X

সেকশনস

বাসায় কোয়ারেন্টিনে থাকার নিয়মাবলি

আপডেট : ২৯ মার্চ ২০২০, ১৭:১৫

করোনা ভাইরাস (ছবি: ইন্টারনেট) বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভয়াবহ আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসের প্রকোপের মধ্যে বিদেশ থেকে কেউ দেশে এলে তাকে নির্ধারিত কয়েক দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর)। সরকারের তথ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো এক তথ্যবিবরণীতে বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিনে থাকার সময়ে বেশ কিছু নির্দেশনা মেনে চলতে অনুরোধ করা হয়েছে। নির্দেশনাগুলো হলো:

১. বাড়ির অন্য সদস্যদের কাছ থেকে আলাদা থাকুন। সম্ভব না হলে, অন্যদের থেকে অন্তত ১ মিটার (৩ ফুট) দূরে থাকুন (ঘুমানোর জন্য পৃথক বিছানা ব্যবহার করুন)।

২. আলো বাতাসের সুব্যবস্থাসম্পন্ন আলাদা ঘরে থাকুন। অন্য সদস্যদের থেকে আলাদা থাকুন।

৩. যদি সম্ভব হয় তাহলে আলাদা গোসলখানা এবং টয়লেট ব্যবহার করুন। সম্ভব না হলে, অন্যদের সঙ্গে ব্যবহার করতে হয় এমন স্থানের সংখ্যা কমান ও ওই স্থানগুলোতে জানালা খুলে রেখে পর্যাপ্ত আলো-বাতাসের ব্যবস্থা করুন।

৪. বুকের দুধ খাওয়ান এমন মা শিশুকে বুকের দুধ খাওয়াবেন। শিশুর কাছে যাওয়ার সময় মাস্ক ব্যবহার করুন এবং ভালোভাবে হাত ধুয়ে নিন।

৫. আপনার সঙ্গে কোনও পশু/পাখি রাখবেন না।

৬. বাড়ির অন্য সদস্যদের সঙ্গে একই ঘরে অবস্থান করলে, বিশেষ করে এক মিটারের মধ্যে আসার সময় মাস্ক ব্যবহার করা উচিত।

৭. প্রয়োজনে বাড়ি থেকে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করুন।

৮. মাস্ক পরে থাকাকালীন এটি হাত দিয়ে ধরা থেকে বিরত থাকুন। মাস্ক ব্যবহারের সময় প্রদাহের (সর্দি, থুতু, কাশি, বমি ইত্যাদি) সংস্পর্শে এলে সঙ্গে সঙ্গে মাস্ক খুলে ফেলুন এবং নতুন মাস্ক ব্যবহার করুন। মাস্ক ব্যবহারের পর ঢাকনাযুক্ত ময়লার পাত্রে ফেলুন এবং সাবান পানি দিয়ে ভালোভাবে হাত ধুয়ে নিন।

৯. টিস্যু পেপার ও মেডিক্যাল মাস্ক ব্যবহারের পর ঢাকনাযুক্ত ময়লা ফেলার ঝুড়িতে ফেলুন।

১০. ব্যক্তিগত ব্যবহার সামগ্রী অন্য কারও সঙ্গে ভাগাভাগি করে ব্যবহার করবেন না।

১১. আপনার খাওয়ার বাসনপত্র, থালা, গ্লাস, কাপ ইত্যাদি, তোয়ালে, বিছানার চাদর অন্য কারও সঙ্গে ভাগাভাগি করে ব্যবহার করবেন না। এসব জিনিসপত্র ব্যবহারের পর সাবান-পানি দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে ফেলুন।

১২. চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আপনার কোয়ারেন্টিন শেষ হবে। চিকিৎসকের সিদ্ধান্ত মতে একজন থেকে অন্যজনের কোয়ারেন্টিনের সময়সীমা আলাদা হতে পারে। তবে, এ পর্যন্ত পাওয়া তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে এ সময়সীমা ১৪ দিন।

১৩. কোয়ারেন্টিনকালে সবার সঙ্গে ফোন/মোবাইল/ ইন্টারনেটের সাহায্যে যোগাযোগ রাখুন।

১৪. শিশুকে তার জন্য প্রযোজ্যভাবে বোঝান। তাদের পর্যাপ্ত খেলার সামগ্রী দিন এবং খেলনাগুলো খেলার পরে জীবাণুমুক্ত করুন।

