সেকশনস

শীতের সবজির পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকলেও চড়া দাম

আপডেট : ১৩ নভেম্বর ২০২০, ১৮:০৬

শীতের সবজি সুস্বাস্থ্য তথা জীবনধারণের জন্য সবজি অত্যন্ত দরকারি খাদ্য উপাদান। খাবারের তালিকায় অপরিহার্য এই শীতের সবজি বাজারে উঠেছে প্রচুর পরিমাণে। অর্থাৎ সরবরাহে কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু বাজারে এই দরকারি পণ্য কিনতে গেলেই নাভিশ্বাস ক্রেতাদের। বিশেষ করে, যাদের আয় বাড়েনি তারা তাদের চাহিদা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সবজি কিনতেই পারছেন না। ক্রেতাদের অভিযোগ, সবজি দেশে উৎপাদন হয়। বাজারের দিকে তাকালে মনে হয় উৎপাদনও ভালো।  কিন্তু দামের দিকে তাকালে হতাশ হতে হয়। সবজির সরবরাহের তুলনায় দাম অন্তত তিনগুণ বেশি।

সবজির দাম কতটা বেড়েছে, তা পরিমাপ করতে হলে আপেল বা কমলার সঙ্গে তুলনা করলে কিছুটা বোঝা যাবে। কোনও কোনও সবজির দাম এসব দামি ফলের চেয়েও বেশি। বাজারে আপেল ও কমলার কেজি ১২০ টাকা। অথচ এক কেজি শিম কিনতে লাগছে ১৩০ টাকা। শুধু শিম নয়, পাকা টমেটোর কেজি ১২০ থেকে ১৪০ টাকা। শালগম, বরবটি ও গাজর ১০০ টাকা, বেগুন ও উচ্ছে  ১১০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। বাজারে আসা নতুন আলুর কেজি ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা। রাজধানীর বাজারগুলো ঘুরে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে।

রাজধানীর মগবাজারের সবজি বিক্রেতা আক্কাস আলী শিম, শালগম ও নতুন আলু বিক্রি করছেন ১২০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি। একই এলাকার বাসিন্দা শহিদুল ইসলাম। চাকরি করেন বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে। তিনি জানান, ১০০ টাকা কেজিতে সবজি কেনার মতো সামর্থ্য তার নেই। ফলে তিনি সবজি কেনা অনেকটা ছেড়েই দিয়েছেন। তার দাবি, সবজির দামের চেয়ে ব্রয়লার মুরগির দাম কম। যে কারণে তিনি বেশি করে মুরগি কেনেন। একই এলাকায় বসবাস করেন খায়রুল ইসলাম। তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা। তিনি বলেন, বেতনের টাকা দিয়ে তার সংসার চলছে না। সবজি কেনা নিয়ে প্রায়ই তাকে তার স্ত্রীর সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হতে হয় বলে জানান।

রাজধানীর সেগুনবাগিচা বাজারে দেখা গেল, শীতের আগাম সবজিতে ভরপুর। কিন্তু দাম চড়া। এ কারণে কিনতে গিয়ে স্বস্তি পাচ্ছেন না ক্রেতারা। সবজির সঙ্গে পেঁয়াজ ও আলু কিনতেও হিমশিম খেতে হচ্ছে ভোক্তাদের।

শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) রাজধানীর কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা গেছে, নতুন করে কোনও সবজির দাম কমেনি। আগের সপ্তাহের দামেই সব ধরনের সবজি বিক্রি হচ্ছে। দেখা যাচ্ছে, অধিকাংশ সবজির দামই প্রতি কেজি একশ’ টাকার ঘরে।

বাজার বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, আধা কেজি আপেল বা আধা কেজি কমলার দাম দিয়ে এক কেজি কোনও ধরনের সবজিই মিলছে না। অর্থাৎ ৬০ টাকায় আধা কেজি আপেল-কমলা পাওয়া গেলেও ঢেঁড়সের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৯০ টাকা। পটলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা। ঝিঙে ৭০ থেকে ৮০ টাকা, কাঁকরোল ৬০ থেকে ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৭০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে কচুর লতি। প্রতিটি লাউ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। এক হালি কাঁচা কলা বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা।

কাঁচা মরিচের দাম কমলেও স্বস্তি মিলছে না। ২৫০ গ্রাম কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়। শুধু তা-ই নয়, শীতের অন্যতম প্রধান সবজি ফুলকপি ও বাঁধাকপির দামেও স্বস্তি পাওয়া যাচ্ছে না। ছোট একটি ফুলকপি কিনতে ৪০ থেকে ৫০ টাকা গুনতে হচ্ছে। একই দাম গুনতে হচ্ছে বাঁধাকপিরও।

