X

সেকশনস

‘ভিক্ষা করলেও মৃৎশিল্প পেশায় আসবেন না তারা’

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৪:২০

এখনও মৃৎশিল্পকে আঁকড়ে রেখেছেন তারা নাটোরের এক সময়ের ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প এখন হুমকির মুখে পড়েছে। কেননা, মৃৎশিল্পের ধারক ও বাহক পাল বংশের নতুন প্রজন্ম শপথ নিয়েছে, ভিক্ষা করে খেলেও বাপ-দাদার ওই পেশায় তারা আর আসবেন না! এর কারণ, ওই পেশায় থেকে তাদের পূর্বসূরিরা সামাজিক মর্যাদা যেমন পায়নি, তেমনি পায়নি অর্থের দেখা। বরং দেখেছে সমাজের অবজ্ঞা, অবহেলা আর অর্থকষ্ট। তাই তারা নিজদের নতুন পেশায় কনভার্ট করছে। নাটোরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমনই মন্তব্য পাওয়া গেছে ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে।

সরেজমিন জানা যায়, এক সময় নাটোর ছিল মৃৎশিল্পের জন্য বিখ্যাত। এখানে সাধারণ মানুষ তাদের পারিবারিক ও প্রয়োজনীয় কাজে ব্যাবহার করতো মাটির তৈরি হাড়ি, কলস, খেজুরের রস আহরণের হাঁড়ি, মাটির কুপি এমনকি বদনা পর্যন্ত। বিভিন্ন উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত মেলায় দেখা যেতো মাটির তৈরি বাঘ, হাতি, পাখিসহ নানা আকর্ষণীয় খেলনা। চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে পাল বংশের সদস্যদের বংশ পরস্পরায় প্রধান পেশা ছিল এই মৃৎশিল্প। কিন্তু কালের বিবর্তনে এখন মানুষ এসকল দ্রব্য ব্যাবহার না করে বেছে নিয়েছে সিলভার, ম্যালামাইন ও প্লাস্টিক সামগ্রী। ফলে দিন দিন জৌলুস হারিয়েছে এই শিল্প। জেলার সদর উপজেলাসহ সকল উপজেলায় এখনও পাল বংশের মানুষদের বসবাস করতে দেখা গেলেও ধীরে ধীরে পরিবর্তিত হচ্ছে পাল বংশের এই পেশা।

সদর উপজেলার ভাটোদাঁড়া গ্রামের পাশেই এখনও বাস করছেন পাঁচ ঘর পাল বংশের মানুষ। তবে এদের মধ্যে এখন এই পেশায় থেকে শুধুমাত্র বিভিন্ন প্রতিমা বানানোর কাজে আছেন সুজন নামে  একজন। অন্যরা স্বর্ণকার, দোকানের কারিগর ও দর্জি পেশা বেছে নিয়েছেন। নলডাঙ্গা, বড়াইগ্রাম, সিংড়া ও লালপুর উপজেলা এলাকায় পাল বংশের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে প্রায় একই রকম তথ্য জানা গেছে।

বাগাতিপাড়া উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের পালপাড়ায় কথা হল বুদু পাল ও তার চাচাতো ভাই রবীন্দ্র পালের সঙ্গে। তারা জানান, এখানে তারা তিন ঘর বসবাস করছেন। তারা আট পুরুষ থেকে এখানে থেকে ওই পেশা ধরে রেখেছেন। তবে তাদের সন্তানরা আর ওই পেশায় যাবে না।

নাটোরের ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প বুদু পাল জানান, এখন আর মাটির তৈরি জিনিসের তেমন কদর নেই। ওগুলো তৈরির মাটির দামও বেশি। সারা মাস কাজ করে তৈরি জিনিস বিক্রি করে গড়ে তাদের এক হাজার টাকা লাভ হয়। এমন অবস্থা দেখে নতুন প্রজন্ম ওই পেশায় না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার দুই ছেলে দুই মেয়ে। মেয়েদের বিয়ে হয়েছে। বড় ছেলে পড়ালেখা করে প্রাণ কোম্পানিতে চাকরি করছে। ছোট ছেলে বিপ্লব নাটোর এনএস কলেজে পদার্থ বিজ্ঞানে অনার্স পড়ছে। 

রবীন্দ্রপাল জানান, তিনি মাটি দিয়ে শৌখিন সামগ্রী তৈরি করেন। তার ছেলেরাও এই পেশায় নেই। তার ছেলে বিষ্ণু রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাপলাইড ম্যাথমেটিকস্ এ মাস্টার্স করছে।

জানতে চাইলে বিপ্লব ও বিষ্ণু জানান, তারা তাদের বাপ-দাদাদের পেশায় আসবেন না বলে প্রতিজ্ঞা করেছেন। কেননা এই পেশায় নেই কোনও সামাজিক মূল্যায়ন, নেই অর্থ, নেই ভবিষ্যৎ। বরং আছে শুধু অবহেলা। তাই সবকিছু ভেবে তারা নতুন পেশায় যাওয়ার মনস্থির করেছেন।। এক প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন, পড়ালেখা শেষ করে কোনও চাকরি না পেলে বরং ভ্যান-রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করবেন। প্রয়োজনে ভিক্ষা করে জীবন চালাবেন, তবু বাপ-দাদাদের পেশায় আসবেন না।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে বিষ্ণু জানান, মৃৎশিল্পকে বাঁচাতে হলে রাষ্ট্র ও সরকারকে সুপরিকল্পিত পরিকল্পনা নিতে হবে। এই পেশার মানুষদের সামাজিক মর্যাদা, মূল্য ও ভর্তুকি দিয়ে তৈরি দ্রব্যের মূল্য দিতে হবে। কারণ, প্লাস্টিকসহ বিকল্প সামগ্রী পরিবেশ বান্ধব নয়, কিন্তু মৃৎশিল্প সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব আর বাঙালির ঐতিহ্য-সংস্কৃতির সঙ্গে জড়িত। তাই সুনির্দিষ্ট ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা না নিলে দ্রুত নাটোরসহ বাংলাদেশ থেকে হারিয়ে যাবে এই মৃৎশিল্প।

 

/আরআইজে/

সম্পর্কিত

তল্লাশিচৌকিতে সার্জেন্টকে পেটালো দুই যুবক

তল্লাশিচৌকিতে সার্জেন্টকে পেটালো দুই যুবক

জঙ্গি সংগঠনের সদস্য গ্রেফতার

জঙ্গি সংগঠনের সদস্য গ্রেফতার

পাবনায় নসিমনকে ট্রেনের ধাক্কা, বৃদ্ধ নিহত

পাবনায় নসিমনকে ট্রেনের ধাক্কা, বৃদ্ধ নিহত

জমি নিয়ে বিরোধ, চাচার মারপিটে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

জমি নিয়ে বিরোধ, চাচার মারপিটে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

অটো থেকে ছিটকে ট্রাকের তলায়

অটো থেকে ছিটকে ট্রাকের তলায়

শেরপুর পৌর নির্বাচনে ২০টি ‘গায়েবি’ ভোট এলো কোথা থেকে?

শেরপুর পৌর নির্বাচনে ২০টি ‘গায়েবি’ ভোট এলো কোথা থেকে?

চর কেটে বালু উত্তোলন, ৭ জনের কারাদণ্ড

চর কেটে বালু উত্তোলন, ৭ জনের কারাদণ্ড

শিবগঞ্জে যুবকের আবর্জনা চাপা দেওয়া লাশ উদ্ধার

শিবগঞ্জে যুবকের আবর্জনা চাপা দেওয়া লাশ উদ্ধার

আমার এ জয় পা-ফাটা সাধারণ মানুষের বিজয়: মেয়র লিলি

আমার এ জয় পা-ফাটা সাধারণ মানুষের বিজয়: মেয়র লিলি

পাবনায় সুচিত্রা সেনের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

পাবনায় সুচিত্রা সেনের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত

বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত

সর্বশেষ

আমার হৃদয়ে তার সোনালি স্বাক্ষর

আমার হৃদয়ে তার সোনালি স্বাক্ষর

নিলয় দাসকে নিয়ে শিক্ষক দিবসের ওভিসি

নিলয় দাসকে নিয়ে শিক্ষক দিবসের ওভিসি

মায়া তো মায়াই, যত দূরে যায়...

