খুলনায় করোনাভাইরাস পরীক্ষা শুরু, তবে...

Send
খুলনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:৫৮, এপ্রিল ০৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫৮, এপ্রিল ০৭, ২০২০

খুলনায় করোনাভাইরাস পরীক্ষা শুরুখুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) থেকে শুরু হলো করোনাভাইরাস পরীক্ষা। সকালে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের তৃতীয় তলায় মাইক্রোবায়োলোজি বিভাগের ল্যাবে পলিমার চেইন রিঅ্যাকশন (পিসিআর) মেশিনের উদ্বোধন করেন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। তবে কর্মকর্তারা জানান, এখানকার ফলাফলের ভিত্তিতেই পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করা হবে না। পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্য ঢাকায় আইইডিসিআর (রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউ) -এ পাঠিয়ে নিশ্চিত হয়ে ফলাফল জানানো হবে।

 পিসিআর ল্যাব উদ্বোধনের সময় সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ মেশিনের মাধ্যমে এ অঞ্চলের মানুষের করোনা শনাক্ত ও চিকিৎসা পাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হলো। দেশের এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সব নির্দেশনা দিয়েছেন তা মেনে চলা এবং সরকারি নির্দেশনা মেনে সকলকে ঘরে অবস্থানের আহ্বান জানান তিনি।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, করোনা শনাক্তকরণ এ মেশিন দিয়ে একসাথে ৯৬টি নমুনা পরীক্ষা করে যাবে। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পরীক্ষা করা হবে। তবে যে কেউ চাইলে নিজে নিজে এসে পরীক্ষা করাতে পারবেন না। খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, খুলনা সদর হাসপাতাল এবং খুলনার ১০টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আলাদা ফ্লু কর্নার স্থাপন করা হয়েছে। ফ্লু কর্নারের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রোগীর লক্ষণ ও উপসর্গ দেখে যাদের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করা প্রয়োজন বলে মনে করবেন, শুধুমাত্র তাদেরই নমুনা পিসিআর মেশিনে পরীক্ষা করা হবে।

তিনি আরও জানান, পিসিআর মেশিনে চার ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার ফলাফল জানা যাবে। তবে এখানকার ফলাফলের ভিত্তিতেই পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করা হবে না। পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্য দ্রুত সময়ে ঢাকায় আইইডিসিআর (রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউ) -এ পাঠিয়ে  নিশ্চিত হয়ে ফলাফল জানানো হবে। করোনা ভাইরাস পরীক্ষার পর যারা পজিটিভ শনাক্ত হবেন তাদের করোনা বিশেষায়িত হাসপাতাল হিসেবে প্রস্তুত করা খুলনা ডায়াবেটিক হাসপাতালে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হবে।

পিসিআর মেশিন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, খুলনা স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডা. রাশেদা সুলতানা ও খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. আব্দুল আহাদ, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ফজলুর রহমান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ, সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহম্মেদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খুলনার করোনা ইউনিটের চিকিৎসক ডা. তুষার আলম বলেন, প্রথমে ১৬টি স্যাম্পল নিয়ে পরীক্ষা শুরু করা হয়েছে। আরও কিছু স্যাম্পল পরীক্ষার জন্য এখানে জমা হয়েছে। তিনি বলেন, সরকারের সিদ্ধান্তের কারণে খুলনার পরীক্ষার ফলাফল ঢাকা থেকে চূড়ান্ত করার পর জানানো হবে।      

 

/এফএস/

লাইভ

টপ