কারওয়ান বাজারের সবজি ব্যবসায়ী আখলাক বেপারি জানান, বন্যা ও বৃষ্টির কারণে দুই থেকে তিনবার খেতের সবজি নষ্ট হয়ে হওয়ার প্রভাবে সবজির দাম এখন খানিকটা বাড়তি। তিনি বলেন, ‘কৃষক আগের ক্ষতি পোষাতে দাম বেশি রাখছে। যার ফলে ভোক্তাদেরও বেশি দামে সবজি কিনতে হচ্ছে।’

মানিকনগর এলাকার সবজি বিক্রেতা রবিউল ইসলাম জানান, আগে কখনও তিনি সবজি এত চড়া দামে বিক্রি করেননি। দাম বেশি হওয়ার কারণে তাদের বেচা-বিক্রিও কমেছে বলে জানান তিনি। দাম বাড়ার বিষয়ে তিনি জানান, আড়তেই সবজির দাম বেশি। যে কারণে তারাও বেশি দামে বিক্রি করছেন। এই এলাকায় বিভিন্ন ধরনের শাক বিক্রি করেন জামাল হোসেন। তিনি বলেন, ‘এখন পালংশাক ৬০ টাকা কেজি বিক্রি করছি। এই শাক গত বছর ২০ টাকায় পাওয়া যেত। এভাবে লালশাক, কলমি শাক, মুলাশাক কেজিতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা বেশি। গত বছরও যেসব শাক ১০ টাকায় বিক্রি করেছি, এ বছর সেগুলো ২৫ টাকার কমে বিক্রি করা যাচ্ছে না।’

এদিকে নতুন করে বেড়েছে মোটা ও সরু চাল এবং ভোজ্যতেলের দাম। মসুর ডালের দামও গত সপ্তাহে কিছুটা বেড়েছিল। নতুন করে আর হেরফের হয়নি। এই সপ্তাহে নতুন করে দাম বেড়েছে আটা ও ময়দার। এছাড়া ধনে, তেজপাতা, দারুচিনি, শুকনো মরিচের দাম বেড়েছে। বাজারে পুরনো আলুর কেজি আকারভেদে ৪০ থেকে ৫০ টাকা। 

অবশ্য স্বস্তির বিষয়, আমদানি করা পেঁয়াজের দাম কমেছে। কমেছে ব্রয়লার মুরগি ও ডিমের দাম। ব্রয়লার মুরগি গত সপ্তাহের মতো ১২৫ থেকে ১৩০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। ফার্মের মুরগির ডিম বিক্রি হচ্ছে ১০৫ থেকে ১১০ টাকা ডজন।

বাজারে এখন চার ধরনের পেঁয়াজ দেখা যায়। সবচেয়ে দাম কম চীনা ও তুরস্কের পেঁয়াজের, ৪০ টাকা কেজি। পাকিস্তানি পেঁয়াজের কেজি ৬০ টাকা। দেশি পেঁয়াজ ৮০ থেকে ৮৫ টাকা কেজি। চীনা রসুন কেজি ১০০ থেকে ১২০ টাকা। দেশি রসুন ১২০ থেকে ১৪০ টাকা। কমার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আদা। কিছু দিন আগেও যে আদা আড়াইশ’ টাকা কেজি ছিল, এখন সেই আদার কেজি মাত্র ৮০ টাকা। বাজারে ছোট দানার মসুর ডাল ১১০ থেকে ১১৫ টাকা ও মোটা দানার মসুর ডাল ৭০ থেকে ৭৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এদিকে তুলনামূলকভাবে মাছের দামও কম। খাল, বিল ও নদীনালায় পানি কমতে শুরু করায় দেশি বিভিন্ন ধরনের মাছ ধরা পড়ছে, যা বাজারে আসছে। 

/এমএএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

পিকে হালদারসহ ৩৩ সহযোগীর বিরুদ্ধে দুদকের ৫ মামলা

পিকে হালদারসহ ৩৩ সহযোগীর বিরুদ্ধে দুদকের ৫ মামলা

কাপ্তাইয়ে পৃথক ঘটনায় দুই যুবকের মৃত্যু

কাপ্তাইয়ে পৃথক ঘটনায় দুই যুবকের মৃত্যু

৬ লাখ টাকার জালনোটসহ গ্রেফতার ২

৬ লাখ টাকার জালনোটসহ গ্রেফতার ২

রাষ্ট্রপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর শপথ গ্রহণ স্মরণে ডাকটিকিট প্রকাশ

রাষ্ট্রপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর শপথ গ্রহণ স্মরণে ডাকটিকিট প্রকাশ

যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

বিনামূল্যে মানসম্পন্ন করোনা টিকা নিশ্চিত করতে হবে: খেলাফত মজলিস

বিনামূল্যে মানসম্পন্ন করোনা টিকা নিশ্চিত করতে হবে: খেলাফত মজলিস

ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতিকে কুপিয়ে জখম

ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতিকে কুপিয়ে জখম

নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

সিইসির দেখা পেলেন না মওলানা ভাসানীর মেয়ে

সিইসির দেখা পেলেন না মওলানা ভাসানীর মেয়ে

নীলফামারীতে করোনা টিকা দেওয়া হবে ২৪ বুথে

নীলফামারীতে করোনা টিকা দেওয়া হবে ২৪ বুথে

দক্ষ নির্মাণ শ্রমিক তৈরিতে ত্রিপক্ষীয় চুক্তি হবে: এলজিআরডি মন্ত্রী

দক্ষ নির্মাণ শ্রমিক তৈরিতে ত্রিপক্ষীয় চুক্তি হবে: এলজিআরডি মন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর খুনিকে ফেরত আনতে বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে আলাপ করবে সরকার

