চার জেলায় পাঁচ শিশুর পানিতে ডুবে মৃত্যু

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৩:০৬, জুলাই ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:১১, জুলাই ০৫, ২০২০

 

চার জেলায় পাঁচ শিশু পানিতে ডুবে মারা গেছে। গাজীপুরে বন্ধুদের সঙ্গে নদীতে গোসল করতে গিয়ে স্কুল ছাত্র, চাঁপাইনবাবগঞ্জেও দুই স্কুল ছাত্র, দিনাজপুরে একটি ১০ বছরের মেয়ে ও জয়পুরহাটে দেড় বছরের শিশুর সলিল সমাধি হয়েছে। শনিবার তাদের মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।

গাজীপুর প্রতিনিধি জানান, গাজীপুরের কালিয়াকৈরে গাজীখালী  নদীতে গোসল করতে গিয়ে স্কুল ছাত্র তায়েব হোসেন মন্ডল (১০) ডুবে মারা গেছে। সে ঢাকার আশুলিয়ার সীমান্ত এলাকার বাইদগাঁও গ্রামের শোয়েব মন্ডলের ছেলে। তায়েব স্থানীয় বাইদগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ছিল। শুক্রবার সন্ধ্যায় নিখোঁজের প্রায় ৩০ ঘণ্টা পর আশুলিয়ার কাশচর এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা।

কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা কবিরুল আলম জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে তায়েব বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ির পার্শ্ববর্তী কালিয়াকৈর উপজেলার দরবাড়িয়া এলাকায় গাজীখালী নদীতে গোসল করতে যায়। এসময় স্রোত থাকায় নদীতে নামার পর পানিতে ডুবে গিয়ে নিখোঁজ হয়। তার বন্ধুরা দীর্ঘক্ষণ খোঁজাখুঁজি করে তার সন্ধান পায়নি। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দু’টি ইউনিট ও টঙ্গী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে যায়। নিখোঁজের প্রায় ৩০ ঘণ্টা পর শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে ভাটিতে আশুলিয়ার কাশচর এলাকা থেকে তায়েবের লাশ উদ্ধার করে ডুবুরিরা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, জেলার পাগলা নদীতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার (৪ জুলাই) দুপুরে পাগলা নদীর কালুপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিবগঞ্জ থানার ওসি শামসুল আলম শাহ।

নিহত ওই দুই শিশু উপজেলার সেলিমাবাদ এলাকার সুমন খানের ছেলে ইসান খান (১৩) এবং একই এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে সামিউল (১৩)। 

ওসি জানান,‘শনিবার দুপুর দুইটার দিকে ইসান ও সামিউলসহ আরও কয়েকজন বন্ধু মিলে পাগলা নদীতে গোসল করতে যায়। এ সময় ইসান পানিতে ডুবে যায়। একই সময় সামিউলকেও দেখতে  না পেয়ে অপর বন্ধুরা চিৎকার শুরু করে। পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ৩ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে সন্ধ্যায় ইসান ও সামিউলের মরদেহ পানি থেকে উদ্ধার করে।’

ওসি আরও জানান,‘ পরিবারের অনুরোধে পরে দু’জনেরই মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।  

দিনাজপুর প্রতিনিধি জানান, দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে বাড়ির পাশে খালের পানিতে  ডুবে রোকসানা পারভীন (১০) নামে এক শিশুর মত্যু হয়েছে।

শনিবার দুপুর ২টার দিক চিরিরবন্দর উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের বালাপাড়া গ্রামের গুড়িয়া পাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রোকসানা নশরতপুর ইউনিয়নের বালাপাড়া গ্রামের গুড়িয়া পাড়ার মকবুল হোসেনের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানান, ওই সময় শিশু রোকসানা অন্যান্য শিশুদের সঙ্গে বাড়ির উঠানে খেলতে খেলতে বাড়ির পাশে পানি ভর্তি একটি গর্তে পা পিছলে পড়ে যায়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার মরদেহ ওই খালের পানিতে ভেসে ওঠে।

চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার জানান, বর্ষা মৌসুমের কারণে খালে পানি বেশি থাকায় সে পানিতে তলিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে খাল থেকে শিশুটির ভাসমান মরদেহ উদ্ধার হয়।

এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

জয়পুরহাট প্রতিনিধি জানান, জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে পুকুরে ডুবে ইমরান হোসেন রাফি নামে দেড় বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে নয়টায় উপজেলার চুকাইবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ইমরান ওই গ্রামের গোলাম রসুলের ছোট ছেলে।

পরিবার ও গ্রামাবাসী জানায়,সকালে বাড়ির ওঠানে খেলাধুলা করার সময় পাশের পুকুরে পড়ে যায়। অনেক পরে তার মরদেহ পুকুরে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়। 

/টিএন/

লাইভ

টপ