X

সেকশনস

রাব্বানিই মোটরসাইকেল নিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে ওঠা সেই যুবক!

আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:৫৩

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রাব্বানী রবি।


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল চালানোরত অবস্থায় যে যুবকের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে তিনি গোলাম রাব্বানি রবি ছিলেন বলে নিশ্চিত করেছে তার সংগঠন ছাত্রলীগের একাধিক নেতা-কর্মী। ওইদিন ক্যাম্পাসে ছিলেন না বলে রবি যে দাবি করেছেন সে তথ্যও সঠিক নয়। বাংলা ট্রিবিউনের অনুসন্ধানে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থীর বক্তব্যে এ তথ্য উঠে এসেছে।

মঙ্গলবার রাতের ওই ঘটনাটির সংবাদ বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) বাংলা ট্রিবিউনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। এ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সজীব বাংলা ট্রিবিউনকে সেদিনই নিশ্চিত করেন, তাদের আড্ডায় থাকা রবিই হুট করে  মোটরসাইকেল স্টার্ট দিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে উঠে পড়েন।  তবে বুধবার এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা না বললেও রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের লাইভ অনুষ্ঠানে বাইক চালানো সেই যুবক তিনি নন বলে দাবি করেন রাব্বানি। এ সময় তিনি আরও দাবি করেন, মঙ্গলবার তিনি ক্যাম্পাসেই ছিলেন না এবং তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। প্রতিপক্ষ তাকে ফাঁসাতে তার নামে এমন অপপ্রচার চালাচ্ছে।

গোলাম রাব্বানি রবি’র এমন বক্তব্যের পরে বিষয়টি যাচাই করার জন্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের বিভিন্ন নেতা-কর্মীসহ তিনি যে হলে থাকেন সেই হলের অন্যান্য শিক্ষার্থী, ওইদিন শহীদ বেদিতে থাকা অন্যান্য শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা হয় বাংলা ট্রিবিউন প্রতিনিধির। এ অনুসন্ধানে জানা গেছে, গত তিনদিন ধরেই রবি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আছেন এবং তার শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল নিয়ে ওঠার বিষয়ে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কেন্দ্রীয় নেতারা অবগত। এ কারণে আজ তাকে কারণ দর্শাও নোটিশও দিয়েছে রাবি শাখা ছাত্রলীগ। একইসঙ্গে বিষয়টি অবহিত হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠিয়েছে।

পাশাপাশি জানা গেছে, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী রবি। এমন একটি সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে তিনি কী করে শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল নিয়ে উঠতে পারেন তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী।

ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রাব্বানি রবি

ছাত্রলীগ নেতাদের অনেকেই বলছেন, ছবিটি দূর থেকে তোলা এবং খানিক অস্পষ্টতা থাকায় এটি নিজের ছবি নয় বলে সুযোগ নিতে চাইছেন গোলাম রাব্বানী রবি। কিন্তু, তার সঙ্গে সেসময়ে ওইস্থানে যারা উপস্থিত ছিলেন তাদের সাক্ষ্য নিলেই রবি আর দায় এড়াতে পারবেন না। এদের মধ্যে রাবি ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সজীব প্রকাশ্যে ঘটনার বর্ণনা দিলেও বাকিরা এই মুহূর্তে গণমাধ্যমকে এড়িয়ে চলছেন। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ তাদের তদন্তের জন্য যদি এদের ডাকেন তাহলে তারা সেখানে বক্তব্য দেবেন।     

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও রাবি ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সজীব বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ‘আমরা শহীদ মিনারের সামনে আড্ডা দিচ্ছিলাম। আড্ডার একপর্যায়ে রাব্বানি বাইক স্টার্ট দেয়। আমরা ভেবেছিলাম সে চলে যাচ্ছে। তবে হঠাৎ সে বাইক নিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে উঠে পড়ে। তার এই কর্মকাণ্ডে আমরা অবাক হই। সে নেমে আসার পর এই কাজের জন্য তাকে বকাঝকাও করেছি।’

ওই সময়ে ঘটনাস্থলে ছিলেন এমন কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলেও রাব্বানির বাইক চালানোর বিষয়ে তথ্য পাওয়া যায়। তবে তারা নাম প্রকাশ করতে রাজি হননি। তারা জানান, কয়েকজন সেখানে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন। হঠাৎ করে এক যুবক বাইক নিয়ে বেদিতে উঠে পড়েন। পরে তাদেরকে রাব্বানির ছবি দেখানো হলে তারা বলেন, ‘এই ছেলেটিই রাতে বাইক নিয়ে বেদিতে উঠেছিল।’

তবে গোলাম রাব্বানির দাবি, ‘আমাকে জড়িয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল চালানোর মিথ্যা সংবাদ গণমাধ্যমে ছাপানো হয়েছে। সেখানে রাত ১১টার কথা বলা হয়েছে। অথচ আমি মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে রুমে ফিরেছি।’