বঙ্গবন্ধুর খুনিকে ফেরত আনতে বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে আলাপ করবে সরকার

সর্বশেষ

চোটের ধরন ভালো মনে হচ্ছে না সাকিবের

চোটের ধরন ভালো মনে হচ্ছে না সাকিবের

পিকে হালদারসহ ৩৩ সহযোগীর বিরুদ্ধে দুদকের ৫ মামলা

পিকে হালদারসহ ৩৩ সহযোগীর বিরুদ্ধে দুদকের ৫ মামলা

কাপ্তাইয়ে পৃথক ঘটনায় দুই যুবকের মৃত্যু

কাপ্তাইয়ে পৃথক ঘটনায় দুই যুবকের মৃত্যু

সেনা প্রত্যাহারে গতি আনায় ভারত ও চীনের সম্মতি

সেনা প্রত্যাহারে গতি আনায় ভারত ও চীনের সম্মতি

স্ত্রী ও অনাগত সন্তান হারালেন গোলকিপার সারোয়ার

স্ত্রী ও অনাগত সন্তান হারালেন গোলকিপার সারোয়ার

সেনাকল্যাণ ইন্সুরেন্সে বঙ্গবন্ধুর ‘রিলিফ ভাস্কর্য’ উন্মোচন

সেনাকল্যাণ ইন্সুরেন্সে বঙ্গবন্ধুর ‘রিলিফ ভাস্কর্য’ উন্মোচন

৬ লাখ টাকার জালনোটসহ গ্রেফতার ২

৬ লাখ টাকার জালনোটসহ গ্রেফতার ২

রাষ্ট্রপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর শপথ গ্রহণ স্মরণে ডাকটিকিট প্রকাশ

রাষ্ট্রপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর শপথ গ্রহণ স্মরণে ডাকটিকিট প্রকাশ

যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

বিনামূল্যে মানসম্পন্ন করোনা টিকা নিশ্চিত করতে হবে: খেলাফত মজলিস

বিনামূল্যে মানসম্পন্ন করোনা টিকা নিশ্চিত করতে হবে: খেলাফত মজলিস

ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতিকে কুপিয়ে জখম

ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতিকে কুপিয়ে জখম

ফের কোম্পানীগঞ্জে হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা

ফের কোম্পানীগঞ্জে হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ভারতে বিদ্যুতের দর বৃদ্ধির দায় নিতে নারাজ বাংলাদেশ

ভারতে বিদ্যুতের দর বৃদ্ধির দায় নিতে নারাজ বাংলাদেশ

আইসিএসবি গোল্ড অ্যাওয়ার্ড পেলো ইসলামী ব্যাংক

আইসিএসবি গোল্ড অ্যাওয়ার্ড পেলো ইসলামী ব্যাংক

সেচ মৌসুমে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ-জ্বালানি সরবরাহের নির্দেশ

সেচ মৌসুমে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ-জ্বালানি সরবরাহের নির্দেশ

পণ্যের মান দিয়ে বাজার দখল করতে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

পণ্যের মান দিয়ে বাজার দখল করতে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

শেয়ার বাজারের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরেছে

শেয়ার বাজারের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরেছে

ব্যাংকের এমডি-পরিচালকদের সম্পদের বিবরণী দাখিল করতে হবে

ব্যাংকের এমডি-পরিচালকদের সম্পদের বিবরণী দাখিল করতে হবে

অর্থনীতির প্রধান ছয় সূচক এখনও ঊর্ধ্বমুখী

অর্থনীতির প্রধান ছয় সূচক এখনও ঊর্ধ্বমুখী

বাংলাদেশে সানোফি’র ব্যবসা কিনে নিচ্ছে বেক্সিমকো

বাংলাদেশে সানোফি’র ব্যবসা কিনে নিচ্ছে বেক্সিমকো

ডলার আয় করলে কার্ডে নিতে ঘোষণা দিতে হবে না

ডলার আয় করলে কার্ডে নিতে ঘোষণা দিতে হবে না

স্বল্পসুদে ২০৮৯ ক্ষুদ্র-মাঝারি উদ্যোক্তাকে ১১৩ কোটি টাকা ঋণ দিলো এসএমই ফাউন্ডেশন

স্বল্পসুদে ২০৮৯ ক্ষুদ্র-মাঝারি উদ্যোক্তাকে ১১৩ কোটি টাকা ঋণ দিলো এসএমই ফাউন্ডেশন


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.