সেকশনস

হলমার্কের অর্থ কেলেঙ্কারি: দুদকের ফের অনুসন্ধান শুরু

আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭:৩৮

হলমার্ক কেলেঙ্কারি

দীর্ঘ সাত বছর স্থগিত থাকার পর বহুল আলোচিত হলমার্ক গ্রুপের ঋণ কেলেঙ্কারি নিয়ে নতুন করে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। এরই ধারাবাহিকতায় আট সদস্যের একটি অনুসন্ধান দল গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি হলমার্কের ঋণ কেলেঙ্কারির নন-ফান্ডেড (ঋণ সুবিধা) অংশটি অনুসন্ধান করবে। মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) দুদক কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ড. মোজাম্মেল হক খান বলেন, ‘হলমার্কের নন-ফান্ডেড অংশ অনুসন্ধানের জন্য কমিশনের পরিচালক মীর মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন শিবলীর নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। যদিও এটিকে নন-ফান্ডেড বলা হয়েছিল, কিন্তু এর পুরোটাই ফান্ডেড। ইতোপূর্বে দুর্নীতি দমন কমিশন এই অংশের ওপরে একটি মামলাও দায়ের করেছিল।’

নতুন করে অনুসন্ধান শুরুর বিষয়ে দুদকের এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ‘বর্তমানে কমিটি পুনর্গঠনের কারণ হলো, যে ৪১টি ব্যাংক এবং শাখায় এই আর্থিক লেনদেনগুলো হয়েছে, সেখানে জাল-জালিয়াতির কোনও আশ্রয় নেওয়া হয়েছে কিনা, কোনও দুর্নীতি ঘটেছে কিনা—এই বিষয়গুলো পুনরায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা। কমিটি অনুসন্ধান করে যে প্রতিবেদন দাখিল করবে, কমিশন তা পর্যালোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।’

দুদক সূত্রে জানা গেছে, হলমার্ক গ্রুপ ফান্ডেড ও নন-ফান্ডেড ঋণ সুবিধার অংশ হিসেবে জালিয়াতি করে প্রায় সাড়ে চার হাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিল। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ২০১২ সালে হলমার্কের বিরুদ্ধে মোট ৩৮টি মামলা করেছিল দুদক। প্রায় সব মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে আদালতে। কিন্তু হলমার্ক ২০১০ সাল থেকে ২০১২ সালের মধ্যে নন-ফান্ডেড যে এক হাজার ২০০ কোটি টাকা ঋণসুবিধা নিয়েছিল, সেটির তদন্ত তখন স্থগিত রাখা হয়েছিল।

জানা গেছে, হলমার্কের ঋণের নন-ফান্ডেড অংশের আওতায় সোনালী ব্যাংকের ব্যাক-টু-ব্যাক ক্রেডিট চিঠি গ্রহণের পরে কমপক্ষে ৩৭টি দেশি ও বিদেশি ব্যাংক হলমার্ক গ্রুপকে ঋণ সুবিধা দিয়েছিল। দুদকের অনুসন্ধান চলাকালে ২০১৪ সালে হলমার্ক গ্রুপের আত্মসাৎ করা অর্থ আদায় করার স্বার্থে বাংলাদেশ ব্যাংক, সোনালী ব্যাংক ও দুর্নীতি দমন কমিশনের মধ্যে বেশকিছু ত্রিপক্ষীয় চিঠি আদান-প্রদান করা হয়। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সেসময় নন-ফান্ডেড অংশের ঋণ আদায়ের সুবিধার্থে দুদকের তদন্ত স্থগিত রাখতে অনুরোধ করে। এছাড়া কমিশনের কর্মকর্তাদের বদলি, পদোন্নতি, অবসরজনিত নানা কারণে অনুসন্ধানটি সেসময় সম্পন্ন করা যায়নি।

দুদকের একজন কর্মকর্তা জানান, গত সপ্তাহে আগের ওই কমিটিকে পুনর্গঠন করে নন-ফান্ডেড অংশটির অনুসন্ধান সম্পন্ন করার উদ্যোগ নিয়েছে কমিশন। নতুন এই অনুসন্ধান কমিটির প্রধান হচ্ছেন কমিশনের পরিচালক মীর মো. জয়নুল আবেদীন শিবলী। অনুসন্ধান দলের অপর সদস্যরা হলেন—উপপরিচালক এস এম আক্তার হামিদ ভূঁইয়া, মশিউর রহমান ও সেলিনা আক্তার মনি, সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন ও সিলভিয়া ফেরদৌস এবং উপসহকারী পরিচালক সহিদুর রহমান ও আফনান জান্নাত কেয়া।

