করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন জেলায় ত্রাণ বিতরণ

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:২৩, মার্চ ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:২৯, মার্চ ২৮, ২০২০

বরিশালদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে সরকার। এই পরিস্থিতিতে বিপদে পড়েছেন নিম্ন আয়ের দিনমজুর শ্রমজীবী মানুষরা। এই পরিস্থিতিতে শনিবার (২৮ মার্চ) বিভিন্ন জেলায় সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। বিস্তারিত বাংলা ট্রিবিউন প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে।




বগুড়া প্রতিনিধি জানায়, বগুড়ায় কর্মহীন নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে বিনামূল্যে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে। শিবগঞ্জ পৌর এলাকায় এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ।


বগুড়া জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আজাহার আলী মণ্ডল জানান, জেলার ১০৮ ইউনিয়ন ও ১১ পৌরসভায় ২৮৯ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। প্রতি ইউনিয়নে দুই টন এবং বগুড়া সদর পৌরসভায় ১০ টন ও বাকি ১১ পৌরসভায় ৫ টন করে বরাদ্দ রয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি ইউনিয়নে ১০ হাজার করে মোট ১০ লাখ ৮০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। প্রতিজনকে ৫০০ টাকার প্যাকেজ করে খাবার দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। মোট ২৮ হাজার ১০০ জনকে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হবে।
বগুড়া জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ জানান, কোনও জনসমাগম না ঘটিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া হবে।

নীলফামারী প্রতিনিধি জানায়, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেখানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়েছে। পাশাপশি রিকশাচালক, ভ্যানচালকসহ নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে পৃথক দুটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন। বিকালে ‘করোনা ব্রিগেড’ নামের একটি সংগঠন পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মী, নীলফামারী জেনালের হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও সদর থানা পুলিশ সদস্যদের মাঝে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সাবান বিতরণ করে।
অপরদিকে, ‘করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের ক্ষুদ্র প্রয়াস নামে একটি সংগঠন জেলা শহরের কালিবাড়ি মোড়ে ত্রাণ বিতরণ করে। তারা ৫০ জন নিম্ন আয়ের মানুষকে ৩ কেজি চাল, ১ কেজি আলু, আধা কেজি ডাল, ১ লিটার তেল, আধা কেজি লবণ, একটি করে সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং ব্লিসিং পাউডার বিতরণ করেন।

ঝালকাঠিঝালকাঠি প্রতিনিধি জানায়, জেলার রাজাপুর ও নলছিটিতে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। দুপুরে রাজাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহাগ হাওলাদার এই ত্রাণ বিতরণের কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে ১৫ মেট্রিক টন চাল ও দেড় লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। দুপুরে সদর ইউনিয়ন ও মঠবাড়ি ইউনিয়নের দুই শতাধিক পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

অপরদিকে, বিকালে দরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন নলছিটি উপজেলার কুশঙ্গল ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন সিকদার। এসময় নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে চাল, ডাল ও আলু বিতরণ করা হয়।

মৌলভীবাজারমৌলভীবাজার প্রতিনিধি জানায়, দুপুরে মৌলভীবাজার পৌর জনমিলন কেন্দ্রের সামনে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন ১১০ জন মানুষের মধ্যে চাল, ডাল, আলু, তেলসহ ৬০০ টাকা মূল্যের ত্রাণ সামগ্রী দরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সেয়দা জোহরা আলাউদ্দিন, জেলা প্রশাসক বেগম নাজিয়া শিরিন।

বরিশাল প্রতিনিধি জানায়, হতদরিদ্র মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে প্রশাসন। বিকালে বরিশাল সদর, গৌরনদী, আগৈলঝাড়া, বাকেরগঞ্জ, বাবুগঞ্জ ও উজিরপুর উপজেলায় ২১২টি পরিবারের বাড়ি গিয়ে সরকারি খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেন স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা।
বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান বলেন, ‘বরিশাল জেলায় শনিবার পর্যন্ত ৩২১টি পরিবারের মাঝে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ৩ হাজার ২১০ কেজি চাল, ১ হাজার ৬০৫ কেজি আলু এবং ৬৪২ কেজি ডাল।’

/এনএস/

লাইভ

টপ