রিজেন্ট সাহেদের কঠিন শাস্তি চায় সাতক্ষীরাবাসী

Send
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:০৮, জুলাই ১০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:১৫, জুলাই ১০, ২০২০




কামালনগরে ছিল সাহেদ পরিবারের মালিকানাধীন করিম মার্কেটকরোনাকালে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে লাখো-কোটি টাকা অনৈতিকভাবে আয় করার ঘটনায় মো. সাহেদ করিম ওরফে রিজেন্ট সাহেদের শাস্তি দাবি করেছে তার জন্মস্থান সাতক্ষীরার বাসিন্দারা। সাহেদের প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ডের দায় নিতে রাজি নন তারা। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি জেলা আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরাও সাহেদের অপকর্মের শাস্তি দাবি করেছেন।

জানা যায়, সাহেদের বাড়ি সাতক্ষীরা হলেও এ এলাকার লোকজন তাকে কম চিনতো। এসএসসির পর থেকেই সাহেদ ঢাকায় থাকতো, সাতক্ষীরায় আসতো কম। জেলার মানুষ তার বিষয়ে তেমন কিছুই জানতো না। টেলিভিশন টকশোতে তাকে দেখলেও নিজ জেলার মানুষ হিসেবে সাতক্ষীরার অনেকেই তাকে চিনতো না। তবে বাবা সিরাজুল করিম ও মা সাফিয়া করিম সাহেদের অনৈতিক কর্মকাণ্ড ও তার বিরুদ্ধে মামলার পাহাড় নিয়ে চিন্তিত ছিলেন। পরে তার মা মারা যাওয়ার পর বাবা সিরাজুল করিম শহরের প্রাণকেন্দ্র কামালনগরের করিম সুপার মার্কেট ও তাদের বসতভিটা ছিল বিক্রি করে স্থায়ীভাবে ঢাকায় চলে যান।

শহরের কামালনগরে বিক্রি হয়ে যাওয়া সাহেদের পুরোনো বাড়িএদিকে করোনা দুর্যোগের সময় অনিয়ম-দুর্নীতির মাধ্যমে সাধারণ মানুষের টাকা লুটপাটের ঘটনায় সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম সাহেদের কঠিন শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, স্বাস্থ্যসেবার নামে সাহেদ যেভাবে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে, তা লজ্জাজনক। আইনের সর্বোচ্চ প্রয়োগের মাধ্যমে এ ধরনের প্রতারকের শাস্তি হওয়া উচিত।

এদিকে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. ফাহিমুল কিসুল সাহেদের শাস্তি দাবি জানিয়ে বলেন, সাহেদ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। মানুষকে জিম্মি করে কোটি কোটি টাকা লুটপাট করেছে। স্বাস্থ্যসেবা ধ্বংস করে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

 

/টিটি/

লাইভ

টপ