দুবলার চর থেকে শিশুসহ ১০ শ্রমিক উদ্ধার, আটক ১

Send
মোংলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:৩১, নভেম্বর ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:০২, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

 

শিশু শ্রমিকসহ ১০ শ্রমিক উদ্ধার

সুন্দরবন সংলগ্ন দুবলার চর থেকে শিশুসহ ১০ শ্রমিককে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড। এসময় এক অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) রাত ১২টার দিকে দুবলার চরের মাঝের কেল্লা চর থেকে কোস্টগার্ড তাদের উদ্ধার করে। সংস্থাটির পশ্চিম জোনের (মোংলা সদর দফতর) গোয়েন্দা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ এ কথা জানান।

আটক অপহরণকারীরা হলো, চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার মৃত ফরিদ মিয়ার ছেলে মো. নুরুল হক ওরফে লেদু মিয়া। সে শিশুদের অপহরণ করে দুবলার চরে নিয়ে শিশুশ্রমে বাধ্য করছিল বলে কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা কর্মকর্তা লে. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, দুবলার চরের মাঝের কেল্লা চর থেকে উদ্ধার শিশুরা শুটকি আহরণের কাজ করছিল। এসময় কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের আওতাধীন বিসিজি আউটপোস্ট দুবলার একটি টহল টিম সেখান থেকে ১০ শিশু শ্রমিককে উদ্ধার করে। এসময় মো. নুরুল হক ওরফে লেদু মিয়া নামে এক অপহরণকারীকে তারা আটক।

উদ্ধার শিশুসহ ১০ শ্রমিক হলো কিশোরগঞ্জ জেলার বায়জিদপুর থানার মৃত নুরউদ্দিন মিয়ার ছেলে রেণু মিয়া, মৃত আক্কাস আলীর ছেলে মো. মানিক হোসেন, হোসেনপুর থানার মো. আব্দুল মোতালেবের ছেলে মো. আক্তার, চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ থানার মৃত আক্কাস আলীর ছেলে মো. হৃদয়, ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানার মৃত কিতাব আলীর ছেলে মো. টুটুল মিয়া, তারাকান্দা থানার মো. মোখলেসুর রহমানের ছেলে মো. রিমন, হবিগঞ্জ জেলার মংলাবাজার থানার মো. জসিমের ছেলে মো. মনির হোসেন, নোয়াখালী জেলার সেনবাগ থানার জালু মিয়ার ছেলে মো. আল আমিন, চন্দ্রগঞ্জ থানার চট্টগ্রাম জেলার কোতোয়ালি থানার মো. আব্দুল খালেকের ছেলে মো. আমির হোসেন, আব্দুল মালেকের ছেলে মো. আরিফ ও কুষ্টিয়া জেলার শেখপাড়া থানার কচির উদ্দিনের ছেলে মো. পারভেজ।

অপহরণকারী মো. নুরুল হক ওরফে লেদু মিয়া তাদের বিভিন্ন জায়গা থেকে কাজ দেওয়ার কথা বলে বোটে করে দুবলার চরের শুটকি পল্লিতে নিয়ে আসে বলে কোস্টগার্ড কর্মকর্তা জানান।

আটক অপহরণকারী ও অপহৃতদের বাগেরহাটের শরণখোলা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও কোস্টগার্ড জানায়। 

/জেবি/

লাইভ

টপ