X
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২
১৬ আশ্বিন ১৪২৯
সর্বোচ্চ তাপমাত্রা মোংলায়

‘রোদে টিকতে পারছি না, পুকুরে নেমে বসে আছি’

আবুল হাসান, মোংলা 
৩০ জুলাই ২০২২, ২১:৩১আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২২, ২১:৪২

শ্রাবণ মাসের অর্ধেক পেরিয়ে গেলেও দেখা নেই কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টির। প্রকৃতির নিয়মানুযায়ী এই সময়ে ভারী বর্ষণের কথা থাকলেও সূর্যের প্রখরতায় পুড়ছে দেশ। কয়েকদিন ধরে তাপমাত্রাও ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে বিরাজ করছে। শনিবার (৩০ জুলাই) দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল বাগেরহাটের মোংলায়। ৩৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে সেখানে।

জানা গেছে, কয়েকদিন ধরে বাগেরহাটের মোংলায় চলছে প্রচণ্ড দাবদাহ। প্রখর তাপে এখানকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। গরমে রাস্তাঘাটেও মানুষ কমেছে। আবার ঘরেও থাকতে পারছেন না।

মোংলা পৌর শহরের কবরস্থান রোড এলাকার বাসিন্দা মো. আক্কাস আলী বলেন, ‘এখন শ্রাবণ মাস চলছে, বৃষ্টি তো হচ্ছেই না উল্টো প্রচণ্ড গরম। গরমে ঘরে থাকা যাচ্ছে না। তাই নাতি-পূতিদের নিয়ে পুকুরের পানিতে নেমে বসে আছি। পুকুরের পানিও গরম।’

দিগন্ত কলোনির বাসিন্দা কাঞ্চন মাঝি বলেন, ‘রোদের যন্ত্রণায় টিকতে পারছি না। কবরস্থানের সরকারি পুকুরের ঘাটে পানিতে নেমে বসে আছি। পুকুরের পানিও একহাত নিচে পর্যন্ত গরম।’

এ ছাড়া অবুঝ প্রাণীদেরও দেখা গেছে গাছের ছায়ায় আশ্রয় নিতে। শনিবার দুপুরে বন্দরের প্রশাসনিক ভবন এলাকায় দেখা গেছে, একটি গুইসাপ গরমে মাটির ওপর থেকে পাশের ড্রেনে নেমে পড়ছে। আর পৌর শহরের সামছুল হক সড়কে গরু আশ্রয় নিয়েছে গাছের ছায়ায়। গরমেও পানি খেয়ে তৃষ্ণা মিটছে না খেটে খাওয়া দিনমুজরদের। গরমে পানিশূন্যতাসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন লোকজন।

পৌর শহরের ভ্যানচালক মো. মহিদুল ইসলাম বলেন, ‘গরমে ভ্যান চালাতে কষ্ট হয়। একবার যাত্রী টেনে ১০ মিনিট বিশ্রাম নিতে হচ্ছে। গরমে পানির পিপাসাও লাগছে। পিপাসা মেটানোর মতো খাবার পানি এখানে নেই। খাওয়ার জন্য যে পানি সরবরাহ করা হয় তাও পরিমাণে খুব কম। তাতে আমাদের পরিপূর্ণ তৃষ্ণাও মেটাতে পারছি না।’

পৌরসভার শিকারির মোড়ের বাসিন্দা মো. কবির বলেন, ‘গরমে প্রচণ্ড শরীর ঘামছে, পানিশূন্যতা দেখা দিয়েছে। শরীর দুর্বল হয়ে পড়ছে। আর পানি তো লবণ তা পান করেও পিপাসা মিটছে না।’

এ ছাড়াও গরমে মরার উপক্রম হয়েছে ঘেরের বাগদা মাছ। উপজেলার মিঠাখালী গ্রামের ঘের মালিক মোজাম্মেল ও নাজমুল হক বলেন, ‘দাবদাহে ঘেরের পানি গরম হয়ে মাছ মরে যাওয়ার অবস্থা হয়েছে। যদি দাবদাহ না কমে এবং বৃষ্টি না হয় তাহলে ঘেরের মাছ মরে যাবে।’

খুলনা ফুলতলা থেকে সাদা মাছ বিক্রি করতে আসা আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ‘গরমে হাড়ির মাছ মরে যাচ্ছে, তাই পুকুরের পানি তুলে হাড়ির পানি পাল্টাচ্ছি। তা না হলে মাছ গরমে সব মরে যাবে। এখানে পুকুরের পানিও ভালো না।’

আবহাওয়াবিদ ড. মো. আবুল কালাম মল্লিক বলেন, ‘শনিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল মোংলায়। এর আগে, শুক্রবার দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল মোংলাতে ৩৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দুই একদিনের এই গরম কমে যাবে।’

/এফআর/
সম্পর্কিত
আগামী ২৪ ঘণ্টা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে
আগামী ২৪ ঘণ্টা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে
মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি
মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঢাকাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি
ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 
ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি 
দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে
দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বেনাপোল সীমান্তে ৭ পিস্তল উদ্ধার, যুবক আটক
বেনাপোল সীমান্তে ৭ পিস্তল উদ্ধার, যুবক আটক
কর্ণফুলীতে নিখোঁজ ব্যবসায়ীর সন্ধান মেলেনি
কর্ণফুলীতে নিখোঁজ ব্যবসায়ীর সন্ধান মেলেনি
রোহিঙ্গা ইয়াবা ব্যবসায়ীসহ ২ জন গ্রেফতার
রোহিঙ্গা ইয়াবা ব্যবসায়ীসহ ২ জন গ্রেফতার
লাইভ চলাকালে সাংবাদিকের ওপর হামলা: আসামি বিএমডিএ কর্মচারীর পদোন্নতি
লাইভ চলাকালে সাংবাদিকের ওপর হামলা: আসামি বিএমডিএ কর্মচারীর পদোন্নতি
এ বিভাগের সর্বশেষ
বঙ্গোপসাগরে ফের লঘুচাপের সৃষ্টি, মোংলায় থেমে থেমে বৃষ্টি
বঙ্গোপসাগরে ফের লঘুচাপের সৃষ্টি, মোংলায় থেমে থেমে বৃষ্টি
বিপৎসীমার ওপরে বরিশালের সব নদীর পানি, জলমগ্ন নগরী
বিপৎসীমার ওপরে বরিশালের সব নদীর পানি, জলমগ্ন নগরী
নীলফামারীতে হঠাৎ এক পসলা বৃষ্টিতে কিছুটা স্বস্তি
নীলফামারীতে হঠাৎ এক পসলা বৃষ্টিতে কিছুটা স্বস্তি
বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, মোংলায় ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত
বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, মোংলায় ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত
মোংলায় আজও ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত
মোংলায় আজও ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত