সোনা চোরাচালানের দায়ে দু’জনের যাবজ্জীবন

Send
যশোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:১১, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৩০, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০

যশোরে সোনা চোরাচালানের দায়ে এক নারীসহ দুই জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকালে জেলা জজ মো. ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিক এ রায় দেন।

দণ্ডিতরা হলো- যশোরের শার্শা উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের কাশেম আলীর স্ত্রী সফুরা খাতুন ও ভবেরবেড় গ্রামের ইব্রাহিম হোসেনের ছেলে ইস্রাফিল হোসেন।

জেলা জজ আদালতের পিপি ইদ্রিস আলী জানান, ২০১৮ সালের ১০ আগস্ট রাত পৌনে ৮টার দিকে আসামি সফুরা খাতুন ও ইস্রাফিল ভ্যানে বেনাপোলের পুটখালি সীমান্তের দিকে যাচ্ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির একটি টিম পুটখালি শিকড়ি বটতলা মোড়ে তাদের ভ্যানের গতিরোধ করে। এরপর তাদের দেহ তল্লাশি করে ১১টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। দুই কেজি ওজনের ওই সোনার বারের মূল্য প্রায় ৮৬ লাখ টাকা। এ ঘটনায় বিজিবির পক্ষ থেকে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করা হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে ওই বছরে ৯ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

পিপি ইদ্রিস আলী আরও জানান, দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়ায় আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক দুই আসামিকেই যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছেন। রায় ঘোষণা শেষে আসামিদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

/এআর/

লাইভ

টপ