সেকশনস

চীনা ভ্যাকসিনে ডব্লিউএইচও-এর সমর্থন রয়েছে: বেইজিং

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:০৫

চূড়ান্ত ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা শেষ হওয়ার আগেই করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিন চীন মানুষের ওপর প্রয়োগ শুরু করলেও তাতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সমর্থন রয়েছে বলে দাবি করেছে বেইজিং। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) চীনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের কর্মকর্তা ঝেং ঝংওয়েন জানান, বেইজিংয়ের এই জরুরি কর্মসূচি নিয়ে সংস্থাটির সঙ্গে তাদের বোঝাপড়া রয়েছে। জুলাই মাসে এই কর্মসূচি শুরুর আগে জুনের শেষদিকে তা সংস্থাটিকে জানানো হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান তিনি। তবে চীনা কর্মকর্তার এই দাবি নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি দেশটিতে নিযুক্ত ডব্লিউএইচও প্রতিনিধিরা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। চীনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের কর্মকর্তা ঝেং ঝংওয়েন

করোনা সংক্রমণের তীব্র ঝুঁকিতে রয়েছেন বলে বিবেচিত কর্মীদের ওপর গত জুলাই মাস থেকে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু করেছে চীন। তবে সেগুলোর কার্যকারিতা এবং নিরাপত্তা পূর্ণাঙ্গভাবে প্রমাণিত হয়নি। শেষ হয়নি এগুলোর তৃতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত পরীক্ষা। কার্যকারিতা ও নিরাপত্তা প্রমাণিত হওয়ার আগেই কর্মীদের ভ্যাকসিন প্রয়োগ নিয়ে সমালোচনার মুখে রয়েছে বেইজিং।

শুক্রবারের সংবাদ সম্মেলনে চীনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের কর্মকর্তা ঝেং ঝংওয়েন বলেন, ‘জুনের শেষদিকে চীনের রাষ্ট্রীয় কাউন্সিল কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের জরুরি ব্যবহার কর্মসূচির পরিকল্পনা অনুমোদন করে। ওই অনুমোদনের পর ২৯ জুন আমরা চীনের ডব্লিউএইচও কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট প্রতিনিধিদের সঙ্গে যোগাযোগ করি। আর আমরা ডব্লিউএইচও থেকে বোঝাপড়া ও সমর্থন পাই।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার চীনা প্রতিনিধিরা বেইজিংয়ের ওই দাবির বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনও মন্তব্য করেননি। তবে এ মাসে জেনেভায় সংস্থাটির প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথান বলেন, জাতীয় নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষগুলো নিজস্ব বিচারিক এলাকায় বর্তমান জরুরি পরিস্থিতিতে মেডিক্যাল পণ্য ব্যবহার অনুমোদন দিতে পারে। একে ‘সাময়িক সমাধান’ বলে বর্ণনা করেন তিনি। তবে দীর্ঘমেয়াদি সমাধান তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা সম্পন্নের ওপর নির্ভর করবে বলে জানান তিনি।

করোনা ভ্যাকসিনের জরুরি ব্যবহার কর্মসূচির পূর্ণাঙ্গ বিস্তারিত কখনোই জনসম্মুখে প্রকাশ করেনি চীন। তবে অন্তত তিনটি সম্ভাব্য ভ্যাকসিন এই কর্মসূচিতে ব্যবহার হচ্ছে। এর দুটি উদ্ভাবন করেছে চীনের ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপ (সিএনবিজি) এবং অপরচি সিনোভ্যাক বায়োটেক। বর্তমানে তিনটি ভ্যাকসিনেরই তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা বিদেশে চালানো হচ্ছে। ক্যানসিনো বায়োলজিকস উদ্ভাবিত চতুর্থ আরেকটি ভ্যাকসিন জুন মাস থেকে দেশটির সেনাবাহিনীর ওপর ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়া হয়।

দেশটির ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের কর্মকর্তা ঝেং ঝংওয়েন জানান, ২০২০ সালের শেষ নাগাদ চীনের বার্ষিক কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন উৎপাদনের সক্ষমতা ৬১ কোটি ডোজে পৌঁছাবে। আর ২০২১ সালে তা পৌঁছাবে একশ’ কোটি ডোজে। দেশটিতে ভ্যাকসিনের মূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকবে বলেও জানান তিনি।

/জেজে/এমওএফ/

সম্পর্কিত

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

মমতা বৃহত্তর বাংলাদেশ গড়তে চায়: দিলিপ ঘোষ

মমতা বৃহত্তর বাংলাদেশ গড়তে চায়: দিলিপ ঘোষ

খালাস পেলেন সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্ল হত্যায় দণ্ডিতরা

খালাস পেলেন সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্ল হত্যায় দণ্ডিতরা

যুক্তরাষ্ট্রে কয়েকজনকে জিম্মি করে আত্মঘাতী ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক

যুক্তরাষ্ট্রে কয়েকজনকে জিম্মি করে আত্মঘাতী ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক

