শ্রমিক বিক্ষোভে উত্তাল আশুলিয়া, অর্ধশতাধিক কারখানায় ছুটি

Send
সাভার প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:৪৫, ডিসেম্বর ২০, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০৮, ডিসেম্বর ২০, ২০১৬


টানা কয়েকদিনের শ্রমিক অসন্তোষ এখন বিক্ষোভে রূপান্তরিত হয়েছে। অর্ধশতাধিক কারখানার শ্রমিকরা মঙ্গলবার  কাজ বন্ধ করে দাবি আদায়ের লক্ষ্যে বিক্ষোভ শরু করেন। উত্তাল হয়ে ওঠে আশুলিয়ার শিল্পাঞ্চল এলাকা। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

মঙ্গলবার সকালে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার বাইপাইল-আব্দুল্লাপুর মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। এছাড়াও এ ঘটনার পর ওই এলাকার প্রায় অর্ধশতাধিক কারখানা ছুটি ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। কাওরান বাজারে বিজিএমইএ ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে রফতানি পোশাক মালিকদের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

আশুলিয়ায় শ্রমিকদের বিক্ষোভশ্রমিক ও পুলিশ সূত্র জানায়, গত কয়েকদিনের মতো মঙ্গলবার সকালেও শ্রমিকরা কারখানার ভেতর প্রবেশ করে ন্যূনতম ১৫ হাজার টাকা বেতনের দাবিসহ ১৬ দফা দাবিতে কর্মবিরতি শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা কারখানার ভেতর বিক্ষোভ শুরু করলে শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে কারখানা কর্তৃপক্ষ মঙ্গলবারের মতো ছুটি ঘোষণা করে।

এদিকে একে একে প্রায় অর্ধশতাধিক কারখানা ছুটি ঘোষণা করলে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার কয়েক হাজার শ্রমিক আব্দুল্লাপুর-বাইপাইল মহাসড়কে নেমে আসে। এসময় তারা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে দেয়। উত্তাল হয়ে ওঠে পুরো শিল্পাঞ্চল এলাকা। খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শ্রমিকদের বুঝিয়ে বাড়ি পাঠাতে ব্যর্থ হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শ্রমিকদের লক্ষ করে টিয়ারশেল, রাবার বুলেট ও লাঠিচার্জ করে তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।আশুলিয়ায় শ্রমিকদের বিক্ষোভ

শ্রমিকরা অভিযোগ করেন, দাবি আদায়ের জন্য কারখানার ভেতরে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করছিলেন তারা। তবে কয়েকদিন যাবৎ কারখানা কর্তৃপক্ষ ছুটি দিয়ে তাদের কারখানা থেকে বের করে দিচ্ছে। এ কারণে তারা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। পুলিশ তাদের ওপর গুলি ছুড়ে আন্দোলন বন্ধ করে দিয়েছে।  তবে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আরও কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন তারা।আশুলিয়ায় শ্রমিকদের বিক্ষোভ

আশুলিয়া শিল্প পুলিশের পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান শ্রমিক বিক্ষোভের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শ্রমিকরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করলে টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়। এছাড়াও ওই এলাকার অর্ধশতাধিক কারখানায় ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। তবে যেকোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ওইসব কারখানার সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন- 


পহেলা বৈশাখের ঘটনায় চিহ্নিত ৮, অভিযুক্ত মাত্র একজন

/এফএস/

 

লাইভ

টপ