১৫. আপনার দৈনন্দিন রুটিন, যেমন- খাওয়া, হালকা ব্যায়াম ইত্যাদি মেনে চলুন।

১৬. সম্ভব হলে বাসা থেকে অফিসের কাজ করতে থাকুন।

১৭. বই পড়া, গান শোনা, সিনেমা দেখা অথবা উপযুক্ত নিয়মগুলোর সঙ্গে পরিপন্থী নয় এমন যেকোনও বিনোদনমূলক কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করুন বা ব্যস্ত রাখুন।

১৮. পরিবারের সদস্য যারা সুস্থ আছেন এবং যাদের দীর্ঘমেয়াদি রোগ (যেমন: ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, ক্যানসার, অ্যাজমা প্রভৃতি) নেই, এমন একজন নির্দিষ্ট ব্যক্তি পরিচর্যাকারী হিসেবে নিয়োজিত হতে পারেন। তিনি ওই ঘরে বা পাশের ঘরে থাকবেন, অবস্থান বদল করবেন না। কোয়ারেন্টিনে আছেন এমন ব্যক্তির সঙ্গে কোনও অতিথিকে দেখা করতে দেবেন না।

১৯. পরিচর্যাকারী খালি হাতে ওই ঘরের কোনও কিছু স্পর্শ করবেন না।

২০. কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তির ব্যবহৃত বা তার পরিচর্যায় ব্যবহৃত মাস্ক, গ্লাভস, টিস্যু ইত্যাদি অথবা অন্য আবর্জনা ওই রুমে রাখা ঢাকনাযুক্ত ময়লার পাত্রে রাখুন। এসব আবর্জনা উন্মুক্ত স্থানে না ফেলে পুড়িয়ে ফেলুন।

২১. ঘরের মেঝে, আসবাবপত্রের সব পৃষ্ঠতল, টয়লেট ও বাথরুম প্রতিদিন অন্তত একবার পরিষ্কার করুন। পরিষ্কারের জন্য ১ লিটার পানির মধ্যে ২০ গ্রাম (২ টেবিল চামচ পরিমাণ) ব্লিচিং পাউডার মিশিয়ে দ্রবণ তৈরি করুন। ওই দ্রবণ দিয়ে সব স্থান ভালোভাবে মুছে ফেলুন। তৈরিকৃত দ্রবণ সর্বোচ্চ ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে।

২২. কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিকে নিজের কাপড়, বিছানার চাদর, তোয়ালে ইত্যাদি ব্যবহৃত কাপড় গুঁড়া সাবান, কাপড় কাচা সাবান ও পানি দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করতে বলুন এবং ভালোভাবে শুকিয়ে ফেলুন।

২৩. নোংরা কাপড় একটি লন্ড্রি ব্যাগে আলাদা রাখুন। মলমূত্র বা নোংরা লাগা কাপড় ঝাঁকাবেন না এবং নিজের শরীর বা কাপড়ে যেন না লাগে তা খেয়াল করুন।

২৪. কোয়ারেন্টিনে থাকার সময় কোনও উপসর্গ দেখা দিলে (১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইটের বেশি জ্বর/কাশি/সর্দি/গলাব্যথা/শ্বাসকষ্ট ইত্যাদি) অতি দ্রুত আইইডিসিআরের হটলাইন নম্বরে অবশ্যই যোগাযোগ করুন এবং পরবর্তী করণীয় জেনে নিন।

/ইএইচএস/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

মতলবে ১৪৪ ধারা

মতলবে ১৪৪ ধারা

বালুর জাহাজ শ্রমিককে হত্যার অভিযোগ

বালুর জাহাজ শ্রমিককে হত্যার অভিযোগ

মামলা নিতে থানা ঘেরাও, বন্ধ করা হলো বাস-লঞ্চ চলাচল

মামলা নিতে থানা ঘেরাও, বন্ধ করা হলো বাস-লঞ্চ চলাচল

কর্মীকে ধর্ষণ: সুইফট ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির পরিচালক কারাগারে

কর্মীকে ধর্ষণ: সুইফট ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির পরিচালক কারাগারে

