X
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪
৪ আষাঢ় ১৪৩১

হত্যা মামলায় দুই ভাইয়ের যাবজ্জীবন, বাকিরা খালাস

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি
১১ জুন ২০২৪, ১৮:১৬আপডেট : ১১ জুন ২০২৪, ১৮:১৬

মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলায় হত্যা মামলায় দুই ভাইকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছেন আদালত। অনাদায়ে প্রত্যেককে আরও ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তবে রায় ঘোষণার সময়ে আদালতে উপস্থিত ছিলেন না দণ্ডপ্রাপ্তরা। রায়ে অন্য ৭ আসামিকে ঘটনার সঙ্গে জড়িত না থাকায় বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুর ১টার দিকে অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক বেগম খালেদা ইয়াসমিন উর্মি এ রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. হাছান ছারওয়াদী।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন সদর উপজেলার পঞ্চসার ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের মান্নান চোকদারের ছেলে নুর হোসেন চোকদার (৪৮) ও আনোয়ার হোসেন (৩৮)।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১২ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রতনপুর গ্রামের ছাদেকুল ইসলাম ও তার ভাতিজা শাকিল বাড়ি থেকে বের হয়ে পাশের রাস্তায় আসলে কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিসহ আরও ৭ জন মিলে ছাদেকুলকে পূর্বশত্রুতার জেরে মারধর করেন। এ সময় আসামি নুর হোসেনের হুকুমে আনোয়ার হোসেন ছাদেকুলকে গুলি করেন। এ ছাড়া আসামি নুর হোসেন রামদা দিয়ে ছাদেকুলকে কুপিয়ে জখম করেন। অন্যান্য আসামিরা ছাদেকুলকে পিটিয়ে পুরো শরীরে জখম করেন।

গুলির শব্দ পেয়ে ছাদেকুলের মেয়ে শারমিন ও তার চাচি হালিমা বেগম লোকজনের সহায়তায় ছাদেকুলকে উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতৃর্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় ছাদেকুলের স্ত্রী আসমা বেগম বাদী হয়ে ওই দিন সদর থানায় ৯ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। মামলার পর থেকে দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি পলাতক রয়েছেন। মঙ্গলবার ১৩ জন সাক্ষীর জেরা ও জবানবন্দির ভিত্তিতে আদালত এ রায় দেন।

রায়ের ব্যাপারে ওই আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম পল্টু জানান, সদর উপজেলার রতনপুর গ্রামের ছাদেকুল হত্যা মামলায় আসামি নুর হোসেন চোকদার ও আনোয়ার হোসেনকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অনাদায়ে প্রত্যেককে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া অপর ৭ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘আদেশের সময় রায়ে খালাসপ্রাপ্ত ৭ আসামি আদালতে হাজির থাকলেও দণ্ডপ্রাপ্ত দুজন ছিলেন অনুপস্থিত। বিচারকের রায় আমরা মেনে নিয়েছি। তবে খালাসপ্রাপ্ত ৭ আসামি হত্যার সঙ্গে জড়িত আছে মর্মে বাদী তাদের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবে।’

/কেএইচটি/
সম্পর্কিত
বগুড়ায় সাবেক যুবদল নেতা ব্রাজিল হত্যাকাণ্ডের মূলহোতা গ্রেফতার
বাড়িতে ডেকে যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা, গ্রেফতার ১
শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড
সর্বশেষ খবর
কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণকে প্রতিযোগিতায় রূপান্তর করেছি: মেয়র তাপস
কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণকে প্রতিযোগিতায় রূপান্তর করেছি: মেয়র তাপস
ইসরায়েলের হাইফা শহরে নজরদারির দাবি হিজবুল্লাহ’র
ইসরায়েলের হাইফা শহরে নজরদারির দাবি হিজবুল্লাহ’র
উৎসবের আমেজ জাতীয় চিড়িয়াখানায়
উৎসবের আমেজ জাতীয় চিড়িয়াখানায়
বুধবার খুলছে অফিস আদালত, চলবে নতুন সময়সূচিতে
বুধবার খুলছে অফিস আদালত, চলবে নতুন সময়সূচিতে
সর্বাধিক পঠিত
তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ দ্বারপ্রান্তে, ভারতীয় জ্যোতিষের ভবিষ্যদ্বাণী
তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ দ্বারপ্রান্তে, ভারতীয় জ্যোতিষের ভবিষ্যদ্বাণী
মাংস কেনা-বেচার ঈদ মোহাম্মদপুরে
মাংস কেনা-বেচার ঈদ মোহাম্মদপুরে
বাড়ি ফিরে পেতে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ফুটপাতে দিদারুল
ঈদের দিনে অনশনবাড়ি ফিরে পেতে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ফুটপাতে দিদারুল
থমথমে ‘তুফান’, অন্তর্জালে ‘দরদ’ মুগ্ধতা
থমথমে ‘তুফান’, অন্তর্জালে ‘দরদ’ মুগ্ধতা
২৪ বছর পর রাষ্ট্রীয় সফরে উত্তর কোরিয়ায় পুতিন
২৪ বছর পর রাষ্ট্রীয় সফরে উত্তর কোরিয়ায় পুতিন