মাদক ব্যবসা নিয়ে দ্বন্দ্বেই সহযোগীরা হত্যা করে লালনকে

Send
মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৯:১১, জুন ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১১, জুন ২৯, ২০২০

লালন দেওয়ান



মানিকগঞ্জের সিংগাইরে আমির হোসেন ওরফে লালন দেওয়ান খুনের ঘটনায় পুলিশ আলী হোসেন নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে। রবিবার (২৮ জুন) আলী হোসেন খুনের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নজরুল ইসলাম জানান, মাদক ব্যবসা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে লালনকে তার সহযোগীরা অপহরণের পর পিটিয়ে হত্যা করে পাট ক্ষেতে লাশ ফেলে রেখে যায়।

লালন দেওয়ান সাভার হেমায়েতপুর এলাকার ব্রিটেনিয়া গার্মেন্টস প্যাকেজিং ফ্যাক্টরিতে চাকরি করতেন।

আসামির জবানবন্দির বরাত দিয়ে এসআই জানান,  খুনের আগে শুক্রবার সকালের দিকে মাইক্রোবাসে করে লালনকে তার বাড়ির সামনের রাস্তা থেকে তুলে আনা হয়। পরে সিংগাইরের নির্জন স্থানে নিয়ে আলী হোসেনসহ ৭-৮ জন ওই কিলিং মিশনে অংশ
নেয়। রাতের বেলায় তাকে হত্যার পর লাশটি উপজেলার বলধারা ইউনিয়নের খোয়ামুড়ি গ্রামের আবুল হোসেনের পাট ক্ষেতে ফেলে রেখে যায়।
লালনের স্ত্রী মমতাজ বেগম জানান, কয়েকদিন আগে প্রতিবেশী মাদক ব্যবসায়ী উজ্জ্বলের বেশ কিছু ইয়াবা খোয়া যাওয়ায় ঘটনায় তার স্বামীকে সন্দেহ করে মেরে ফেলার হুমকি দিত। ওই সময় বিষয়টি নিয়ে পৌর মেয়রের কাছে বিচার দিয়েছিলেন।

এসআই নজরুল ইসলাম জানান, মামলার বাকি আসামিদের ধরতে তারা অভিযান অব্যাহত রেখেছেন।

 

/এসটি/

লাইভ

টপ