নীলফামারীতে আসবে ৬০ হাজার ডোজ টিকা

নীলফামারীতে আসবে ৬০ হাজার ডোজ টিকা

পঞ্চগড়ে টিকা দেওয়া হবে ২১ হাজার ৬শ’ জনকে

পঞ্চগড়ে টিকা দেওয়া হবে ২১ হাজার ৬শ’ জনকে

প্রথম ধাপে খুলনা বিভাগে ৬ লাখ ডোজ টিকা বরাদ্দ

প্রথম ধাপে খুলনা বিভাগে ৬ লাখ ডোজ টিকা বরাদ্দ

সমতার সমাজ গঠনে বঙ্গবন্ধুর চিন্তা বিশ্বের জন্য জরুরি: অমর্ত্য সেন

সমতার সমাজ গঠনে বঙ্গবন্ধুর চিন্তা বিশ্বের জন্য জরুরি: অমর্ত্য সেন

দ্বিতীয় দিনে টিকা নিলেন ৫৪১ জন

দ্বিতীয় দিনে টিকা নিলেন ৫৪১ জন

উহানে কোয়ারেন্টিনমুক্ত ডব্লিউএইচও’র টিম, তদন্ত শুরু

উহানে কোয়ারেন্টিনমুক্ত ডব্লিউএইচও’র টিম, তদন্ত শুরু

সর্বশেষ

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

চিকিৎসকের অবহেলায় নার্সের বাবার মৃত্যুর অভিযোগ, তদন্ত কমিটি

চিকিৎসকের অবহেলায় নার্সের বাবার মৃত্যুর অভিযোগ, তদন্ত কমিটি

বাংলাদেশ-ভারত পররাষ্ট্র সচিব বৈঠকে প্রাধান্য পাবে অর্থনৈতিক সম্পর্ক

বাংলাদেশ-ভারত পররাষ্ট্র সচিব বৈঠকে প্রাধান্য পাবে অর্থনৈতিক সম্পর্ক

রাবাদার ২০০

রাবাদার ২০০

গোপালগঞ্জে আরও ৫টি ‘অবৈধ’ ইটভাটায় পরিবেশ অধিদফতরের অভিযান

গোপালগঞ্জে আরও ৫টি ‘অবৈধ’ ইটভাটায় পরিবেশ অধিদফতরের অভিযান

চট্টগ্রামে নির্বাচনি সহিংসতায় আইন ও সালিশ কেন্দ্রের উদ্বেগ

চট্টগ্রামে নির্বাচনি সহিংসতায় আইন ও সালিশ কেন্দ্রের উদ্বেগ

ইশতেহারে টাঙ্গাইল পৌরসভাকে ‘জনমুখী’ করার ঘোষণা

ইশতেহারে টাঙ্গাইল পৌরসভাকে ‘জনমুখী’ করার ঘোষণা

বাসচাপায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত, সড়ক অবরোধ

বাসচাপায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত, সড়ক অবরোধ

কওমি শিক্ষার্থীদের বিদেশে উচ্চশিক্ষা সহজ করতে ৬ দাবি

কওমি শিক্ষার্থীদের বিদেশে উচ্চশিক্ষা সহজ করতে ৬ দাবি

৯ জেলায় নতুন ডিসি

৯ জেলায় নতুন ডিসি

নিখোঁজের ৬ দিন পর অঙ্কিতার লাশ পাওয়া গেলো সেপটিক ট্যাংকে

নিখোঁজের ৬ দিন পর অঙ্কিতার লাশ পাওয়া গেলো সেপটিক ট্যাংকে

মমতা বৃহত্তর বাংলাদেশ গড়তে চায়: দিলিপ ঘোষ

মমতা বৃহত্তর বাংলাদেশ গড়তে চায়: দিলিপ ঘোষ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

মমতা বৃহত্তর বাংলাদেশ গড়তে চায়: দিলিপ ঘোষ

মমতা বৃহত্তর বাংলাদেশ গড়তে চায়: দিলিপ ঘোষ

খালাস পেলেন সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্ল হত্যায় দণ্ডিতরা

খালাস পেলেন সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্ল হত্যায় দণ্ডিতরা

যুক্তরাষ্ট্রে কয়েকজনকে জিম্মি করে আত্মঘাতী ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক

যুক্তরাষ্ট্রে কয়েকজনকে জিম্মি করে আত্মঘাতী ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক

সমতার সমাজ গঠনে বঙ্গবন্ধুর চিন্তা বিশ্বের জন্য জরুরি: অমর্ত্য সেন

সমতার সমাজ গঠনে বঙ্গবন্ধুর চিন্তা বিশ্বের জন্য জরুরি: অমর্ত্য সেন

উহানে কোয়ারেন্টিনমুক্ত ডব্লিউএইচও’র টিম, তদন্ত শুরু

উহানে কোয়ারেন্টিনমুক্ত ডব্লিউএইচও’র টিম, তদন্ত শুরু


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.