অধিক মুসল্লি নিয়ে জামাত, ইমামসহ পাঁচ জনকে জরিমানা

Send
বান্দরবান প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১১:৩২, এপ্রিল ১০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩২, এপ্রিল ১০, ২০২০

বান্দরবানবান্দরবানে পাঁচ জনের বেশি মুসল্লি নিয়ে নামাজ আদায় করায় ইমামসহ পাঁচজনের কাছ থেকে ছয় হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার জেলা সদরের লাল মোহন বাহাদুর জামে মসজিদে এই ঘটনা ঘটে।

মসজিদের মুসল্লিরা জানান,  প্রথমে তিন জন মুসল্লি ইমামের পেছনে জোহরের নামাজে জামাতে দাঁড়ান। পরে পেছনে আরও কয়েকজন জামাতে শরিক হন। নামাজ শেষ করার সঙ্গে সঙ্গে হঠাৎ জেলা প্রশাসক দাউদুল ইসলাম মসজিদে প্রবেশ করেন। তিনি ইমাম সাহেবের কাছে এত ব্যক্তি নিয়ে নামাজ পড়ার কারণ জানতে চান। পরে জেলা প্রশাসক উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ডেকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জরিমানা আদায় করার নির্দেশ দেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. হাবিবুল হাসান মসজিদের ইমাম মো. আব্দুল খালেককে দুই হাজার টাকা এবং চার মুসল্লির প্রত্যেকের কাছ থেকে এক হাজার করে চার হাজার, সর্বমোট ছয় হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

এব্যাপারে মসজিদের ইমাম মওলানা আব্দুল খালেক বলেন, ‘আমি নামাজ শুরু করার সময় আমার পেছনে মাত্র তিন জন মুসল্লি ছিলেন। জামাত চলার সময়ে আরও ৩/৪ জন মুসল্লি অংশ নেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘সরকারিভাবে নির্দেশনা আসার পর আমি বিষয়টি মসজিদের মাইকের মাধ্যমে এলাকায় প্রচার করি। আমি ইমামতি করার সময় আমার অগোচরে এবং পেছনে যদি কোনও মুসল্লি দাঁড়িয়ে যায় তখন আমার করার কী থাকে? কিন্তু জেলা প্রশাসক আমার এসব কথা শোনারও চেষ্টা করেননি।’

এব্যাপারে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. হাবিবুল হাসান জানান, সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে ১০ থেকে ১২ জন মুসল্লি নিয়ে নামাজ পড়ছিলেন মসজিদের ইমাম। আইন অমান্য করে পাঁচ জনের অধিক লোক নিয়ে নামাজ পড়ার অপরাধে ইমামকে দুই হাজার এবং চার মুসল্লির প্রত্যেককে এক হাজার করে চার হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

 

/এফএস/

লাইভ

টপ