নোয়াখালীতে করোনার উপসর্গ নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু

Send
নোয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৬:২৯, মে ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৩১, মে ২৯, ২০২০

নোয়াখালীনোয়াখালীতে করোনার উপসর্গ নিয়ে সোনাইমুড়ী ২ জন, বেগমগঞ্জে এক জন ও সুবর্ণচরে এক জনসহ মোট চার জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা উপসর্গ থাকায় তাদের বাড়িগুলো লকডাউন ঘোষণা করে পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
সোনাইমুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. রিয়াজ উদ্দিন, বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার দাস ও সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শায়লা সুলতানা ঝুমা বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
সোনাইমুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) রিয়াজ উদ্দিন বলেন, বৃহস্পতিবার (২৮ মে) সকাল ৭টার দিকে সোনাইমুড়ী পৌরসভার কাঁঠালিয়া এলাকার একজন নিজ বাড়িতে মারা যান। তিনি গত ৫/৬দিন ধরে জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। মৃত্যুর খবর দেরিতে শুনার কারণে তার নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। তবে তার পরিবারের ৫ সদস্যের শরীর থেকে নমুনা নেওয়া হয়েছে। তাদের বাড়ি লকডাউন করে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া, উপজেলার অম্বরনগর এলাকার এক ব্যক্তি গত কয়েকদিন ধরে শ্বাসকষ্ট ভুগছিলেন। বুধবার বেলা ১১টার দিকে নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি। মৃত ব্যক্তির শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তার পরিবারের লোকজন হোম কোয়ারেন্টিনে আছে।
বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার দাস বলেন, উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের আলীপুর গ্রামে এক নারী সন্ধ্যা ৭ টায় মারা যান। তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তার বাড়ি লকডাউন করে পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।
সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শায়লা সুলতানা ঝুমা বলেন, উপজেলার চরক্লার্ক ইউনিয়নের এক ব্যক্তি দুপুরে মারা যান। দেরিতে খবর পাওয়ায় নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। তবে পরিবারের সদস্যদের করোনা উপসর্গ থাকায় তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

/এমআর/

লাইভ

টপ