বকশীগঞ্জে মারা যাওয়া বৃদ্ধা করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না

Send
জামালপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:৩২, মার্চ ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৪, মার্চ ২৬, ২০২০

জামালপুর

জামালপুরের বকশীগঞ্জের নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের উত্তর কুশলনগর গ্রামে ৮০ বছরের এক বৃদ্ধা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলে যে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে তা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। বুধবার (২৫ মার্চ) রাতে  ইইডিসিআর তার নমুনা পরীক্ষা করে জানিয়েছে, তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না। শ্বাসকষ্ট ও বয়সজনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে তার।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আ.স.ম. জামশেদ খোন্দকার ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতাপ নন্দী।

গত মঙ্গলবার (২৪ মার্চ ) সকাল ৭ টায় নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের উত্তর কুশলনগর গ্রামে নিজ বাড়িতে মারা যান ওই অশীতিপর বৃদ্ধা। তিনি মারা যাওয়ার পর এলাকায় করোনাভাইরাসে তার মৃত্যু হয়েছে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়েছিল।

ওই নারীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তিনি মৃত্যুর সময় শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। মৃত্যুর দুই দিন আগে শনিবার (২২ মার্চ ) ঢাকায় অবস্থানরত ছেলের বাসা থেকে বকশীগঞ্জের নিজ বাড়িতে ফেরেন ৮০ বছর বয়সী ওই নারী। সারাদেশে করোনা আতঙ্কের মধ্যে তার মৃত্যু হলে স্থানীয়দের মধ্যে ভীতির সৃষ্টি হয়। অনেকেই ওই নারীর মৃত্যুকে করোনা আক্রান্তের কারণে হয়েছে বলে ধারণা করতে থাকেন। বিষয়টি শোনার পর  স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি নিশ্চিত হতে তৎপর হয়। বৃদ্ধার মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হতে কিছু নমুনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা সংগ্রহের পর আইইডিসিআরে পাঠানো হয়।

বৃদ্ধা সকালে মারা গেলেও রাত ৯ টার দিকে জামালপুর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক, জেলা সিভিল সার্জন ডা. গৌতম রায়, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আ.স.ম. জামশেদ খোন্দকার, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. প্রতাপ নন্দী, বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাত্তারের উপস্থিতিতে ওই নারীর দাফন সম্পন্ন করা হয়। তবে স্থানীয়দের মধ্যে এক প্রকার অস্বস্তি থেকে যায়। অবশেষে বুধবার রাতে আইইডিসিআর থেকে বকশীগঞ্জ ইউএনওকে জানানো হয় যে, ওই বৃদ্ধা নারীর শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব ছিল না। তিনি শ্বাসকষ্টজনিত রোগে মারা গেছেন।

 

/টিএন/

লাইভ

টপ