ে অভিবাসন কর্মকর্তা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছিলেন—বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল একটি সন্ত্রাসী সংগঠন। কারণ, সরকারের বিরোধিতা করতে গিয়ে ডাকা হরতালে তারা ব্যাপক সহিংসতা করেছে এবং সহিংসতা বন্ধে সংগঠনটি কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। যেহেতু আবেদনকারী নিজেকে বিএনপির ছাত্র সংগঠন ছাত্রদলের একজন সাবেক সদস্য ও পরে বিএনপি সমর্থিত আইনজীবী পরিষদের একজন পদস্থ নেতা হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন, সেহেতু সন্ত্রাসী সংগঠন বিএনপির কর্মকাণ্ডের দায় তাকে নিতে হবে। সন্ত্রাসী সংগঠনের সদস্য হিসেবে তাকে কানাডায় শরণার্থীর মর্যাদা দেওয়া যেতে পারে না।

কানাডার আদালতের আলোচ্য আদেশে আবেদনকারীকে ‘একে’ সংক্ষিপ্ত নামে সম্বোধন করে উল্লেখ করা হয়েছে—আবেদনকারী ২০১৩ সালে কানাডায় গিয়েছিলেন। পৌঁছানোর দুই মাস পরে তিনি অভিবাসনের জন্য আবেদন করেন। পরে তার স্ত্রী ও কন্যাও কানাডায় গিয়ে অভিবাসনের আর্জি জমা দেন। আবেদনকারী নিজেই জানিয়েছিলেন, তিনি ১৯৮০ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ১৯৮০ থেকে ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত তিনি ছাত্রদলের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। ১৯৮৭ সালে তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামে যোগ দেন। ১৯৮৯ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত তিনি এ সংগঠনের সহকারী সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। এসব তথ্যের ভিত্তিতে অভিবাসন কর্মকর্তা তাকে সন্ত্রাসী সংগঠনের সদস্য হিসেবে চিহ্নিত  করেন এবং সেই দায়ে তার আবেদন খারিজ করে দিয়েছিলেন। বিএনপি সন্ত্রাসী সংগঠন, এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে সরকারি -বেসরকারি উৎসসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরকে তদন্তকারী আমলে নিয়েছিলেন।

একে (ছদ্মনাম) বনাম কানাডা সরকার অভিবাসী মামলা

আত্মপক্ষ সমর্থনে ছাত্রদলের সাবেক সদস্য ওই আবেদনকারী জানিয়েছিলেন—তিনি শুধুমাত্র ছাত্রদল ও আইনজীবীদের সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ২০১৪ সালের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘটিত সহিংসতা এবং ২০১৫ সালে বিএনপির ডাকা অবরোধ শুরুর আগেই ২০১৩ সালে সংগঠন ত্যাগ করেছেন তিনি । সেই সময় পর্যন্ত যে বিএনপির সঙ্গে তিনি ছিলেন, তাকে সন্ত্রাসী সংগঠন বলা যেতে পারে না, দাবি তার।

বিএনপি সন্ত্রাসী সংগঠন হওয়া না হওয়া নিয়ে আদালতের ভাষ্য—অভিবাসন কর্মকর্তা যে সার্চ টার্ম ব্যবহার করে বিএনপির সন্ত্রাসী কার্যকলাপের বিষয়ে ধারণা পাওয়ার চেষ্টা করেছেন, তা স্বাভাবিকভাবেই পক্ষপাতমূলক ফলাফল দেখাবে। ইন্টারনেটে ‘বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি টেরোরিস্ট অ্যাক্টস’ সার্চ দিয়ে অভিবাসন কর্মকর্তা যেসব তথ্য পেয়েছেন, তার বেশিরভাগই বাংলাদেশের দুটি দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির চর্চা করা সহিংস রাজনৈতিক কর্মসূচির চিত্র। অভিবাসন কর্মকর্তা নিজেও এটা লক্ষ্য করেছেন, ক্ষমতায় না থাকলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দুই দলই হরতাল কর্মসূচির ডাক দেয়।

আবেদনকারীর রায় নতুন করে বিবেচনার জন্য দেওয়া আদেশে বিচারক রিচার্ড জি মোসলে বলেছেন, আবেদনকারী নিজে সন্ত্রাসী কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত কিনা, সে বিষয়ে কোনও প্রমাণ হাজির করা হয়নি। তাছাড়া আবেদনকারী বিএনপি নয় বরং তার সহযোগী সংগঠনের সদস্য ছিলেন। পূর্বে  অভিবাসন কর্মকর্তার উপস্থাপিত যুক্তি যথাযথ না হওয়ায়, আদালত আবেদনকারীর আর্জি মঞ্জুর করেছেন এবং নিষ্পন্ন করতে তার অভিবাসন সংক্রান্ত আর্জিটি অন্য একজন আভিবাসন কর্মকর্তার কাছে প্রেরণের আদেশ দিয়েছে।

 

/এএমএ/এপিএইচ/চেক-এমওএফ/

সম্পর্কিত

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা: প্রথম তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা: প্রথম তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

‘প্রতিকূলতাকে জয় করে এগিয়ে যাচ্ছে নারীরা’

‘প্রতিকূলতাকে জয় করে এগিয়ে যাচ্ছে নারীরা’

ব্যাংক এশিয়ার নারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ব্যাংক এশিয়ার নারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত পুলিশ সদস্য মারা গেছেন

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত পুলিশ সদস্য মারা গেছেন

পঞ্চম ধাপে ২৮ ফেব্রুয়ারি সব পৌরসভায় ইভিএমে ভোট

পঞ্চম ধাপে ২৮ ফেব্রুয়ারি সব পৌরসভায় ইভিএমে ভোট

দূরশিক্ষণে অংশ নিচ্ছে না সাড়ে ৬৯ শতাংশ শিক্ষার্থী!