মায়া তো মায়াই, যত দূরে যায়...

বাংলাদেশের ক্রিকেটে ফেরার দিনটা তামিম-সাকিবের ‘বিশেষ’

বাংলাদেশের ক্রিকেটে ফেরার দিনটা তামিম-সাকিবের ‘বিশেষ’

ভোলায় হিমালয়ী গৃধিনী শকুন উদ্ধার

ভোলায় হিমালয়ী গৃধিনী শকুন উদ্ধার

যুক্তরাজ্যে করোনায় দৈনিক মৃত্যুর নতুন রেকর্ড

যুক্তরাজ্যে করোনায় দৈনিক মৃত্যুর নতুন রেকর্ড

টিএসসি ভাঙা বন্ধে জনমত গড়বে স্থপতি ও সচেতন সমাজ

টিএসসি ভাঙা বন্ধে জনমত গড়বে স্থপতি ও সচেতন সমাজ

নামবিহীন ক্লিনিক সিলগালা, লাখ টাকা দণ্ড

নামবিহীন ক্লিনিক সিলগালা, লাখ টাকা দণ্ড

৯০ ভরি সোনা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার মাদকের সহকারী পরিচালক রিমান্ডে

৯০ ভরি সোনা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার মাদকের সহকারী পরিচালক রিমান্ডে

সাংবাদিকের বাসায় ককটেল নিক্ষেপের ঘটনায় থানায় জিডি

সাংবাদিকের বাসায় ককটেল নিক্ষেপের ঘটনায় থানায় জিডি

এসআইবিএলের বার্ষিক ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা সম্মেলন অনুষ্ঠিত

এসআইবিএলের বার্ষিক ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা সম্মেলন অনুষ্ঠিত

‘মাশরাফি ভাইয়ের সঙ্গে যদি একবার দেখা করতে পারতাম’

‘মাশরাফি ভাইয়ের সঙ্গে যদি একবার দেখা করতে পারতাম’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

তল্লাশিচৌকিতে সার্জেন্টকে পেটালো দুই যুবক

তল্লাশিচৌকিতে সার্জেন্টকে পেটালো দুই যুবক

জঙ্গি সংগঠনের সদস্য গ্রেফতার

জঙ্গি সংগঠনের সদস্য গ্রেফতার

পাবনায় নসিমনকে ট্রেনের ধাক্কা, বৃদ্ধ নিহত

পাবনায় নসিমনকে ট্রেনের ধাক্কা, বৃদ্ধ নিহত

জমি নিয়ে বিরোধ, চাচার মারপিটে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

জমি নিয়ে বিরোধ, চাচার মারপিটে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

অটো থেকে ছিটকে ট্রাকের তলায়

অটো থেকে ছিটকে ট্রাকের তলায়

শেরপুর পৌর নির্বাচনে ২০টি ‘গায়েবি’ ভোট এলো কোথা থেকে?

শেরপুর পৌর নির্বাচনে ২০টি ‘গায়েবি’ ভোট এলো কোথা থেকে?

চর কেটে বালু উত্তোলন, ৭ জনের কারাদণ্ড

চর কেটে বালু উত্তোলন, ৭ জনের কারাদণ্ড

শিবগঞ্জে যুবকের আবর্জনা চাপা দেওয়া লাশ উদ্ধার

শিবগঞ্জে যুবকের আবর্জনা চাপা দেওয়া লাশ উদ্ধার

আমার এ জয় পা-ফাটা সাধারণ মানুষের বিজয়: মেয়র লিলি

আমার এ জয় পা-ফাটা সাধারণ মানুষের বিজয়: মেয়র লিলি


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.