ঋণের বোঝা বইতে না পেরে যুবকের আত্মহত্যা

Send
গাজীপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৩:৪৮, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৫১, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০

ঋণের বোঝা বইতে না পেরে টঙ্গীতে মামুন (২৫) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সে জামালপুর জেলার নান্দিনা গ্রামের মৃত আবু বকর সিদ্দিকের ছেলে। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টায় টঙ্গীর মধ্য আরিচপুর এলাকার আবুল হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাহিদুল ইসলাম লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মামুনের পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে উপপরিদর্শক রাজিব হোসেন জানান, মামুন তার স্ত্রী শারমিন আক্তার ও দুই সন্তানসহ টঙ্গীর মধ্য আরিচপুর এলাকার আবুল হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তার স্ত্রী একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। মামুন কোনও কাজ না পেয়ে দীর্ঘদিন ধরে হতাশায় ভুগছিলেন। অভাবের কারণে সে স্থানীয়দের কাছ থেকে ধার-দেনা করেন। এসব ধার-দেনা পরিশোধ করতে ও নিজের সংসার চালাতে মামুন স্ত্রীর নামে কয়েকটি বেসরকারি সংস্থাসহ (এনজিও) বিভিন্ন ব্যক্তির থেকে চড়া সুদে ঋণ নেন। এভাবে তিনি কমপক্ষে কয়েক লাখ টাকা ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েন। বেশ কিছুদিন ধরেই সুদসহ কিস্তি পরিশোধ করতে পারছিলেন না তিনি। পাওনাদারেরা বিভিন্ন সময়ে তার বাড়িতে গিয়েও হানা দিতেন।

এ অবস্থায় মঙ্গলবার সকালে স্ত্রীর সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। পরে স্ত্রী কারখানায় কাজে চলে গেলে ঘরের সিলিংয়ের সঙ্গে রশি বেঁধে তাতে ঝুলে পড়েন মামুন।

উপপরিদর্শক রাজিব হোসেন বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অতিরিক্ত ঋণের বোঝা সইতে না পেরেই ওই যুবক আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

/টিটি/

লাইভ

টপ