দূরশিক্ষণে অংশ নিচ্ছে না সাড়ে ৬৯ শতাংশ শিক্ষার্থী!

মাদক আইনের মামলায় গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১৭ ফেব্রুয়ারি

মাদক আইনের মামলায় গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১৭ ফেব্রুয়ারি

করোনায় আরও মৃত্যু ২০

করোনায় আরও মৃত্যু ২০

‘যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবে বাংলাদেশ’

‘যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবে বাংলাদেশ’

মানিকগঞ্জে নারীসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

মানিকগঞ্জে নারীসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

টিকা সংরক্ষণে যে পরিকল্পনা সরকারের

টিকা সংরক্ষণে যে পরিকল্পনা সরকারের

‘বহুতল টিএসসি’র পরিকল্পনাকে যেভাবে দেখছেন স্থপতিরা

‘বহুতল টিএসসি’র পরিকল্পনাকে যেভাবে দেখছেন স্থপতিরা

সর্বশেষ

বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নির্মাণের দাবি

বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নির্মাণের দাবি

সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলার ২০ বছর: ট্রুথ কমিশন গঠনের দাবি

সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলার ২০ বছর: ট্রুথ কমিশন গঠনের দাবি

ঘুরে আসুন জলদুর্গ ইদ্রাকপুর থেকে

ঘুরে আসুন জলদুর্গ ইদ্রাকপুর থেকে

প্রতিবন্ধী স্বামীকে হত্যা: স্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড, শ্বশুর-শাশুড়ির যাবজ্জীবন

প্রতিবন্ধী স্বামীকে হত্যা: স্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড, শ্বশুর-শাশুড়ির যাবজ্জীবন

দীপন হত্যা মামলা: ফের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুনানি আগামী ২৪ জানুয়ারি

দীপন হত্যা মামলা: ফের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুনানি আগামী ২৪ জানুয়ারি

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা: প্রথম তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা: প্রথম তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

অ্যান্টিবায়োটিকের অকার্যকারিতা নিয়ে অক্সফোর্ডের নতুন গবেষণা

অ্যান্টিবায়োটিকের অকার্যকারিতা নিয়ে অক্সফোর্ডের নতুন গবেষণা

তুষারঝড়ে জাপানে ১৩০ গাড়ির সংঘর্ষ

তুষারঝড়ে জাপানে ১৩০ গাড়ির সংঘর্ষ

আটকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের বাহরাইনে ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ

আটকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের বাহরাইনে ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ

‘প্রতিকূলতাকে জয় করে এগিয়ে যাচ্ছে নারীরা’

‘প্রতিকূলতাকে জয় করে এগিয়ে যাচ্ছে নারীরা’

আবাহনীর টানা দ্বিতীয় জয়

আবাহনীর টানা দ্বিতীয় জয়

বিতরণ কোম্পানি ডিস্ট্রিবিউশন চার্জ রেখে বাকি টাকা দেবে পেট্রোবাংলাকে

বিতরণ কোম্পানি ডিস্ট্রিবিউশন চার্জ রেখে বাকি টাকা দেবে পেট্রোবাংলাকে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নরওয়েতে ফাইজারের টিকা নেওয়ার পর ২৩ জনের মৃত্যু

নরওয়েতে ফাইজারের টিকা নেওয়ার পর ২৩ জনের মৃত্যু

ভারতে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু

ভারতে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু

বাইডেনের অভিষেকের আগেই হোয়াইট হাউজ ছাড়বেন ট্রাম্প

বাইডেনের অভিষেকের আগেই হোয়াইট হাউজ ছাড়বেন ট্রাম্প

বেসরকারি পর্যায়েও টিকা বিক্রি শুরু করছে বেক্সিমকো, দাম ১১২৫ টাকা

রয়টার্সের প্রতিবেদনবেসরকারি পর্যায়েও টিকা বিক্রি শুরু করছে বেক্সিমকো, দাম ১১২৫ টাকা

কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই ভ্যাকসিন রফতানির সিদ্ধান্ত: ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই ভ্যাকসিন রফতানির সিদ্ধান্ত: ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রেসিডেন্ট হিসেবে কংগ্রেসের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পেলেন বাইডেন

প্রেসিডেন্ট হিসেবে কংগ্রেসের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পেলেন বাইডেন

ট্রাম্প সমর্থকদের নজিরবিহীন তাণ্ডবের ঘটনায় নিহত অন্তত ৪

ট্রাম্প সমর্থকদের নজিরবিহীন তাণ্ডবের ঘটনায় নিহত অন্তত ৪

ক্ষমতাধর দেশের তালিকায় শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র, বাংলাদেশ ৮১তম

সিইওওয়ার্ল্ড ম্যাগাজিনের র‍্যাংকিংক্ষমতাধর দেশের তালিকায় শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র, বাংলাদেশ ৮১তম

অবশেষে কাতার সীমান্ত খুলে দিলো সৌদি আরব

অবশেষে কাতার সীমান্ত খুলে দিলো সৌদি আরব

অক্সফোর্ডের টিকার অনুমোদন দিলো ভারত

অক্সফোর্ডের টিকার অনুমোদন দিলো ভারত


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.