গরুচোর সন্দেহে পিটিয়ে খুন, ৬ দিন পর লাশ ফেরত দিলো বিএসএফ

Send
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১২:২৩, মে ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:২৬, মে ৩০, ২০২০

লোকমান হোসেনভারতে গরুচোর সন্দেহে এক বাংলাদেশিকে পিটিয়ে হত্যার ছয় দিন পর তার মরদেহ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বিজিবি-র উপস্থিতিতে লোকমান হোসেন (৩২) নামের ওই ব্যক্তির মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ মে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতের মোহন এলাকায় ফুফুর বাড়ি যাচ্ছিলেন হবিগঞ্জর বাসিন্দা লোকমান হোসেন। পথে ত্রিপুরা রাজ্যের গোপালনগর এলাকায় এক দল ভারতীয় নাগরিক তাকে গরুচোর আখ্যা দিয়ে বেধড়ক মারধরের পর একটি জঙ্গলে ফেলে চলে যায়। খবর পেয়ে ত্রিপুরা রাজ্যের সিধাই থানা পুলিশ তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ সময় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত লোকমান জেলার মাধবপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী ধর্মঘর ইউনিয়নের মালঞ্চপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হাসিমের ছেলে।

লোকমানের লাশ ফিরিয়ে আনতে বুধবার বিকালে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী মোহনপুরে বিজিবি-বিএসএফ এর পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিএসএফ এর ১২০ ব্যাটালিয়নের মোহনপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ইন্সপেক্টর শশি কান্ত। বাংলাদেশের পক্ষে নেত্বত্ব দেন ৫৫ বিজিবি-র ধর্মঘর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেন।

ওই বৈঠকে বিজিবি ময়নাতদন্ত রিপোর্ট ছাড়া লাশ হাস্তান্তরে অনীহা প্রকাশ করলে কোনও সমাধান ছাড়াই বৈঠক শেষ হয়। পরে শুক্রবার সন্ধ্যায় ফের পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে ভারতীয় পুলিশ ময়নাতদন্ত রিপোর্টসহ বিজিবি-র  উপস্থিতে কাশিমনগর পুলিশের কাছে লাশ হস্তান্তর করে।

বিজিবি-র ৫৫ ব্যাটালিয়ানের সহকারী পরিচালক নাসির উদ্দিন লাশ হস্তান্তরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

/এমপি/

লাইভ

টপ