চৌগাছায় কৃষকের লাশ উদ্ধার, পরিবারের অভিযোগ তুলে নিয়ে হত্যা

Send
যশোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:৩৬, জুন ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৪৭, জুন ০৫, ২০২০

যশোরযশোরের চৌগাছা উপজেলার মুলিখালি এলাকা থেকে বিপুল হোসেন (৪০) নামে এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজের দুই দিন পর শুক্রবার (৫ জুন) বেলা ১১টার দিকে তার বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়। বিপুল হোসেন উপজেলার স্বরূপদাহ ইউনিয়নের বড় কাকুড়িয়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মৃত শামসুল হোসেনের ছেলে। একই এলাকার রফিকুল ইসলাম তাকে তুলে নিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেছে পরিবার। পুলিশের ধারণা, পূর্ব বিরোধের জেরে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি শিমুল হোসেন ও নিহতের ভাই লিটন হোসেন বলেন, 'গত বুধবার সকাল ১০টার দিকে কাকুড়িয়া এলাকার আবু সামার মেয়ের জামাই রফিকুল ইসলাম গরু কেনার নাম করে বিপুলকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায়। এর পর থেকে বিপুলের মোবাইলে রিং বাজলেও কেউ ফোন ধরেনি। বিপুলের খোঁজ না পেয়ে রফিকুলের কাছে গেলে তিনি জানান, সে হয়তো গরু কিনতে পুড়াপাড়ার বাজারে গেছে। রাতেও বাড়ি না ফিরলে আবারও স্বজনরা রফিকুলের কাছে যায়, কিন্তু সে বলে বিপুল হয়তো চৌগাছায় আছে। এরপর চৌগাছা থানায় গিয়ে নিহতের ভাই লিটন হোসেন বাদী হয়ে রফিকুলের বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগে সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে শুক্রবার ভোরে একটি অজ্ঞাত মোবাইল নম্বর থেকে কল দিয়ে নিহতের শ্বশুর আমজাদ হোসেনকে বলা হয়, তোমার জামাইয়ের লাশ বেড়গোবিন্দপুর বাওড়ের পাশে রাস্তায় বস্তাবন্দি অবস্থায় পড়ে রয়েছে।'

চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিফাত খান রাজীব জানান, গত বুধবার বেলা ১১টার দিকে রফিকুল নামে একজন বিপুল হোসেনকে গরু কেনার নাম করে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। বিপুলের ভাইয়ের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে তার খোঁজ শুরু করা হয়। এরপর আজ সকালে স্থানীয়দের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বেড়গোবিন্দপুর বাওড় সংলগ্ন মুলিখালি এলাকা থেকে বিপুলের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

তিনি বলেন, 'প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।'

/আইএ/

লাইভ

টপ