সেকশনস

নওগাঁর এক সিরিয়াল কিলার

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০১৯, ২৩:০১

বাবু শেখ নওগাঁয় তার জন্ম। পেশা মাছ ধরে বিক্রি করা। নেশা মানুষ খুন করা। আর টার্গেট নারীরা। বিভিন্ন জায়গায় মাছ ধরা ও বিক্রির ছলে বাড়িতে একা থাকা নারীদের টার্গেট করে খুন করতো সে। ভিকটিম হয় মূলত নিম্নবিত্ত আর মধ্যবিত্ত নারীরা। নাটোর, নওগাঁ ছাড়িয়ে টাঙ্গাইল জেলা পর্যন্ত এসে নারীদের খুন করেছে আনোয়ার ওরফে আনার ওরফে বাবু শেখ ওরফে কালু (৪৫)।

নাটোর ডিবি পুলিশের ওসি সৈকত হাসান জানান, রবিবার সন্ধ্যায় বাবু শেখ আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। সে আট নারীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, শ্বাসরোধে হত্যার পর বাড়িতে থাকা টাকা, স্বর্ণালঙ্কার যা পায় তা নিয়েই পালিয়ে যেতো সিরিয়াল কিলার বাবু শেখ। কয়েকটি হত্যাকাণ্ড ঘটানোর আগে সে ভিকটিমকে ধর্ষণও করেছে। গত ১৯ অক্টোবর নাটোর শহরের রেলস্টেশন এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে নাটোর জেলা পুলিশ। এর আগে তার তিন সহযোগীকেও গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশের রাজশাহী বিভাগীয় ডিআইজি একেএম হাফিজ আক্তার রবিবার নাটোর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, বাবু শেখের বাড়ি নওগাঁ জেলার রাণীনগর থানার হরিশপুর গ্রামে। তার বাবার নাম জাহের আলী। বাবু শেখের সহযোগী রুবেল আলী (২২), আসাদুল (৩৬) ও তার ভায়রা শাহিন(৩৫)। এছাড়া একেকটি হত্যাকাণ্ডের পর পাওয়া স্বর্ণালঙ্কার কিনে নিতো শহরের লালবাজার এলাকার স্বর্ণ ব্যাবসায়ী লিটন খাঁ (৩০)। বাবুর সব সহযোগীকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, একের পর এক চুরি করার কারণে বাবু শেখকে এলাকাবাসী গ্রামছাড়া করে। এরপর বাবু শেখ ও তার তিন সহযোগী জেলে সেজে বিভিন্ন এলাকায় মাছ ধরে বিক্রি করতো। এর আড়ালে সে খোঁজ নিতো এলাকায় কোনও নারী একা বাড়ি থাকে কিনা, আশপাশে কে থাকে, বাড়িতে কীভাবে ঢুকতে হবে ইত্যাদি। এরপর সহযোগীদের নিয়ে টার্গেট করা বাড়িতে ঢুকতো এবং টার্গেট করা নারীকে শ্বাসরোধে হত্যা করতো। পরে ঘরে থাকা টাকা, স্বর্ণালঙ্কার হাতিয়ে নিতো। টার্গেট করা এক স্কুলছাত্রীকে হত্যার আগে ধর্ষণও করেছে বাবু।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, আদালতে এ পর্যন্ত আটটি হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে বাবু শেখ। এরমধ্যে নাটোর জেলায় পাঁচটি, নওগাঁয় একটি আর টাঙ্গাইল জেলায় দুটি।

হত্যাকাণ্ডের শিকার নারীদের মধ্যে একজনের বয়স ১৩ বছর, একজনের ৩২, দুই জনের ৪৫, একজনের ৫৮ ও দুইজনের বয়স ৬০ বছর।

