দুই ট্রেনের সংঘর্ষে আহত সবার চিকিৎসা খরচ বহন করছে সরকার: রেলমন্ত্রী

Send
কুমিল্লা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:০০, নভেম্বর ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৮, নভেম্বর ১২, ২০১৯

গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলছেন রেলমন্ত্রী (ছবি– প্রতিনিধি)

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার মন্দবাগ রেলস্টেশনে তূর্ণা নিশীথা ও উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন সংঘর্ষে আহত হওয়া সবার চিকিৎসা খরচ সরকার বহন করছে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। একইসঙ্গে আহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিকালে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতদের দেখতে এসে তিনি একথা জানান।

নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘দুর্ঘটনার কারণ জানতে পাঁচটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, দুর্ঘটনায় তূর্ণা নিশীথা ট্রেনের লোকোমোটিভ মাস্টারের কিছুটা ত্রুটি রয়েছে, তাই এ ট্রেনের দুই চালক ও গার্ডকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।’

এসময় রেল মন্ত্রণালয়ের সচিব মোফাজ্জল হোসেন, মহাপরিচালক মোহাম্মদ শামসুজ্জামান, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার সৈয়দ নূরুল ইসলামসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার রাত ৩টার দিকে কসবা উপজেলার মন্দবাগে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা ও সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন দু’টির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উদয়ন ট্রেনের কয়েকটি বগি আরেকটি ট্রেনের ওপর উঠে যায়। স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, তূর্ণা নিশীথা ট্রেনকে মন্দবাগ রেলস্টেশনে দাঁড়ানোর জন্য সিগন্যাল দেওয়া হয়। ওই সিগন্যালে সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস প্রধান লেন থেকে ১ নম্বর লাইনে যেতে শুরু করে। ট্রেনটির ছয়টি বগি ১ নম্বর লাইনে উঠতে পেরেছিল। অন্য বগিগুলো প্রধান লেনে থাকা অবস্থায় তূর্ণা নিশীথা সিগন্যাল অমান্য করে। এতেই দুর্ঘটনা ঘটে। উদয়নের তিনটি বগি দুমড়েমুচড়ে যায়। এ দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৬ জন নিহত ও অর্ধ-শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

 

/এমএ/

লাইভ

টপ