সেকশনস

স্বাক্ষর জাল করে কৃষকের টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে

আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০০:০২

অভিযুক্ত কৃষি কর্মকর্তা মমিনুল ইসলাম নাম একজনের আর স্বাক্ষর আরেকজনের। এভাবে স্বাক্ষর জাল করে বরাদ্দকৃত টাকাসহ সরকারের বিভিন্ন কৃষিপণ্য কৃষকের নামে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে। কৃষকরা বলছেন, যে স্বাক্ষরে টাকা তোলা হয়েছে, তা তাদের নয়। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কৃষি কর্মকর্তা মমিনুল ইসলাম।

শহীদুল, মহি উদ্দিন ও জামাল উদ্দিনসহ বেশ কয়েকজন কৃষকের অভিযোগে জানা গেছে, ফুলগাজী উপজেলায় কৃষি উন্নয়ন এবং লেবুজাতীয় ফল চাষের দুটি বিশেষ প্রকল্পের অধীনে ৪৬০ জন কৃষক রয়েছেন। এর অনুকূলে চলতি অর্থবছরে (২০২০-২১) কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় সুবিধাভোগী কৃষক হিসেবে প্রায় সাড়ে ১৬ লাখ টাকা বরাদ্দ এসেছে। ৯০টি লেবুজাতীয় ফল বাগানের জন্য সাইট্রাস প্রকল্পে ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দ রয়েছে। এই টাকায় বিভিন্ন ধরনের সার ও বীজ দেওয়ার কথা থাকলেও তা এখন পর্যন্ত চাষিরা পাননি। এরপর তারা দেখতে পান প্রকল্পের সুবিধাভোগীর তালিকায় কৃষকদের নামের পাশে স্বাক্ষর দেওয়া রয়েছে। অথচ সেই স্বাক্ষর তাদের নয়। যা দেখে তারা হতবাক হয়েছেন।

রহম মিঞা নামে এক কৃষক বলেন, ‘আমি ও অপর একজন কৃষকের নামের পাশে যে স্বাক্ষর দেখেছি, তা আমাদের নয়; জাল। আমরা দেখেছি, স্বাক্ষর শিটে যত সুন্দর করে আমদের অনেকের স্বাক্ষর দেওয়া আছে, তা আমরা দিইনি। এত সুন্দর করে আমরা লিখতে পারি না। এই প্রকল্পের আওতায় গাছ ছাড়া আর কোনোরকম সুবিধা আমাদের দেওয়া হয়নি।’

কাগজে-কলমে সুবিধা পাওয়া মাল্টা চাষি নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘মাল্টা গাছের প্রতিটির জন্য ৬০ টাকা বরাদ্দ হলেও কৃষকদের ১০-১৫ টাকার নিম্নমানের চারা সরবরাহ করা হয়েছে। ফলে এর বেশিরভাগ গাছ মরে যাচ্ছে; যেগুলো বড় হচ্ছে সেগুলোরও ফলন নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন কৃষকরা।’

কৃষক আবুল কালাম বলেন, ‘এর আগে “সাইট্রাস প্রকল্পের সুবিধাভোগী ৯০ জন কৃষককে প্রায় সোয়া ৫ লাখ টাকার চুন, সার আর পরিবহন বিলসহ সরঞ্জামাদি দেওয়াই হয়নি।’

এসব অভিযোগ অস্বীকার করে ফুলগাজী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মমিনুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘অফিসিয়াল কাগজের শিটে চাষিরা স্বাক্ষর দিয়েছেন। এখন আরও কয়েকটি উপকরণ যোগ করে বিল করে ওই টাকা তোলা হবে। এরপর তাদের মধ্যে ওই টাকা বিতরণ করা হবে।’

ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত ১০-১২ জন কৃষক সোমবার (৩০ নভেম্বর) সকালে আমার কাছে এসেছিল। তারা  অভিযোগ করেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তাদের স্বাক্ষর জাল করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। তারা এর প্রতিকার চেয়েছেন। তাদের অভিযোগ তাক্ষণিক ফেনী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক মহোদয়কে মুঠো ফোনে জানিয়েছি। তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।’

এ প্রসঙ্গে ফেনী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক তোফায়েল আহম্মদ চৌধুরী বলেন, ‘এসব অভিযোগ এর আগে কখনও আমার নজরে আসেনি। এখন অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করা হবে। তদন্তে প্রমাণিত হলে জড়িতদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