এ পর্যন্ত নাটোর জেলায় লালপুর উপজেলার চংধুপইল এলাকার সাবিনা পারভীন ওরফে সাহেরা (৩২), বাগাতিপাড়া উপজেলার জয়ন্তীপুরের রেহেনা বেগম (৬০), নলডাঙ্গা উপজেলার বাঁশিলা পূর্বপাড়ার আমেনা বেওয়া (৫৮), খাজুরা মোল্লাপাড়ার স্কুলছাত্রী মরিয়ম খাতুন লাবণী (১৩) ও সিংড়া থানার বিগলবাড়িয়া এলাকার বৃদ্ধা শেফালী বেগম হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।

পুলিশ জানায়, নওগাঁ জেলার সদর থানায় ২০০৭ সালে সংঘটিত হত্যাকাণ্ডটি তার নেতৃত্বে হয়, যার রহস্য ইতোমধ্যেই উদঘাটিত হয়েছে। এছাড়া টাঙ্গাইল জেলার মীর্জাপুর থানার বাঁশতৈল গ্রামের রূপবানু (৪৫) ও একই জেলার সখিপুর থানার তক্তারচালা এলাকার সমলাকেও (৬০) হত্যা করে বাবু শেখ।

গত ৮ অক্টোবর রাতে লালপুরের চংধুপইলে সাবিনাকে হত্যা করে তার স্বর্ণের চেইন, কানের দুল ও একটি মোবাইল ফোন নিয়ে যায় বাবু ও তার সহযোগীরা। এরপর বাগাতিপাড়ার জয়ন্তীপুরে রেহেনা বেগমকে হত্যা করে ১৬ হাজার টাকা নিয়ে যায় তারা। এই মামলার সূত্র ধরে জেলা পুলিশ মাঠে নামে। এরই ধারাবাহিকতায় ১৫ অক্টোবর সিংড়া থেকে রুবেলকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যমতে একই দিন সন্ধ্যায় লিটন খাঁর দোকান থেকে লালপুরের ঘটনায় চুরি হওয়া স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা শেষে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আসামি লিটন ও রুবেলের দেওয়া তথ্যমতে পরের দিন নাটোর রেলস্টেশন এলাকা থেকে আসাদুলকে গ্রেফতার করা হয়। পরে ১৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় একই জায়গা থেকে বাবু শেখকে গ্রেফতার করা হয়।

নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার জয়ন্তীপুরে সিরিয়াল কিলার বাবু শেখের হত্যার শিকার রেহেনা বেগমের মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সাজ্জাদুল ইসলাম সোমবার রাত পৌনে ৮টার দিকে জানান, নাটোর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (নাটোর-২)-এর বিচারক সুলতান মাহমুদ বাবু শেখকে ২৩ অক্টোবর আদালতে হাজির করার নির্দেশ দিয়েছেন। সোমবার বিকালে তিনি ওই আদেশনামা পেয়েছেন। ওইদিন হাজির হওয়ার পর আদালত তার বক্তব্য শুনবেন। এরপর আসামি বাবু শেখ, আসাদুল ও রুবেলকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে তিনি ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করবেন।

এদিজে লালপুর উপজেলার চংধুপইল এলাকার সাবিনা পারভীন হত্যা মামলার আইও ইন্সপেক্টর আকবর আলী জানান, তিনি এ ধরনের কোনও আদেশ পাননি। তবে আসামিরা সাবিনাকে হত্যার ব্যাপারে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছে বলে তিনি জানেন।

/এফএস/এমওএফ/

সম্পর্কিত

নাটোরে ৩ পৌরসভায় নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

নাটোরে ৩ পৌরসভায় নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রুপের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ৬

শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রুপের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ৬

