পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

Send
কক্সবাজার প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:০৩, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:১৪, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

বন্দুকযুদ্ধে নিহত মোহাম্মদ আলম

কক্সবাজারের পেকুয়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মোহাম্মদ আলম (৩০) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এ সময় সহকারী পুলিশ সুপারসহ আহত হয়েছে পুলিশের ৫ সদস্য। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১২টি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ২৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) ভোর ৫টার দিকে পেকুয়া উপজেলার টৈইটং ইউনিয়নের গুদিকাটা এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধে’র  ঘটনা ঘটে।

নিহত মোহাম্মদ আলম পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের বদি উদ্দিন পাড়া এলাকার মো. আবুল হোসেনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, চাঁদাবাজি, অস্ত্র ও নির্যাতনসহ বিভিন্ন অপরাধে সাতটি মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামরুল আজম জানিয়েছেন, মঙ্গলবার ভোরে পেকুয়া উপজেলার টৈইটং ইউনিয়নের গুদিকাটা এলাকায় দুই ডাকাত দলের মধ্যে আধিপাত্য বিস্তার নিয়ে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ডাকাতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালায়। এসময় ডাকাত দলের সদস্যরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে ছুড়তে গহীন অরণ্যে পালিয়ে যায়। এসময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে বেশ কয়েক রাউণ্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে। ওই সময় সহকারী পুলিশ সুপার (চকরিয়া সার্কেল) কাজী মো. মতিউর ইসলাম, পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান ও এএসআই মেজবাহ উদ্দিনসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘পরে ঘটনাস্থলে অভিযান চালালে তালিকাভুক্ত ডাকাত মোহাম্মদ আলমের মরদেহ দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ডাকাত দলের ব্যবহ্নত অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ অন্য ডাকাতদের আটকের জন্য অভিযান জোরদার করেছে।

 

 

/জেবি/

লাইভ

টপ