সেকশনস

শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা

আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:৪৪

অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করোনাভাইরাস শনাক্তে আগামী শনিবার (৫ ডিসেম্বর) থেকে শুরু হচ্ছে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা। স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
বুধবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় অধ্যাপক সেব্রিনা ফ্লোরা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আগামী শনিবার থেকে প্রাথমিকভাবে দেশের ১০টি জেলায় অ্যান্টিজেন পরীক্ষা হচ্ছে। জেলাগুলো হচ্ছে, পঞ্চগড়, গাইবান্ধা, জয়পুরহাট, পটুয়াখালী, মেহেরপুর, মুন্সীগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, যশোর, মাদারীপুর ও সিলেট। এরমধ্যে সিলেট ছাড়া বাকি জেলাগুলোর সদর হাসপাতালে এই টেস্ট করা যাবে। আর সিলেটে অ্যান্টিজেন টেস্ট হবে শহীদ শামসুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।
প্রসঙ্গত, মানুষের শরীর থেকে রক্ত নিয়ে তা থেকে প্লাজমা আলাদা করে একটি কিটের মাধ্যমে ভাইরাস শনাক্ত করার প্রক্রিয়াকে বলা হয় অ্যান্টিজেন টেস্ট। অ্যান্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে দ্রুততম সময়ে কারো শরীরে করোনার ভাইরাস রয়েছে কীনা তা শনাক্ত করা যায়। অ্যান্টিজেন এবং অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করোনার র‌্যাপিড টেস্ট নামেও পরিচিত। তবে সরকার অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমতি দিলেও অ্যান্টিবডি পরীক্ষার অনুমতি দেয়নি।
অ্যান্টিজেন টেস্ট শুরুর বিষয়ে সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, বুধবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের এ সংক্রান্ত নির্দেশনা ওই ১০ জেলায় পাঠানো হয়েছে। আজ অধিদফতরে তাদের প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়েছে। প্রশিক্ষণ শেষে তারা অ্যান্টিজেন কিট নিয়ে নিজ নিজ জেলায় চলেও গেছেন। আমরা বলে দিয়েছি, শনিবার থেকে পরীক্ষা শুরু করতে।

প্রসঙ্গত, তিন মাসের বেশি সময় আগে অ্যান্টিজেন নীতিমালা প্রণয়ন করে রাখে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর। গত ২৪ জুলাই স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছিলেন, সরকার করোনার র‌্যাপিড টেস্টের জন্য অ্যান্টিজেন টেস্টকে অনুমোদন দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তারপর গত ১৭ সেপ্টেম্বর অনুমোদন দেওয়া হয়।
উল্লেখ্য, গত মার্চে বাংলাদেশে করোনার সংক্রমণ শুরুর পর থেকে কেবল আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে করোনার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে। অথচ পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানোর জন্য র‌্যাপিড টেস্টের জন্য বারবার পরামর্শ দিয়ে আসছিলেন বিশেষজ্ঞরা। সর্বশেষ গত ১৭ সেপ্টেম্বর কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় পরামর্শক কমিটিও তাদের সভায় পিসিআর পরীক্ষার পাশাপাশি অ্যান্টিজেন ও অ্যান্টিবডি টেস্ট কার্যক্রম চালুর পরামর্শ দেয়। গত ৫ জুলাই স্বাস্থ্য অধিদফতর অ্যান্টিবডি ও অ্যান্টিজেন সম্পর্কিত নীতিমালার খসড়া তৈরি করে মন্ত্রণালয়ে পাঠায়।

অ্যান্টিজেন টেস্ট শুরু বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. বে-নজির আহমেদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ন্যাজাল সোয়াবের মাধ্যমে করা অ্যান্টিজেন টেস্টে আর্লি পজিটিভ বা আর্লি ডিটেকশন করা যায়। তাই পিসিআর টেস্টের পাশাপাশি অ্যান্টিজেন পরীক্ষা থাকলে রোগী শনাক্ত করা সহজ হয়।’
তিনি জানান, পিসিআর পরীক্ষায় যেসব ‘ডিফিকাল্টিজ’ রয়েছে, অ্যান্টিজেনে সেসব নেই। এই পরীক্ষা যেমন সহজে করা যায়, তেমনই মেশিনের দরকার হয়। আলাদা ল্যাবরেটরি বা যে কোথাও করা যায়, এর জন্য বায়োসেফটির দরকার নেই। প্রয়োজন হয় না তেমন দক্ষ নমুনা সংগ্রহকারীরও। দেশের ৪৯১টি উপজেলায় এ পরীক্ষা করা সম্ভব হবে।
ডা. বে-নজির আহমেদ বলেন, ‘হাসপাতালের জরুরি বিভাগে গুরুতর রোগী এলে, তার কোভিড টেস্ট না থাকায় চিকিৎসা না দেওয়া, এমনকি এ অবস্থায় ওই রোগীর মৃত্যুর খবর পর্যন্ত আমরা পেয়েছি। অথচ, মাত্র ১৫ মিনিটে র‌্যাপিড টেস্ট করা গেলে, পজিটিভ-নেগেটিভ যাই হোক না কেন, রোগীকে সে অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া যাবে।’

