গভীর রাতে দোকান থেকে ৬৫ লাখ টাকার পণ্য লুট

Send
নাটোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৭:৪৫, জানুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০৪, জানুয়ারি ২২, ২০২০




নাটোরের নলডাঙা উপজেলার বাজারের ভিআইপি রোডের চারটি গার্মেন্টস দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। চার প্রহরীকে বেঁধে রেখে অস্ত্রের মুখে এই লুটপাট চালানো হয়। এসময় বাজার কমিটির সভাপতিসহ চার জনের দোকান থেকে ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা নগদ এবং ৬৫ লাখ টাকার পণ্য লুট হয় বলে জানিয়েছেন দোকানিরা।



মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে এই ঘটনা ঘটে। নলডাঙা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির এবং উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভুক্তভোগী দোকানি এবং বাজার কমিটির সভাপতি শহিদুল ইসলাম জানান, ভিআইপি রোডে তার নিজেরসহ মজিবর রহমান, মাজেদুর রহমান এবং রাশেদুল ইসলামের চারটি দোকানে রাতে ডাকাতি হয়। এসময় আলতাব,হাফিজুল ও কামরুলসহ চার নৈশপ্রহরীকে হাত-পা বাঁধা এবং মুখে স্কচটেপ লাগানো অবস্থায় রেললাইনের পাশ থেকে উদ্ধার করা হয়।

শহিদুল ইসলাম আরও জানান, তার দোকানের নগদ ৪০ হাজার টাকা এবং ১৫ লাখ টাকার পণ্য, রাশেদুলের ২ লাখ টাকা এবং ১৫ লাখ টাকার পণ্য, মজিবরের ২০ লাখ টাকার পণ্য এবং মাজেদের ১৫ লাখ টাকার পণ্য লুট হয়েছে।

প্রহরী আলতাব হোসেন বলেন, ‘রাতে ১৫-২০ জন ডাকাত তাদের চারজনকে বেঁধে রেললাইনের পাশে ফেলে রাখে। এ সময় ওই চার দোকানের মালামাল লুট করে ট্রাকে উঠিয়ে তারা চলে যায়।’

উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, ‘ভিআইপি রোডের বাজারটিতে রাতে পুলিশ টহল থাকে, সেখানে এ ধরনের ডাকাতি অকল্পনীয়।  দ্রুত ডাকাতদের গ্রেফতার ও মালামাল উদ্ধারে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’




নলডাঙ্গা থানার ওসি হুমায়ুন কবির বলেন, ‘রাত ২টার দিকে পুলিশ টহল ওই জায়গা থেকে অন্যত্র চলে গেলে এই ঘটনা ঘটে।’

ডাকাতির সময় দোকানগুলোর সিসিটিভি ফুটেজসহ হার্ডডিস্ক ডাকাত দল নিয়ে গেছে দাবি করে ওসি জানান, আশেপাশের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে ডাকাত দলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



/এনএস/

লাইভ

টপ