নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির কথা বলে অর্থ আত্মসাৎ, আটক ২ (ভিডিও)

Send
জাককানইবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:৩৯, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫১, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

 জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি করিয়ে দেওয়ার কথা বলে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ময়মনসিংহের কথিত আওয়ামী লীগ নেত্রীসহ দুই জনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের চেকপোস্টে লুৎফর নাহার বেগম লাকীর (৩৭) সঙ্গে এক ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থীর অভিভাবক হাসিনা বিনতে হাকিমের (৫০) বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে। হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে যান র‍্যাবের টহল দল এবং ভর্তি পরীক্ষায় নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবকরা। এসময় তারা জানতে পারেন, অবৈধপন্থায় ভর্তি করানোর বিনিময়ে তাদের মধ্যে অর্থ লেনদেন হয়েছে।

পরে র‍্যাবের টহল দল এবং স্বেচ্ছাসেবক সদস্যরা ওই দুই নারীকে প্রক্টর অফিসে নিয়ে যান। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. উজ্জ্বল কুমার প্রধান। তিনি বলেন, এ ঘটনায় অধিকতর তদন্তের স্বার্থে দুই নারীকে ত্রিশাল থানায় পাঠানো হয়।

ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থীর অভিভাবক হাসিনা বিনতে হাকিম বলেন, আওয়ামী লীগ নেত্রী লুৎফর নাহার বেগম লাকী টাকার বিনিময়ে আমার সন্তানকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দেন। আমি তার কথা মতো দেড় লাখ টাকার চুক্তিতে একটি চেক লিখে দেই। এরপর তিনি কোনও টাকা নেননি, বলে গড়িমসি করলে তার সঙ্গে আমার তর্ক হয়।

তবে লুৎফর নাহার বেগম লাকী এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, এমন কোনও ঘটনা ঘটেনি। ওই পাগল মহিলা আমাকে, আমার রাজনৈতিক ক্যারিয়ারকে ‘খাওয়ার’ জন্য উল্টাপাল্টা কথা বলে বেড়াচ্ছে। আমার হাত কত লম্বা আপনারা জানেন না, আমি এর শেষ দেখে ছাড়বো।

এসময় ছবি তুলতে চাইলে লাকী নিজেকে ময়মনসিংহ জেলা আ.লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য দাবি করে সাংবাদিকদের গালাগালি করেন। তিনি বলেন, ‘তরার মতো দুই টেহার ক্যামেরাম্যানরে (সাংবাদিক) আমি টেহা দিয়া রাহি (টাকা দিয়ে রাখি)।’

পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা মোর্শেদ উল হাসান খান বলেন, অধিকতর তদন্তের জন্য আটকদের ত্রিশাল থানায় পাঠানো হয়।


ভিডিও:

/টিটি/

লাইভ

টপ