বঙ্গবন্ধু শেখ ‍মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সদস্য অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা শুরু থেকেই একথা বলে এসেছি, এতদিন পরে এসেও সেটা করা হচ্ছে—এটা ভালো খবর।’ অ্যান্টিজেন পরীক্ষা খুব দরকার ছিল আরও আগে থেকেই মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘হাসপাতালগুলোতে রোগীদের ভোগান্তি কমবে এখন, চিকিৎসকসহ অন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের আক্রান্ত হবার হার কমে যাবে।’

আরও পড়ুন:

অ্যান্টিজেন টেস্ট: ১৫ মিনিটে করোনা পরীক্ষা

/জেএ/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

বাহরাইন প্রবাসী বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করছে সরকার

বাহরাইন প্রবাসী বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করছে সরকার

ফরিদপুরের সেই দুই ভাইকে হাইকোর্টের জামিন

ফরিদপুরের সেই দুই ভাইকে হাইকোর্টের জামিন

পাতা কুড়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো শিশু

পাতা কুড়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো শিশু

এমপিওভুক্তির সুপারিশ পেয়েছেন ১২১০ জন, বিএড স্কেল ৯০৮ জন

এমপিওভুক্তির সুপারিশ পেয়েছেন ১২১০ জন, বিএড স্কেল ৯০৮ জন

শিশু ধর্ষণের দায়ে একজনের যাবজ্জীবন

শিশু ধর্ষণের দায়ে একজনের যাবজ্জীবন

বাসস্ট্যান্ডে ৫ বাসে আগুন

বাসস্ট্যান্ডে ৫ বাসে আগুন

কারামুক্তির ৩ দিন আগে কারাগারেই মৃত্যু

কারামুক্তির ৩ দিন আগে কারাগারেই মৃত্যু

যৌথবাহিনীর অভিযানে আগ্নেয়াস্ত্রসহ আটক ৭

যৌথবাহিনীর অভিযানে আগ্নেয়াস্ত্রসহ আটক ৭

এক লাখ ৩৪ হাজার ভ্যাকসিন চাইলো কুমিল্লা

এক লাখ ৩৪ হাজার ভ্যাকসিন চাইলো কুমিল্লা

করোনা শনাক্তের সংখ্যা সাড়ে ৯ কোটি ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা সাড়ে ৯ কোটি ছাড়িয়েছে

সর্বশেষ

আমার এ জয় পা-ফাটা সাধারণ মানুষের বিজয়: মেয়র লিলি

আমার এ জয় পা-ফাটা সাধারণ মানুষের বিজয়: মেয়র লিলি

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

বাউফলে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

বাউফলে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

বৃহত্তর চান্দগাঁও-মোহরাকে আধুনিক উপশহর করার প্রতিশ্রুতি ডা. শাহাদাতের

বৃহত্তর চান্দগাঁও-মোহরাকে আধুনিক উপশহর করার প্রতিশ্রুতি ডা. শাহাদাতের

হকারদের সুস্পষ্ট নীতিমালা করে পুনর্বাসন করা হবে: রেজাউল করিম চৌধুরী

হকারদের সুস্পষ্ট নীতিমালা করে পুনর্বাসন করা হবে: রেজাউল করিম চৌধুরী

কাউকেই নির্বাচনি সহিংসতা ঘটাতে দেওয়া হবে না: সিএমপি কমিশনার

কাউকেই নির্বাচনি সহিংসতা ঘটাতে দেওয়া হবে না: সিএমপি কমিশনার

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

জোহরা আলাউদ্দিন এমপি করোনায় আক্রান্ত

জোহরা আলাউদ্দিন এমপি করোনায় আক্রান্ত

ইয়াবা ও ফেনসিডিল উদ্ধার, কারবারি গ্রেফতার

ইয়াবা ও ফেনসিডিল উদ্ধার, কারবারি গ্রেফতার

কলাবাগানে কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে সহপাঠীদের দেয়াল লিখন

কলাবাগানে কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে সহপাঠীদের দেয়াল লিখন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বাহরাইন প্রবাসী বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করছে সরকার

বাহরাইন প্রবাসী বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করছে সরকার

চতুর্থ ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী ৩২৯০

চতুর্থ ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী ৩২৯০

সেদ্ধ চালের আমদানি শুল্ক হ্রাস

সেদ্ধ চালের আমদানি শুল্ক হ্রাস

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চীনসহ অন্য দেশগুলোর আরও সম্পৃক্ততা চায় বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চীনসহ অন্য দেশগুলোর আরও সম্পৃক্ততা চায় বাংলাদেশ

দিল্লি যাচ্ছেন পররাষ্ট্র সচিব

দিল্লি যাচ্ছেন পররাষ্ট্র সচিব

দক্ষিণাঞ্চলের তাপমাত্রা আরও কমতে পারে

দক্ষিণাঞ্চলের তাপমাত্রা আরও কমতে পারে

অর্থনীতি আরও গতিশীল হবে: অর্থমন্ত্রী

অর্থনীতি আরও গতিশীল হবে: অর্থমন্ত্রী


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.