সেকশনস

লকডাউনে উল্লেখযোগ্য মাত্রায় কমেছে বৈশ্বিক কার্বন নির্গমন

আপডেট : ২০ মে ২০২০, ০৬:২৪

করোনাভাইরাস মহামারিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে লকডাউন জারি করার ফলে কার্বন ডিঅক্সাইড নির্গমনে নাটকীয় অবনতি হয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে, ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসের চেয়ে এই বছরের একই সময়ে প্রতিদিন গ্রিন হাউস গ্যাস নির্গমন কমেছে ১৭ শতাংশ। বৈশ্বিক কার্বন নিঃসরণ নিয়ে এটিই ২০২০ সালের প্রথম সুনির্দিষ্ট গবেষণা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এখবর জানিয়েছে।

গবেষণার তথ্যে উঠে এসেছে, কার্বন নির্গমনের তথ্য সংরক্ষণ শুরু হওয়ার পর সবচেয়ে বড় অবনতি প্রত্যক্ষ করেছে বিশ্ব যখন মহামারিতে অধিকাংশ অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ছিল স্থবির। লকডাউন পূর্ণাঙ্গরূপে জারি থাকা অবস্থায় কয়েকটি দেশে গড়ে ২৬ শতাংশ নির্গমন কমেছে। এপ্রিলে যুক্তরাজ্যে তা ছিল ৩১ শতাংশ ও অস্ট্রেলিয়াতে ২৮ দশমিক ৩ শতাংশ।

নেচার ক্লাইমেট চেঞ্জ নামক জার্নালে এই গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অব ইস্ট আংলিয়ার জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ের অধ্যাপক করিন লি কুইরি। তিনি বলেন, এটি অনেক বেশি অবনতি। কিন্তু একই সময়ে বিশ্বের ৮৩ শতাংশ বৈশ্বিক নির্গমন অব্যাহত ছিল। ফলে এটি প্রতীয়মান হয় যে আচরণ পরিবর্তনের মাধ্যমে নির্গমন কমানো কতটা কঠিন।

প্রতিবেদন অনুসারে, বিভিন্ন দেশে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকায় বিমানচলাচলের নির্গমন কমেছে প্রায় ৬০ শতাংশ। কমে যান চলাচল থেকে নির্গমনও (৩৬%)। বিদ্যুৎ উৎপাদন ও শিল্পে কমেছে ৮৬ শতাংশ।

দ্য গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে, এই অভুতপূর্ব কমে যাওয়া সাময়িক। ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বহাল থাকলে ও দেশগুলো কিছুটা বিধিনিষেধ সহকারে স্বাভাবিক কর্মকাণ্ডে ফিরলে বার্ষিক কমে যাওয়ার হার মাত্র ৭ শতাংশ হবে।  আর যদি বিধিনিষেধ জুনের মাঝমাঝি পুরোপুরি প্রত্যাহার করা হয় তাহলে এই কমে যাওয়ার হা হবে ৪ শতাংশ।

লি কুইরি জানান, এরপরও এটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর বার্ষিক নির্গমনে সবচেয়ে বড় পতন এবং সাম্প্রতিক প্রবনতার চেয়ে অনেক ভিন্ন। কারণ বার্ষিক ১ শতাংশ হারে নির্গমন বেড়ে চলেছে। অবশ্য প্যারিস জলবায়ু চুক্তির লক্ষ্য অর্জনে এই কমে যাওয়া সামান্য ভূমিকা রাখবে।  

আন্তঃসরকার জলবায়ু পরিবর্তন প্যানেলের তথ্য অনুসারে, প্যারিস জলবায়ু চুক্তির লক্ষ্য হলো এই শতাব্দীর মাঝামাঝিতে কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনতে হবে এবং বৈশ্বিক উষ্ণতাকে সর্বনাশা পর্যায়ে যাওয়া ঠেকাতে হবে।

লি কুইরি বলছেন, কোভিড-১৯ সংকটে নির্গমন কমে যাওয়া দেখিয়ে দিচ্ছে বিশ্বকে এখনও অনেক দূর যেতে হবে লক্ষ্য অর্জন করতে হলে। তিনি বলেন, শুধু আচরণ পরিবর্তনই যথেষ্ট নয়। আমাদের কাঠামোগত (অর্থনৈতিক ও শিল্প) পরিবর্তন প্রয়োজন। কিন্তু যদি এই সুযোগকে আমরা কাঠামোগত পরিবর্তনের জন্য কাজে লাগাই তাহলে আমরা কী অর্জন করতে পারব তা দেখা যাবে। 

