‘বঙ্গবন্ধু হত্যা না হলে আয়কর মেলা করতে হতো না’

Send
দিনাজপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:১৯, নভেম্বর ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:২১, নভেম্বর ১৫, ২০১৯




 যে দেশের মুক্তি সংগ্রামে ৩০ লাখ মানুষ প্রাণ দিয়েছে, সে দেশে আয়করের জন্য মেলা করাটা দুর্ভাগ্যজনক বলে মন্তব্য করেছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল বলেই বাংলাদেশ ৪৮ বছরে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেনি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা না করলে বাংলাদেশ আজ থেকে ৩০ বছর আগেই সোনার বাংলা হতো। আয়করের জন্য আজ মেলা করতে হতো না।

শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) দিনাজপুরে আয়কর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আয়কর মেলার প্রয়োজন ছিল না উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষের সচেতনতা, দেশপ্রেম ও অর্থনৈতিক মেরুদণ্ড ৭৫ এর ১৫ আগস্ট ভেঙে দেওয়া হয়েছিল। একটি বিকৃত সমাজব্যবস্থা ও লুটেরা অর্থনীতি গড়ে তোলা হয়েছিল। বিকৃত রাজনীতির মধ্য দিয়ে যুদ্ধাপরাধীরা দেশকে নিয়ন্ত্রণ করেছিল। সেই জন্য স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর এসে আয়কর মেলা করতে হচ্ছে। তবে এখন বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানোর সময় এসেছে।

অনুষ্ঠানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ও বিএনপিন সমালোচনা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, তিন বারের প্রধানমন্ত্রী জেলখানায় আছেন, এই প্রধানমন্ত্রীকে দেখেছি কালো টাকাকে সাদা করতে। এটা জাতির জন্য দুর্ভাগ্যজনক। প্রয়াত অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান অর্থনীতিকে নিয়ন্ত্রণ করতে কালো টাকাকে সাদা করার সুযোগ করে দিয়েছেন।

রংপুর অঞ্চলের কর কমিশনার আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম এবং দিনাজপুর শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি সুজা-উর রব চৌধুরী। পরে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে ও বেলুন উড়িয়ে তিন দিনব্যাপী আয়কর মেলার উদ্বোধন করেন। দিনাজপুর উপ-কর কমিশনারের কার্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত এই মেলায় আয়কর জমা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন স্টল বসানো হয়েছে।

/টিটি/

লাইভ

টপ