/আইএ/

সম্পর্কিত

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই পক্ষের গোলাগুলি, নিহত ১

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই পক্ষের গোলাগুলি, নিহত ১

কারও ব্যবসায়িক স্বার্থে ভ্যাকসিন আনা হয়নি: ওবায়দুল কাদের

কারও ব্যবসায়িক স্বার্থে ভ্যাকসিন আনা হয়নি: ওবায়দুল কাদের

প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছালো

প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছালো

দেশে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চার লাখ ৮১ হাজার

দেশে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চার লাখ ৮১ হাজার

কলাবাগানে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা: প্রতিবেদন ১১ ফেব্রুয়ারি

কলাবাগানে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা: প্রতিবেদন ১১ ফেব্রুয়ারি

মাদক ও অস্ত্র মামলায় গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে চার্জশিট

মাদক ও অস্ত্র মামলায় গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে চার্জশিট

‘শান্তিচুক্তিবিরোধী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না’

‘শান্তিচুক্তিবিরোধী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না’

একপক্ষের ধর্মঘট, অপরপক্ষ চালাচ্ছে লঞ্চ

একপক্ষের ধর্মঘট, অপরপক্ষ চালাচ্ছে লঞ্চ

আশুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই নিহত: ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

আশুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই নিহত: ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

২৬ জানুয়ারি মধ্যরাত থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীতে যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

২৬ জানুয়ারি মধ্যরাত থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীতে যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

‘বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য নানা চক্রান্ত করছে’

‘বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য নানা চক্রান্ত করছে’

সর্বশেষ

আরও ১৪ মৃত্যু

আরও ১৪ মৃত্যু

বাড়তে চায় না চুল?

বাড়তে চায় না চুল?

বাংলাদেশের এক ফুটবলারের কানে ২২ সেলাই!

বাংলাদেশের এক ফুটবলারের কানে ২২ সেলাই!

’অর্থনৈতিক খাত অবাধ্য সন্তানের মতো’

জাপা এমপির অভিযোগ’অর্থনৈতিক খাত অবাধ্য সন্তানের মতো’

নব্য নাৎসিবাদের উত্থানের বিরুদ্ধে জোটবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জাতিসংঘের

নব্য নাৎসিবাদের উত্থানের বিরুদ্ধে জোটবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জাতিসংঘের

মানবিকতার সুযোগ নিয়ে অপরাধী কর্মকাণ্ড চালাতো শাকিল

মানবিকতার সুযোগ নিয়ে অপরাধী কর্মকাণ্ড চালাতো শাকিল

জার্মান মিডিয়ার সংবাদ প্রত্যাখ্যান অ্যাস্ট্রাজেনেকার

জার্মান মিডিয়ার সংবাদ প্রত্যাখ্যান অ্যাস্ট্রাজেনেকার

কীভাবে ফিরিয়ে আনা হবে পিকে হালদারকে?

কীভাবে ফিরিয়ে আনা হবে পিকে হালদারকে?

৩ লাখ মিটার কারেন্ট জালসহ ১০ মণ জাটকা জব্দ

৩ লাখ মিটার কারেন্ট জালসহ ১০ মণ জাটকা জব্দ

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই পক্ষের গোলাগুলি, নিহত ১

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই পক্ষের গোলাগুলি, নিহত ১

ভারত থেকে আসা টিকা প্রয়োগে অনুমতি মিলেছে

ভারত থেকে আসা টিকা প্রয়োগে অনুমতি মিলেছে

অক্সফোর্ডের টিকা বয়স্কদের কাজে আসে না: জার্মান মিডিয়া

অক্সফোর্ডের টিকা বয়স্কদের কাজে আসে না: জার্মান মিডিয়া

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই পক্ষের গোলাগুলি, নিহত ১

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই পক্ষের গোলাগুলি, নিহত ১

‘শান্তিচুক্তিবিরোধী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না’

‘শান্তিচুক্তিবিরোধী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না’

একপক্ষের ধর্মঘট, অপরপক্ষ চালাচ্ছে লঞ্চ

একপক্ষের ধর্মঘট, অপরপক্ষ চালাচ্ছে লঞ্চ

আশুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই নিহত: ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

আশুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই নিহত: ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

২৬ জানুয়ারি মধ্যরাত থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীতে যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

২৬ জানুয়ারি মধ্যরাত থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীতে যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

‘বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য নানা চক্রান্ত করছে’

‘বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য নানা চক্রান্ত করছে’

‘চুপ করে বসে থেকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না’

‘চুপ করে বসে থেকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না’

আ.লীগের দুপক্ষে উত্তেজনা: নোয়াখালীতে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ

আ.লীগের দুপক্ষে উত্তেজনা: নোয়াখালীতে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.