চাল চুরির অভিযোগে ডিলারশিপ বাতিল

Send
খুলনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:২৬, মে ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৬, মে ১৭, ২০২০

চাল চুরি



খুলনার তেরখাদা উপজেলায় ওএমএস’র চাল চুরির অভিযোগে বারাসাত ইউনিয়নের ডিলার শহীদুলের ডিলারশিপ বাতিল করেছে উপজেলা প্রশাসন। এ ঘটনার পর ডিলার পলাতক রয়েছেন। ডিলার শহীদুলের স্ত্রীর দাবি, তার স্বামী ষড়যস্ত্রের শিকার।

তেরখাদা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা বিষ্ণুপদ পাল জানান, চাল আত্মসাতের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ১৬ মে শহীদুলের ডিলারশিপ বাতিল করা হয়েছে।
এ বিষয়ে জানতে ডিলার শহীদুলের মোবাইলে ফোন দিলে তা রিসিভ করেন তার স্ত্রী মাসুদা বেগম। তিনি বলেন, স্থানীয়ভাবে তার স্বামী ষড়যন্ত্রের শিকার। তিনি আদৌ চাল চুরির এ ধরনের ঘটনায় জড়িত নন।
কাটেঙ্গা গ্রামের কার্ডধারী আজি খা জানান, ‘জানতে পারি আমার পরিবারে ৩টি কার্ড আছে। কিন্ত আমি জানি আমার পরিবারে মাত্র একটি কার্ড আছে। তিনি বলেন আমাকে শুধু এক মাস চাল দেয়।’
নিয়ামুল নামে আরেকজন বলেন,  ‘আমি কোনোদিন চাল পাইনি।’

একইভাবে সবুর বিশ্বাস, শিখা বেগম, কুব্বাত মোল্যা, দীন ইসলামসহ অনেকেরই চাউল ডিলার শহীদুল আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, শতাধিক কার্ডধারীকে না জানিয়ে তাদের স্বাক্ষর/টিপসহি জাল করে চাল আত্মসাৎ করেছেন শহীদুল। প্রতি ডিলারদের তদারকি করতে একজন ট্যাগ অফিসার নিয়োগ করা হলেও তারা নামমাত্র দায়িত্ব পালন করেন। সম্প্রতি সরকারের একটি গোয়েন্দা সংস্থা ডিলারদের চাল চুরির ঘটনা জানতে পেরে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভুক্তভোগীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেন। গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্ট প্রমাণিত হওয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গত ১৬ মে লিখিতভাবে শহীদুল ইসলামের ডিলারশিপ বাতিল করেন। 

 

/এসটি/

লাইভ

টপ