৭০ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

Send
গাজীপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:৫৬, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:১২, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯

গাজীপুরে ৭০ কেজি গাঁজাসহ আন্তঃজেলা মাদক চক্রের একজনকে আটক করেছে র‌্যাব। জামাল হোসেন (৩৫) নামের ওই মাদক ব্যবসায়ী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার বনগঞ্জ এলাকার মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে। তার কাছ থেকে মোবাইল ফোন এবং মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত একটি পিকআপও জব্দ করা হয়েছে। শুক্রবার র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল সারওয়ার-বিন-কাশেম এ তথ্য জানিয়েছেন।
লে. কর্ণেল সারওয়ার-বিন-কাশেম জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে গাঁজার একটি বড় চালান নিয়ে আসে সংঘবদ্ধ মাদক চোরাচালানকারী চক্রের সদস্যরা। পরে ওই চালানটি পিকআপযোগে গাজীপুর হয়ে টাঙ্গাইলের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। গোপন খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে উত্তরা র‌্যাব-১ এর একটি দল গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের পূবাইল থানার কামারগাঁও এলাকার রানা সিএনজি স্টেশনের সামনে ঢাকা বাইপাস (ভুলতা-নাওজোর) সড়কে অভিযান চালায়। এ সময় একটি পিকআপের গতিরোধ করে আন্তঃজেলা মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্য জামাল হোসেনকে (৩৫) আটক করা হয়।

র‍্যাব সদস্যরা ওই পিকআপে লুকিয়ে রাখা ৭০ কেজি গাঁজা ও একটি মোবাইল ফোন জব্দ করে। এ সময় মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ওই পিকআপটিও জব্দ করা হয়।

আটককৃত ব্যক্তি একটি সংঘবদ্ধ আন্তঃজেলা মাদক চোরাচালানকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে জানিয়েছে র‍্যাব। সে দীর্ঘদিন ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে গাঁজা চোরাচালানের সঙ্গে যুক্ত। পরে অভিনব কায়দায় বিভিন্ন পণ্যবাহী পরিবহনে করে এসব গাঁজা ঢাকাসহ সারাদেশে মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট সরবরাহ করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একজন মাদক ব্যবসায়ী আটককৃত জামাল হোসেনের মাধ্যমে ঢাকা ও আশেপাশের এলাকায় সিন্ডিকেটের অন্যান্য সদস্যদের কাছে খুচরা ও পাইকারী মূল্যে মাদক সামগ্রী বিক্রয় করতো। এজন্য জামালকে চালান প্রতি ৩০ হাজার টাকা করে দেয়া হতো।

/এআর/

লাইভ

টপ