রাব্বানি বর্তমানে শহীদ হবিবুর রহমান হলের ৩৩৮ নম্বর কক্ষের বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহীদ হবিবুর রহমান হলের সেই রুমে গিয়ে রাব্বানির দাবির কোনও সত্যতা মেলেনি। ওই কক্ষের দুই শিক্ষার্থী এগ্রোনোমি অ্যান্ড এগ্রিকালচারাল এক্সটেনশন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আবেদুর রহমান ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মইনুল জানান, ‘চার সিট বিশিষ্ট এই কক্ষের দুটিতে তারা থাকেন। অন্য একটিতে থাকেন গোলাম রাব্বানি রবি। তিনি কিছুদিন হলো এই রুমে উঠেছেন। তবে তিনি কখনও রুমে থাকেন, কখনও থাকেন না।’

মঙ্গলবার রাতে রবি কখন কক্ষে ফিরেছিলেন জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘কখন রুমে ফিরেছেন সঠিক করে বলতে পারছি না। তবে আমরা রাতে দেড়-দুইটা পর্যন্ত জেগেছিলাম। কিন্তু তখনও তিনি রুমে ফেরেননি। সকালেও তাকে দেখিনি।’

এর পাশের কক্ষগুলোর কেউ মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বা তার পরে রবিকে তার কক্ষে বা হলে দেখেছেন বলে মনে করতে পারছেন না।
এ তথ্য জানিয়ে মঙ্গলবার কোথায় ছিলেন জানতে চাইলে রাব্বানি রবি আবার কথা ঘুরিয়ে বলেন, ‘মঙ্গলবার সকালে ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে যাই, রাতে ফিরি।’

তবে তার এ দাবিটিও সত্যি নয়। রাব্বানিকে ওইদিন দুপুরে ক্যাম্পাসে ঘুরতে দেখেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ছাত্রলীগের একাধিক নেতা । ওইদিন (মঙ্গলবার) রাত সাড়ে ৯টার দিকে শের-ই বাংলা হলে তাকে দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন হল ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে শের-ই-বাংলা হলের দ্বিতীয় তলায় থাকেন এমন এক ছাত্রলীগ নেতা বলেন, ‘রাব্বানি ভাইকে রাত ৯টার দিকে আমি হলের তৃতীয় তলার সিঁড়ি দিয়ে ওপরে উঠতে দেখেছি।’ এসব তথ্যের অডিও রেকর্ড রয়েছে বাংলা ট্রিবিউনের কাছে। ওই নেতার ধারণা, এখান থেকেই অন্য ছাত্রলীগ নেতাদের সঙ্গে শহীদ মিনারের পাশে গিয়ে বসেন রবি। পরে সেখান থেকেই হুট করে মোটরসাইকেল নিয়ে শহীদ মিনারের বেদীতে উঠে পড়েন তিনি।  

তাহলে রাত ৯টার দিকে তিনি কীভাবে নিজের কক্ষে ফিরলেন এমন প্রশ্ন করলে গোলাম রাব্বানী রবি এবার বলেন, ‘ভাই আমাকে এত প্রশ্ন কইরেন না, আমি সব জড়াই (গুলিয়ে) ফেলবো।’

এদিকে, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক হয়ে গোলাম রাব্বানী রবি’র শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল নিয়ে ওঠার ঘটনাটি বিব্রত করেছে এই সংগঠনের অপরাপর নেতা-কর্মী ও সদস্যদের। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন,‘গোলাম রাব্বানী রবি’র বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তাতে আমরা বিব্রত। যদি তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।’

 

/টিএন/

সম্পর্কিত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

সর্বশেষ

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

কেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

শুভ জন্মদিন নায়করাজ রাজ্জাককেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুতির নির্দেশনা জারি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুতির নির্দেশনা জারি

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মার্চে হচ্ছে না এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

মার্চে হচ্ছে না এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

হেলিকপ্টারে চড়ে গার্মেন্টকর্মীর বিয়ে!

হেলিকপ্টারে চড়ে গার্মেন্টকর্মীর বিয়ে!

গৃহ নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ

গৃহ নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ

রামেক হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরির অভিযোগ

রামেক হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরির অভিযোগ

অবস্থান ধর্মঘটে কাদের মির্জা  

অবস্থান ধর্মঘটে কাদের মির্জা  

শিশুকে হত্যার ৪০ দিন পর ফোনে লাশের সন্ধান দিলো অপহরণকারী

শিশুকে হত্যার ৪০ দিন পর ফোনে লাশের সন্ধান দিলো অপহরণকারী

ওবায়দুল কাদেরকে ‘রাজাকার পরিবারের সদস্য’ বললেন এমপি একরামুল

ওবায়দুল কাদেরকে ‘রাজাকার পরিবারের সদস্য’ বললেন এমপি একরামুল

ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

মুজিববর্ষ উপলক্ষে জেলায় জেলায় ঘর পাচ্ছেন গৃহহীনরা

মুজিববর্ষ উপলক্ষে জেলায় জেলায় ঘর পাচ্ছেন গৃহহীনরা

যমুনায় তীব্র নাব্য সংকট, ডুবচরে আটকা অর্ধশত পণ্যবাহী জাহাজ

যমুনায় তীব্র নাব্য সংকট, ডুবচরে আটকা অর্ধশত পণ্যবাহী জাহাজ

হিলিতে অন্যান্য টিকার সঙ্গে করোনার ভ্যাকসিন সংরক্ষণের প্রস্তুতি

হিলিতে অন্যান্য টিকার সঙ্গে করোনার ভ্যাকসিন সংরক্ষণের প্রস্তুতি


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.