রাজধানীতে র‌্যাবের অভিযানে ১৯ জুয়াড়ি গ্রেফতার

রাজধানীতে র‌্যাবের অভিযানে ১৯ জুয়াড়ি গ্রেফতার

নেতাকর্মীদের দেখতে গিয়ে বিএনপি নেতা কারাগারে

নেতাকর্মীদের দেখতে গিয়ে বিএনপি নেতা কারাগারে

রেড নোটিশের ২ মানবপাচারকারী গ্রেফতার, বাকিরা নজরদারিতে

রেড নোটিশের ২ মানবপাচারকারী গ্রেফতার, বাকিরা নজরদারিতে

ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী মাদক ব্যবসায়ী কারাগারে

ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী মাদক ব্যবসায়ী কারাগারে

জাল নোট তৈরির অভিযোগে রাজধানীতে গ্রেফতার ২

জাল নোট তৈরির অভিযোগে রাজধানীতে গ্রেফতার ২

তথ্য ও প্রমাণ থাকার পরেও তদন্তে ধীরগতি: শিক্ষার্থীর বাবা

তথ্য ও প্রমাণ থাকার পরেও তদন্তে ধীরগতি: শিক্ষার্থীর বাবা

প্রাইভেটকারের গ্যাস সিলিন্ডারে রাজধানীতে ইয়াবা সরবরাহ

প্রাইভেটকারের গ্যাস সিলিন্ডারে রাজধানীতে ইয়াবা সরবরাহ

ভুয়া চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানের ২৩ প্রতারক গ্রেফতার

ভুয়া চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানের ২৩ প্রতারক গ্রেফতার

সর্বশেষ

ব্রিজ ভেঙে নদীতে, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নিহত

ব্রিজ ভেঙে নদীতে, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নিহত

গৃহহীনদের পাশে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক

গৃহহীনদের পাশে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক

ভাসানচরে নির্মিত হচ্ছে বিদেশি সংস্থায় কর্মরতদের জন্য ভবন

ভাসানচরে নির্মিত হচ্ছে বিদেশি সংস্থায় কর্মরতদের জন্য ভবন

উন্নয়নের সুফল সবার কাছে পৌঁছে দিতে পরিকল্পনাবিদদের প্রতি আহ্বান

উন্নয়নের সুফল সবার কাছে পৌঁছে দিতে পরিকল্পনাবিদদের প্রতি আহ্বান

নাটোরে ৩ পৌরসভায় নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

নাটোরে ৩ পৌরসভায় নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রুপের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ৬

শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রুপের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ৬

মসজিদের কমিটি গঠন নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১

মসজিদের কমিটি গঠন নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১

রাত পোহালেই দ্বিতীয় ধাপে ৬০ পৌরসভায় ভোট

রাত পোহালেই দ্বিতীয় ধাপে ৬০ পৌরসভায় ভোট

অর্ধকোটি টাকা নিয়ে পালিয়েছে সঞ্চয় সমিতির পরিচালক

অর্ধকোটি টাকা নিয়ে পালিয়েছে সঞ্চয় সমিতির পরিচালক

ডিএসইতে মূলধন বাড়লো ২ লাখ কোটি টাকা

ডিএসইতে মূলধন বাড়লো ২ লাখ কোটি টাকা

এসএসসি ২০০৬ ও এইচএসসি ২০০৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত 

এসএসসি ২০০৬ ও এইচএসসি ২০০৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত 

ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪২

ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪২

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নাটোরে ৩ পৌরসভায় নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

নাটোরে ৩ পৌরসভায় নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

নেতাকর্মীদের দেখতে গিয়ে বিএনপি নেতা কারাগারে

নেতাকর্মীদের দেখতে গিয়ে বিএনপি নেতা কারাগারে

নওগাঁয় সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড

নওগাঁয় সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড

অপহরণের তিন দিন পর শিশুর লাশ উদ্ধার

অপহরণের তিন দিন পর শিশুর লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের দুই পৌরসভায় নির্বাচন নিয়ে উদ্বেগ

মুন্সীগঞ্জের দুই পৌরসভায় নির্বাচন নিয়ে উদ্বেগ

ডলার ও রুপি নিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে ঢুকেই আটক

ডলার ও রুপি নিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে ঢুকেই আটক

ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.