X

সেকশনস

জামায়াত ছাড়তে ড. কামালের চাপ: ভেতরে ভেতরে মৌন সম্মতি বিএনপির?

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:০৬



জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। (ছবি: সালমান তারেক শাকিল) জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গ ত্যাগে বিএনপিকে আহ্বান জানানোর পাশাপাশি ভবিষ্যতে চাপ দেওয়ার কথা জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্ত দলটিকে ত্যাগ না করলে বিএনপির সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের যে জোটবদ্ধতা, তা-ও প্রশ্নের মুখে পড়তে পারে—এমন ইঙ্গিতও দিয়ে রেখেছেন তিনি।
রবিবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে বাংলা ট্রিবিউনকে কামাল হোসেন বলেন, ‘যেহেতু প্রশ্নগুলো আসে এবং আমি তো জেনে যাইনি। এখন যেহেতু জেনেছি, জামায়াত থাকলে সেখানে আমি থাকবো না।’
জামায়াত প্রশ্নে নিজের এ অবস্থান ব্যক্ত করার পর বিএনপি সরে না এলে প্রভাব পড়বে কিনা—এমন প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, ‘বিএনপির ঐক্যফ্রন্টে প্রভাব পড়বে। আমি তো মনে করি তারা কথাবার্তা শুরু করবে, আমিও করতে পারি। আজকে তো পত্রিকায় গেলো। এরপর দেখবো কী হয়।’
জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির একাধিক দায়িত্বশীল নেতার সঙ্গে কথা বলে পাওয়া গেছে দুই ধরনের বক্তব্য। কামাল হোসেনের বক্তব্যকে বিএনপির একটি অংশ ভেতরে ভেতরে মৌন সমর্থন করলেও এখনই প্রকাশ্যে কোনও অবস্থানে যেতে চান না তারা।
আবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও সম্পাদকদের মধ্যে কেউ কেউ মনে করেন, কামাল হোসেনের বক্তব্যে রহস্য সৃষ্টি হয়েছে। এতে কয়েকটি বিষয় সামনে আসতে পারে।
দলের একজন ভাইস চেয়ারম্যান নাম ও পরিচয় উদ্ধৃত হতে অনিচ্ছা প্রকাশ করে বলেন, বিএনপি এবং জামায়াতকে চাপের মধ্যে রাখতে তিনি এই বিষয়টা সামনে নিয়ে আসছেন। তাছাড়া তিনি সব সময় জামায়াতবিরোধী মানুষ। সেই হিসেবে হয়তো তিনি তার অবস্থানটা পরিষ্কার করছেন। তবে তিনি যা বলছেন তা নতুন কিছু না। এটা তার রাজনৈতিক কৌশলগত দিকও হতে পারে।
দলের একজন কেন্দ্রীয় সম্পাদক বলেন, ‘এটাকে এখন নানাভাবে ব্যাখ্যা করা যায়। যেমন, এর একটা কারণ হচ্ছে, তিনি সব সময় সংসদে যাওয়ার পক্ষে। তার এই চিন্তা-ভাবনাটা ইতোমধ্যে বেরিয়ে আসছে। এজন্য তিনি জামায়াত ইস্যুতে বিএনপিকে চাপে রেখে সংসদে যেতে চায় এমনও হতে পারে।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য এ বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যেভাবে হয়েছে, এরপর সংসদে যাওয়া বা শপথ নেওয়ার কোনও প্রশ্নই আসে না।’
তবে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্তত চারজন নেতার সঙ্গে কথা বলে স্পষ্ট, কামাল হোসেনের মুখ দিয়ে জামায়াতকে ছাড়ার যে প্রস্তাব তোলা হয়েছে, তাতে মৌন সম্মতি আছে। বিষয়টি এখন হাইকমান্ড বিবেচনায় নিতে পারে।
এই চারজনের সঙ্গে কথা বলে স্পষ্ট, বিএনপির কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বা লন্ডনে অবস্থানরত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সম্মতি ছাড়া কেউ-ই মুখ খুলতে চাইছেন না। বিএনপির প্রগতিশীল অংশের সিনিয়র নেতাদের চাওয়া, কামাল হোসেনের মাধ্যমে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ঐক্যে জামায়াতকে যেভাবে বাধা হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে, তাতে করে খালেদা জিয়া বা তারেক রহমান—দুজনকেই নতুন চিন্তার সামনে হাজির হতে হবে।
জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অবশ্য এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি নন। রবিবার বিকালে বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ‘ড. কামাল হোসেন যে বক্তব্য দিয়েছেন, তিনি বা তার দল এ বিষয়ে ভালো বলতে পারবেন। আমি কিছু বলতে পারছি না।’
মির্জা ফখরুল এড়িয়ে গেলেও কামাল হোসেন স্পষ্ট করেই জানিয়েছেন, জামায়াত সঙ্গ ত্যাগ না করলে ঐক্যফ্রন্টে প্রভাব পড়তে পারে।
ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কামাল হোসেন যা বলেছেন, সুন্দর কথা বলেছেন, পরিষ্কার করেই বলেছেন। এখন বিএনপিকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। ম্যাডাম জেলে আছেন, তারেক রহমান লন্ডনে আছেন। বিএনপির কেউ কেউ তো তাদের দুজনের ওপর সবকিছু ঠেলে দেন। আমি মনে করি বিএনপির স্থায়ী কমিটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুক, এরপর তারা ম্যাডামকে জানাক। একইসঙ্গে জামায়াতকে একাত্তরের ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।’
ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির একজন সদস্যের দাবি, কামাল হোসেন জামায়াত প্রসঙ্গে বিএনপিকে চাপে রাখতেই নতুন করে প্রসঙ্গ তুলেছেন। তিনি সংসদে যাওয়ার পক্ষে এবং বিএনপির বিজয়ী ছয়জন সদস্যকে নিয়েই সংসদে গণফোরামের দুই প্রতিনিধির অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে চাইছেন।
স্টিয়ারিং কমিটির এই সদস্য অবশ্য জোর দিয়েই বলেছেন, ‘আমরা চাই জামায়াত ইস্যু সমাধান করতে।’
কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরামের একজন কেন্দ্রীয় নেতার ভাষ্য, ‘জামায়াতের কারণে বাংলাদেশের প্রভাবশালী প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলো বিএনপিকে নেতিবাচকভাবে দেখে। সেই বিবেচনা থেকে বেরুতে জামায়াতকে ছাড়তে হবে।’
ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির একজন সদস্য বলেন, ‘সরকারের তরফে জামায়াতকে নিষিদ্ধ করা হয় কিনা, এ বিষয়টি বিবেচনায় নিচ্ছে বিএনপি।’ সরকার এ বিষয়ে উদ্যোগী হলে বিএনপিকে জোট ভেঙে দেওয়ার দায় নিতে হবে না, এমনটিও বলছেন এই নেতা।
ঐক্যফ্রন্টের এই নেতার মতো বিএনপির তৃণমূলেরও দাবি ছিল জামায়াতকে ছাড়ার। গত বছরের ৩ আগস্ট বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে তৃণমূল বিএনপি নেতারা স্পষ্ট করে বলেছেন, জামায়াতকে ছাড়তে হবে। যদিও হাইকমান্ড তৃণমূলের এ দাবিকে কানে তোলেনি। খালেদা জিয়ার অনড় অবস্থানের কারণে গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলটির ২২ জনকে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করার সুযোগ দেয় বিএনপি। এছাড়া অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ কয়েকজন বুদ্ধিজীবী ২০১৬ সালে হলি আর্টিজানে হামলার পর খালেদা জিয়ার সামনেই জামায়াতকে ছাড়ার পরামর্শ দেন।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন প্রবীণ সদস্য বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, কামাল হোসেনের বক্তব্যকে বিএনপি মৌলিকভাবে কীভাবে নেবে, তার জন্য স্থায়ী কমিটির সদস্যদের বৈঠক হতে হবে। সবাই কীভাবে নিয়েছেন, তা সবার সামনেই পরিষ্কার হবে। বিএনপির পরবর্তী বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হতে পারে।’
এদিকে, জামায়াতের অসমর্থিত একটি সূত্রের খবর, জামায়াত নিজে থেকেই বিএনপিকে ছাড়তে চায়। গত শুক্রবার এ বিষয়ে জামায়াতের নীতিনির্ধারণী একটি বৈঠক হয়েছে। ওই বৈঠকেও বিষয়টি আলোচনায় ছিল। বিশেষ করে সংগঠন গোছানো এবং আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধাচরণ থেকে অন্ততপক্ষে বাঁচতে বিএনপিকে ছাড়তে চাইছে জামায়াত।

এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনও তথ্য না দিলেও দলটির কেন্দ্রীয় শূরা সদস্য মাওলানা হাবিবুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা তো এখন জোট নিয়ে ভাবছি না। আমরা নিজেদের সংগঠন গোছানোর কাজে হাত দিয়েছি। আর জোট থাকবে কিনা, কামাল হোসেন কী বলেছেন, তা নিয়ে হাইকমান্ডের সিদ্ধান্ত জানি না।’

 

 

/এইচআই/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ভোলায় হিমালয়ী গৃধিনী শকুন উদ্ধার

ভোলায় হিমালয়ী গৃধিনী শকুন উদ্ধার

টিএসসি ভাঙা বন্ধে জনমত গড়বে স্থপতি ও সচেতন সমাজ

টিএসসি ভাঙা বন্ধে জনমত গড়বে স্থপতি ও সচেতন সমাজ

নামবিহীন ক্লিনিক সিলগালা, লাখ টাকা দণ্ড

নামবিহীন ক্লিনিক সিলগালা, লাখ টাকা দণ্ড

৯০ ভরি স্বর্ণ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার মাদকের সহকারী পরিচালক রিমান্ডে

৯০ ভরি স্বর্ণ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার মাদকের সহকারী পরিচালক রিমান্ডে

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি, ছাত্রদল নেতা গ্রেফতার

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি, ছাত্রদল নেতা গ্রেফতার

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ (ফটোস্টোরি)

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ (ফটোস্টোরি)

কুষ্টিয়ার এসপির বিচার চাইলেন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট

কুষ্টিয়ার এসপির বিচার চাইলেন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা

শাহজালালে ৩ কেজি সোনাসহ যাত্রী আটক

শাহজালালে ৩ কেজি সোনাসহ যাত্রী আটক

সেবা খাতের বিদেশি প্রতিষ্ঠান বৈদেশিক ঋণ আনতে পারবে

সেবা খাতের বিদেশি প্রতিষ্ঠান বৈদেশিক ঋণ আনতে পারবে

বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নির্মাণের দাবি

বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নির্মাণের দাবি

দীপন হত্যা মামলা: ফের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুনানি আগামী ২৪ জানুয়ারি

দীপন হত্যা মামলা: ফের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুনানি আগামী ২৪ জানুয়ারি

সর্বশেষ

নিলয় দাসকে নিয়ে শিক্ষক দিবসে ওভিসি

নিলয় দাসকে নিয়ে শিক্ষক দিবসে ওভিসি

মায়া তো মায়াই, যত দূরে যায়...

মায়া তো মায়াই, যত দূরে যায়...

বাংলাদেশের ক্রিকেটে ফেরার দিনটা তামিম-সাকিবের ‘বিশেষ’

বাংলাদেশের ক্রিকেটে ফেরার দিনটা তামিম-সাকিবের ‘বিশেষ’

ভোলায় হিমালয়ী গৃধিনী শকুন উদ্ধার

ভোলায় হিমালয়ী গৃধিনী শকুন উদ্ধার

যুক্তরাজ্যে করোনায় দৈনিক মৃত্যুর নতুন রেকর্ড

যুক্তরাজ্যে করোনায় দৈনিক মৃত্যুর নতুন রেকর্ড

টিএসসি ভাঙা বন্ধে জনমত গড়বে স্থপতি ও সচেতন সমাজ

টিএসসি ভাঙা বন্ধে জনমত গড়বে স্থপতি ও সচেতন সমাজ

নামবিহীন ক্লিনিক সিলগালা, লাখ টাকা দণ্ড

নামবিহীন ক্লিনিক সিলগালা, লাখ টাকা দণ্ড

৯০ ভরি স্বর্ণ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার মাদকের সহকারী পরিচালক রিমান্ডে

৯০ ভরি স্বর্ণ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার মাদকের সহকারী পরিচালক রিমান্ডে

সাংবাদিকের বাসায় ককটেল নিক্ষেপের ঘটনায় থানায় জিডি

সাংবাদিকের বাসায় ককটেল নিক্ষেপের ঘটনায় থানায় জিডি

এসআইবিএলের বার্ষিক ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা সম্মেলন অনুষ্ঠিত

এসআইবিএলের বার্ষিক ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা সম্মেলন অনুষ্ঠিত

‘মাশরাফি ভাইয়ের সঙ্গে যদি একবার দেখা করতে পারতাম’

‘মাশরাফি ভাইয়ের সঙ্গে যদি একবার দেখা করতে পারতাম’

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি, ছাত্রদল নেতা গ্রেফতার

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি, ছাত্রদল নেতা গ্রেফতার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নাগরিক ঐক্যে যোগ দিলেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মনিরা বেগম

নাগরিক ঐক্যে যোগ দিলেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মনিরা বেগম

ভ্যাকসিন নিয়ে দুর্নীতিতে জড়িয়েছে সরকার: মির্জা ফখরুল

ভ্যাকসিন নিয়ে দুর্নীতিতে জড়িয়েছে সরকার: মির্জা ফখরুল

জীবিকার খোঁজে খোলা আকাশের নিচে তিনবারের এমপি-প্রার্থী আছাদুল

জীবিকার খোঁজে খোলা আকাশের নিচে তিনবারের এমপি-প্রার্থী আছাদুল

বিরোধী দলের লোকেরা টিকা পাবে কিনা সন্দেহ রিজভীর

বিরোধী দলের লোকেরা টিকা পাবে কিনা সন্দেহ রিজভীর

নির্বাচনকে ‘চর দখলে’ পরিণত করেছে সরকার: সাইফুল হক

নির্বাচনকে ‘চর দখলে’ পরিণত করেছে সরকার: সাইফুল হক

‘ট্রেড ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত ৪ শতাংশ শ্রমিক’

‘ট্রেড ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত ৪ শতাংশ শ্রমিক’

মায়ের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করলেন খালেদা জিয়া

মায়ের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করলেন খালেদা জিয়া

জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকীতে দুই দিনের কর্মসূচি বিএনপির

জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকীতে দুই দিনের কর্মসূচি বিএনপির


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.