X
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২
১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

দুই হাত ছাড়াই মানিকের এসএসসি জয়ের লড়াই

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৪৬আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৪৬

আর দশটি শিশুর মতো স্বাভাবিক নয় মানিকের জীবন। জন্মগতভাবে দুই হাত নেই তার। তবে সেজন্য স্বাভাবিক জীবন থেকে নিজেকে দূরে রাখেনি সে। দুই হাত না থাকলেও পা দিয়ে লেখার কৌশল আয়ত্ত করে নিজেকে তিলে তিলে প্রস্তুত করেছে মানিক। এভাবে প্রাথমিকের গণ্ডি পার হয়ে মাধ্যমিকে পৌঁছায় সে। এবার নিজের শিক্ষার সীমা প্রসারিত করতে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে এই কিশোর। সঙ্গী শুধু তার দুই পা।

মানিকের পুরো নাম মানিক রহমান। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার সদর ইউনিয়নের চন্দ্রখানা গ্রামের ওষুধ ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান-মরিয়ম বেগম দম্পতির ছেলে সে।

বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া এসএসসি পরীক্ষায় ফুলবাড়ী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় (পাইলট) কেন্দ্রে বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে মানিক। পা দিয়ে লিখে এদিন পরীক্ষা সম্পন্ন করে সে।

এর আগে ২০১৬ সালে জছি মিঞা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিইসিতে গোল্ডেন এ-প্লাস অর্জন করে মানিক। এরপর ২০২০ সালে ফুলবাড়ী জছি মিঞা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়। এ বছর ওই স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে সে।

মানিক রহমান বলেন, ‘আমার দুটো হাত না থাকলেও আল্লাহ রহমতে পিইসি এবং জেএসসি পরীক্ষায় সফলতা পেয়েছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন যেন এবার এসএসসি পরীক্ষায় এ-প্লাস অর্জন করতে পারি।’

তিনি বলেন, ‘পা দিয়ে লেখার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় সব কাজ করতে অভ্যস্থ হয়ে গেছি। আমার মা-বাবা দুজনই আমাকে সাহায্যর করেছেন। আমি আরও পড়াশোনা করতে চাই। আমি ভবিষ্যতে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হয়ে বাবা-মায়ের স্বপ্ন পূরণ করতে চাই।’ 

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মানিক রহমানের দুই হাত না থাকলেও সে দুই পা দিয়ে নিজের প্রয়োজনীয় সব কাজ করতে পারদর্শী হয়ে উঠেছে। পা দিয়েই কম্পিউটার চালনা, ইন্টারনেট ব্যবহারসহ মোবাইল ফোনও অপারেট করে সে। এভাবে গড়ে উঠতে মানিকের মা মরিয়ম বেগম তাকে সহায়তা করেছে বলে জানান মানিকের বাবা মিজানুর রহমান।

প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে এগিয়ে চলা এই কিশোরের মা মরিয়ম বেগম ও বাবা মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমাদের দুই ছেলে। মানিক বড়। মানিক প্রতিবন্ধী এটা আমরা মনে করি না। জন্ম থেকেই তার দুই হাত না থাকলেও ছোট থেকে আমরা তাকে পা দিয়ে লেখার অভ্যাস করিয়েছি। এভাবে লিখে মানিক অন্যদের চেয়ে পিএসসি ও জেএসসিতে ভালো রেজাল্ট করেছে। এটা আমাদের গর্ব। সবাই আমাদের ছেলের জন্য দোয়া করবেন, সে যেন সুস্থ-সুন্দরভাবে বেঁচে থাকতে পারে, স্বাবলম্বী হতে পারে। সে যেন তার স্বপ্নগুলো বাস্তবায়ন করতে পারে।’

ফুলবাড়ী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় (পাইলট) কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব মশিউর রহমান বলেন, ‘মানিক রহমান শারীরিক প্রতিবন্ধী হয়েও পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। তার সুবিধার জন্য চৌকিতে বসে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং বাড়তি ২০ মিনিট সময় দেওয়া হয়েছে। আমি মানিক রহমানের জন্য মঙ্গল কামনা করি যেন সে তার স্বপ্ন পূরণ করতে পারে।’

 

/এমএএ/
বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রফতানি বেড়েছে ৫১ শতাংশ
বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রফতানি বেড়েছে ৫১ শতাংশ
বস্ত্রখাতের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী 
বস্ত্রখাতের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী 
সিরিয়ায় কুর্দি সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো ‘বৈধ লক্ষ্যবস্তু’ তুরস্কের
সিরিয়ায় কুর্দি সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো ‘বৈধ লক্ষ্যবস্তু’ তুরস্কের
বস্ত্রখাত কর্মসংস্থানের পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে ভূমিকা রাখছে: রাষ্ট্রপতি
বস্ত্রখাত কর্মসংস্থানের পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে ভূমিকা রাখছে: রাষ্ট্রপতি
সর্বাধিক পঠিত
আকাশছুঁই পারিশ্রমিক হাঁকছেন রাজ, দিলেন ব্যাখ্যা
আকাশছুঁই পারিশ্রমিক হাঁকছেন রাজ, দিলেন ব্যাখ্যা
মেসি-আলভারেজের গোলে কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনা
মেসি-আলভারেজের গোলে কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনা
‘পুলিশ প্রটোকলে’ বিদায় নিলেন রাঙ্গাবালীর ইউএনও
‘পুলিশ প্রটোকলে’ বিদায় নিলেন রাঙ্গাবালীর ইউএনও
খালেদা-তারেকের ছবি থাকায় মিডিয়া কার্ড বর্জন সাংবাদিকদের
বিএনপির গণসমাবেশখালেদা-তারেকের ছবি থাকায় মিডিয়া কার্ড বর্জন সাংবাদিকদের
ছবি দেখে ১৫ বছর ঐক্যবদ্ধ আছি: এমপি সিরাজ
ছবি দেখে ১৫ বছর ঐক্যবদ্ধ আছি: এমপি সিরাজ