উন্নত নগরী গড়ে তোলার ঘোষণা রেজাউলের

উন্নত নগরী গড়ে তোলার ঘোষণা রেজাউলের

যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ পরশ করোনায় আক্রান্ত

যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ পরশ করোনায় আক্রান্ত

এলডিসি থেকে উত্তরণের ফলে অগ্রাধিকার বাজার সুবিধা সংকুচিত হবে: সিপিডি

এলডিসি থেকে উত্তরণের ফলে অগ্রাধিকার বাজার সুবিধা সংকুচিত হবে: সিপিডি

যে সাত কোটি মানুষ করোনা টিকার বাইরে

যে সাত কোটি মানুষ করোনা টিকার বাইরে

রাজধানীতে ডাকাতির পর হত্যা: ৪ আসামি রিমান্ডে

রাজধানীতে ডাকাতির পর হত্যা: ৪ আসামি রিমান্ডে

ফাঁকি দেওয়া ভ্যাট স্বেচ্ছায় জমা দিলো ‘সহজ’

ফাঁকি দেওয়া ভ্যাট স্বেচ্ছায় জমা দিলো ‘সহজ’

সর্বশেষ

বাইডেন মন্ত্রিসভায় সিনেটের প্রথম অনুমোদন পেলেন এভ্রিল হেইনেস

বাইডেন মন্ত্রিসভায় সিনেটের প্রথম অনুমোদন পেলেন এভ্রিল হেইনেস

প্রথম দিনেই ১৭ নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর বাইডেনের

প্রথম দিনেই ১৭ নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর বাইডেনের

প্রধানমন্ত্রীর উপহার: ঘর পাচ্ছেন রাঙামাটির পাহাড়ের ২৬৮ পরিবার

প্রধানমন্ত্রীর উপহার: ঘর পাচ্ছেন রাঙামাটির পাহাড়ের ২৬৮ পরিবার

ভোজ্যতেল নিয়ে বিব্রত সরকার

ভোজ্যতেল নিয়ে বিব্রত সরকার

মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মেলনে চক্রান্তকারীদের নিয়ে মুখ খুললেন বঙ্গবন্ধু

মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মেলনে চক্রান্তকারীদের নিয়ে মুখ খুললেন বঙ্গবন্ধু

গাজীপুরে করোনা ভ্যাকসিন দেবেন নার্স ও কমিউনিটি চিকিৎসা কর্মকর্তাগণ

গাজীপুরে করোনা ভ্যাকসিন দেবেন নার্স ও কমিউনিটি চিকিৎসা কর্মকর্তাগণ

মানিকগঞ্জে প্রসূতির রহস্যজনক মৃত্যু

মানিকগঞ্জে প্রসূতির রহস্যজনক মৃত্যু

স্মৃতি হারানো রোগে নিঃস্ব এক বাবার পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান

স্মৃতি হারানো রোগে নিঃস্ব এক বাবার পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান

সৎ মেয়েকে হত্যার দায়ে মায়ের যাবজ্জীবন

সৎ মেয়েকে হত্যার দায়ে মায়ের যাবজ্জীবন

ভাতিজিকে ব্লেড দিয়ে আঁচড়ে দিয়ে রক্তাক্ত, চাচা গ্রেফতার

ভাতিজিকে ব্লেড দিয়ে আঁচড়ে দিয়ে রক্তাক্ত, চাচা গ্রেফতার

যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা

যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা

কালিহাতীতে আ.লীগের সম্মেলনে সংঘর্ষ, আহত ৪

কালিহাতীতে আ.লীগের সম্মেলনে সংঘর্ষ, আহত ৪

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কর্মীকে ধর্ষণ: সুইফট ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির পরিচালক কারাগারে

কর্মীকে ধর্ষণ: সুইফট ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির পরিচালক কারাগারে

এলডিসি থেকে উত্তরণের ফলে অগ্রাধিকার বাজার সুবিধা সংকুচিত হবে: সিপিডি

এলডিসি থেকে উত্তরণের ফলে অগ্রাধিকার বাজার সুবিধা সংকুচিত হবে: সিপিডি

রাজধানীতে ডাকাতির পর হত্যা: ৪ আসামি রিমান্ডে

রাজধানীতে ডাকাতির পর হত্যা: ৪ আসামি রিমান্ডে

শহীদ আসাদ দিবসে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের শ্রদ্ধা নিবেদন

শহীদ আসাদ দিবসে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের শ্রদ্ধা নিবেদন

অভিনেত্রী আশার মৃত্যু: বাইকচালক শামীম আহমেদের জামিন

অভিনেত্রী আশার মৃত্যু: বাইকচালক শামীম আহমেদের জামিন

যেসব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার

যেসব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.