/এনএল/এপিএইচ/এমএমজে/

সম্পর্কিত

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

বৈদ্যুতিক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের চারজন নিহত হওয়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের দুঃখ প্রকাশ

বৈদ্যুতিক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের চারজন নিহত হওয়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের দুঃখ প্রকাশ

আবরার হত্যা মামলা: দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

আবরার হত্যা মামলা: দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

সিরিয়া ফেরত জঙ্গি রিমান্ডে

সিরিয়া ফেরত জঙ্গি রিমান্ডে

এখন লাগবে ৬৯-এর মতো গণঅভ্যুত্থান: মান্না

এখন লাগবে ৬৯-এর মতো গণঅভ্যুত্থান: মান্না

নিষিদ্ধ ঘোষিত চার জঙ্গি তিন দিনের রিমান্ডে

নিষিদ্ধ ঘোষিত চার জঙ্গি তিন দিনের রিমান্ডে

ফরিদপুর মেডিক্যালে যন্ত্রপাতি ‘নষ্ট করার প্রবণতা’ পেয়েছে সংসদীয় কমিটি

ফরিদপুর মেডিক্যালে যন্ত্রপাতি ‘নষ্ট করার প্রবণতা’ পেয়েছে সংসদীয় কমিটি

সর্বশেষ

মানসিক চাপ বাড়িয়ে দেয় যেসব খাবার

মানসিক চাপ বাড়িয়ে দেয় যেসব খাবার

শিক্ষকরা দেশের আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদনের কারিগর: চবি উপাচার্য

শিক্ষকরা দেশের আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদনের কারিগর: চবি উপাচার্য

খুবি শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে ইবিতে মানববন্ধন

খুবি শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে ইবিতে মানববন্ধন

৬০০ পর্বে ‘চাপাবাজ’

৬০০ পর্বে ‘চাপাবাজ’

অনশনরত শিক্ষার্থীদের ক্ষমা চেয়ে আবেদনের আহ্বান কেসিসি মেয়রের

অনশনরত শিক্ষার্থীদের ক্ষমা চেয়ে আবেদনের আহ্বান কেসিসি মেয়রের

বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুলছাত্রী

বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুলছাত্রী

রায়পুরায় আড়িয়াল খাঁ নদে সেতু নির্মাণের দাবি

রায়পুরায় আড়িয়াল খাঁ নদে সেতু নির্মাণের দাবি

খুবিতে অনশনরত দ্বিতীয় শিক্ষার্থীও হাসপাতালে

খুবিতে অনশনরত দ্বিতীয় শিক্ষার্থীও হাসপাতালে

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

একাদশে আসছে পরিবর্তন, কারা খেলছেন?

একাদশে আসছে পরিবর্তন, কারা খেলছেন?

‘করপোরেট গভর্ন্যান্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ পেলো গ্রামীণফোন

‘করপোরেট গভর্ন্যান্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ পেলো গ্রামীণফোন

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি ছাড়ালো

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি ছাড়ালো

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

বৈদ্যুতিক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের চারজন নিহত হওয়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের দুঃখ প্রকাশ

বৈদ্যুতিক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের চারজন নিহত হওয়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের দুঃখ প্রকাশ

আবরার হত্যা মামলা: দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

আবরার হত্যা মামলা: দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ

সিরিয়া ফেরত জঙ্গি রিমান্ডে

সিরিয়া ফেরত জঙ্গি রিমান্ডে

নিষিদ্ধ ঘোষিত চার জঙ্গি তিন দিনের রিমান্ডে

নিষিদ্ধ ঘোষিত চার জঙ্গি তিন দিনের রিমান্ডে

‘আদি বুড়িগঙ্গা চ্যানেলসহ সব খালের অবৈধ অবকাঠামো উচ্ছেদ করা হবে’

‘আদি বুড়িগঙ্গা চ্যানেলসহ সব খালের অবৈধ অবকাঠামো উচ্ছেদ করা হবে’

ডাকাতির পর হত্যা, ২ আসামির দোষ স্বীকার

ডাকাতির পর হত্যা, ২ আসামির দোষ স্বীকার


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.