সীমান্তে হত্যা বন্ধের প্রতিশ্রুতি বিএসএফের

Send
রাজশাহী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৫:০০, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৫:০১, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০

 

বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক

আগামীতে সীমান্ত হত্যা বন্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ। বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাজশাহীর সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ের পতাকা বৈঠকে এ প্রতিশ্রুতি দেয় বিএসএফ। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত রাজশাহীর পবা উপজেলার সোনাইকান্দি বিওপির ওপারে পদ্মার চরে এ বৈঠকের আয়োজন করে বিএসএফ।

বিজিবি জানায়, ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বহরমপুর সেক্টরের ডিআইজি কুনাল মজুমদারের নেতৃত্বে ৩৫ ব্যাটালিয়নের শীর্ষ কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। আর বিজিবির প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে ছিলেন রাজশাহী সেক্টরের কমান্ডার কর্নেল তুহিন মোহাম্মদ মাসুদ। বৈঠকে রাজশাহী অঞ্চলে বিএসএফের গুলিতে নিহতের ঘটনাগুলোর প্রতিবাদ জানায় বিজিবি।

রাজশাহী সেক্টরের কমান্ডার কর্নেল তুহিন মোহাম্মদ মাসুদ বলেন, বৈঠকে বিজিবির পক্ষ থেকে দুইটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উপস্থাপন করা হয়। একটি হলো সীমান্ত হত্যা এবং অপরটি অনুপ্রবেশ করে বাংলাদেশিদের ধরে নিয়ে যাওয়া। এছাড়া পতাকা বৈঠকে সীমান্ত সংক্রান্ত দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা হয়। গত ৩১ জানুয়ারি বিএসএফ সদস্যের অবৈধভাবে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে বিজিবি টহল দলের হেফাজতে থাকা বাংলাদেশি জেলেদের আটকের চেষ্টা এবং বিজিবি টহল দলের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের বিষয়ে আলোচনা হয়। এ ব্যাপারে বিএসএফ কর্তৃক ভবিষ্যতে অনুরূপ ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না বলে বিজিবি প্রতিনিধিদলকে আশ্বস্ত করা হয়।

এদিকে বিজিবির এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সীমান্ত হত্যা-নির্যাতন, মাদকদ্রব্য পাচার  রোধ, উভয়দেশের রাখাল কর্তৃক অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে গবাদিপশু চরানো, সীমান্তে কাঁটাতরের বেড়া কাটা, সীমান্তে গুলিবর্ষণ না করা, চোরাচালান, অবৈধ অস্ত্র-গোলাবারুদ ও বিস্ফোরক দ্রব্য পাচার প্রতিরোধ, নারী-শিশু ও মানব পাচার প্রতিরোধ, অবৈধ সীমান্ত পারাপার বন্ধে নিচ্ছিদ্র সীমান্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা, সমন্বিত টহল ইত্যাদি সম্পর্কে অত্যন্ত ফলপ্রসূ আলোচনা হয়। দুই পক্ষই বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত চুক্তির আলোকে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে যেকোনও সমস্যা সমাধানে একমত হন।

/এমআর/

লাইভ

টপ