ঈদে বাড়ি যেতে চাওয়ায় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

Send
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:৫০, মে ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৫৫, মে ২২, ২০২০

ঝালকাঠিতে ঈদে বাবার বাড়ি যেতে চাওয়ায় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় নিজ ঘর থেকে গৃহবধূ রুনা লায়লার (২৬) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) বিকাল সাড়ে ৫টায় রাজাপুরে উপজেলার শুক্তাগড় এলাকার নারিকেল বাড়িয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। রাজাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহিদ হোসেন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রুনা লায়লা উপজেলার শুক্তাগড় ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. কুদ্দুস হোসেনের স্ত্রী এবং মঠবাড়ি ইউনিয়নের ডহশংকর এলাকার নুর হোসেন গাজীর মেয়ে।

রুনা লায়লার মা কুলসুম বেগম হত্যা অভিযোগ তুলে বলেন, ‘গরীব বলে কুদ্দুসকে টাকা-পয়সা দিতে না পারায় প্রায়ই মেয়েকে মারধর করা হতো। বাড়িতে আসতে দিতো না। ঘটনার দিন রুনা লায়লার সঙ্গে কুদ্দুসের ঝগড়া হয়। পরে রুনা লায়লা আমাদের বাড়ি আসতে চাইলে তাকে হত্যা করা হয়। আমার হত্যার বিচার চাই।’

শুক্তগড় ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম লালু মৃধা বলেন, ‘কুদ্দুছের স্ত্রীর শরীরে কোনও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে কুদ্দুছের বাড়ির পাশের দুই মহিলা আমার কাছে বলেছে তার স্ত্রী রুনা লায়লাকে প্রায়ই মারধর করত। তাকে মেরেও ঝুলিয়ে রাখা হতে পারে। আবার মারধরের শিকার হয়ে আত্মহত্যাও করতে পারে।’

ওসি মো. জাহিদ হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে বিষয়টি হত্যা নাকি আত্মহত্যা এই ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

/এনএস/

লাইভ

টপ