/এএ/

সম্পর্কিত

লন্ডনে ১৩শ’‌ মরদেহের ধারণক্ষমতাসম্পন্ন মরচুয়ারি চালু

লন্ডনে ১৩শ’‌ মরদেহের ধারণক্ষমতাসম্পন্ন মরচুয়ারি চালু

একাধিক বিয়ে করে অর্থ নষ্ট করছে তালেবানরা, নড়েচড়ে বসছেন শীর্ষ নেতা

একাধিক বিয়ে করে অর্থ নষ্ট করছে তালেবানরা, নড়েচড়ে বসছেন শীর্ষ নেতা

চীনকে হুঁশিয়ার করলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান

চীনকে হুঁশিয়ার করলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান

আমিরাতে ইসরায়েলি পর্যটকদের ঢল

আমিরাতে ইসরায়েলি পর্যটকদের ঢল

কঙ্গোয় বিদ্রোহীদের হামলায় ৪৬ বেসামরিক নিহত

কঙ্গোয় বিদ্রোহীদের হামলায় ৪৬ বেসামরিক নিহত

রাশিয়ায় ফিরলেই গ্রেফতার হচ্ছেন পুতিন সমালোচক নাভালনি

রাশিয়ায় ফিরলেই গ্রেফতার হচ্ছেন পুতিন সমালোচক নাভালনি

যুক্তরাজ্যে ১৪ বছরের শিশুর হাতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী খুন

যুক্তরাজ্যে ১৪ বছরের শিশুর হাতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী খুন

ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, নিহত অন্তত ৩৪

ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, নিহত অন্তত ৩৪

শেষ মুহূর্তে চীনের ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা চাপালো ট্রাম্প প্রশাসন

শেষ মুহূর্তে চীনের ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা চাপালো ট্রাম্প প্রশাসন

দুনিয়ার সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র প্রদর্শনের দাবি উ. কোরিয়ার

দুনিয়ার সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র প্রদর্শনের দাবি উ. কোরিয়ার

এক লাখ ৯০ হাজার কোটির প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করলেন বাইডেন

এক লাখ ৯০ হাজার কোটির প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করলেন বাইডেন

সর্বশেষ

চতুর্থ ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির ৫২ প্রার্থী চূড়ান্ত

চতুর্থ ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির ৫২ প্রার্থী চূড়ান্ত

আড়ানীতে নৌকার ২ সমর্থককে কুপিয়ে জখম

আড়ানীতে নৌকার ২ সমর্থককে কুপিয়ে জখম

পাকিস্তান দলে নাটকীয় পরিবর্তন!

পাকিস্তান দলে নাটকীয় পরিবর্তন!

দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হবে অভিন্ন শহীদ মিনার

দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হবে অভিন্ন শহীদ মিনার

নির্বাচনে সন্ত্রাস হচ্ছে: জাপা মহাসচিব

নির্বাচনে সন্ত্রাস হচ্ছে: জাপা মহাসচিব

নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মীকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ

নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মীকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ

রাত পোহালেই সুনামগঞ্জের তিন পৌরসভায় ভোট

রাত পোহালেই সুনামগঞ্জের তিন পৌরসভায় ভোট

লন্ডনে ১৩শ’‌ মরদেহের ধারণক্ষমতাসম্পন্ন মরচুয়ারি চালু

লন্ডনে ১৩শ’‌ মরদেহের ধারণক্ষমতাসম্পন্ন মরচুয়ারি চালু

আবারও দ্রুততম মানব ইসমাইল, মানবী শিরিন

আবারও দ্রুততম মানব ইসমাইল, মানবী শিরিন

বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ এমপিওভুক্তির দাবি

বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ এমপিওভুক্তির দাবি

জাল নোট তৈরির অভিযোগে রাজধানীতে গ্রেফতার ২

জাল নোট তৈরির অভিযোগে রাজধানীতে গ্রেফতার ২

দ্বিতীয় দিন বৃষ্টি আর রুটের আধিপত্য

দ্বিতীয় দিন বৃষ্টি আর রুটের আধিপত্য

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

লন্ডনে ১৩শ’‌ মরদেহের ধারণক্ষমতাসম্পন্ন মরচুয়ারি চালু

লন্ডনে ১৩শ’‌ মরদেহের ধারণক্ষমতাসম্পন্ন মরচুয়ারি চালু

একাধিক বিয়ে করে অর্থ নষ্ট করছে তালেবানরা, নড়েচড়ে বসছেন শীর্ষ নেতা

একাধিক বিয়ে করে অর্থ নষ্ট করছে তালেবানরা, নড়েচড়ে বসছেন শীর্ষ নেতা

চীনকে হুঁশিয়ার করলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান

চীনকে হুঁশিয়ার করলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান

আমিরাতে ইসরায়েলি পর্যটকদের ঢল

আমিরাতে ইসরায়েলি পর্যটকদের ঢল

কঙ্গোয় বিদ্রোহীদের হামলায় ৪৬ বেসামরিক নিহত

কঙ্গোয় বিদ্রোহীদের হামলায় ৪৬ বেসামরিক নিহত

রাশিয়ায় ফিরলেই গ্রেফতার হচ্ছেন পুতিন সমালোচক নাভালনি

রাশিয়ায় ফিরলেই গ্রেফতার হচ্ছেন পুতিন সমালোচক নাভালনি

যুক্তরাজ্যে ১৪ বছরের শিশুর হাতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী খুন

যুক্তরাজ্যে ১৪ বছরের শিশুর হাতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী খুন

ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, নিহত অন্তত ৩৪

ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, নিহত অন্তত ৩৪

শেষ মুহূর্তে চীনের ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা চাপালো ট্রাম্প প্রশাসন

শেষ মুহূর্তে চীনের ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা চাপালো ট্রাম্প প্রশাসন


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.