সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি ফের বিপদসীমার ওপরে

Send
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:১৪, জুলাই ১৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:২৫, জুলাই ১৩, ২০২০

সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি বিপদ সীমার ওপরেউজানের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি ফের বিপদসীমা অতিক্রম করেছে। পানি গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ সেন্টিমিটার বেড়ে সোমবার (১৩ জুলাই) সকাল ৬টায় সিরাজগঞ্জ জেলা পয়েন্টে বিপদ সীমার ৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অপরদিকে, জেলার কাজিপুর উপজেলা পয়েন্টে যমুনার পানি ২৪ ঘণ্টায় ২০ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপদসীমার ২৬ সেন্টিমিটার ওপরে রয়েছে।

সিরাজগঞ্জের পাউবোর পরিচালন ও রক্ষণাবেক্ষণ (পওর) শাখার উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (এসডি) এ কে এম রফিকুল ইসলাম বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের বরাত দিয়ে সোমবার সকালে জানান, যমুনায় আগামী ৭২ ঘণ্টায় পানি বাড়তে পারে।

এদিকে, দ্বিতীয় দফায় যমুনার পানি বিপদসীমা অতিক্রম করায় জেলার সদর, কাজিপুর, শাহজাদপুর, বেলকুচি ও চৌহালী উপজেলার অভ্যন্তরীণ নদ-নদী ও শাখাগুলোতে পানি বাড়তে শুরু করেছে। সেইসঙ্গে যমুনা তীরবর্তী অঞ্চলও প্লাবিত হচ্ছে। দ্বিতীয় দফা পানি বাড়ার পাশাপাশি স্থায়ী বন্যার প্রকোপের আশঙ্কায় আতঙ্কের মধ্যে পড়েছেন নদী পাড়ের অসহায় মানুষ। অনেকেই আশেপাশের বাঁধে ও উঁচুস্থানে আশ্রয়ের পরিকল্পনা করছেন। স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, এর মধ্যে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম সোমবার সকালে জানান, প্রথম দফা বন্যায় প্রায় ৩৪ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছিলেন। দ্বিতীয় দফার হিসাব এখনও হাতে এসে পৌঁছায়নি। দুই-এক দিনের মধ্যে স্ব স্ব উপজেলা নির্বাহী অফিস থেকে তথ্য সংগ্রহ করা

হবে। ৪শ' মেট্রিক টন ক্ষয়রাতি চাল এবং নগদ চার লাখ টাকা এই মুহূর্তে ভাণ্ডারে রয়েছে। জেলার বন্যাকবলিত ও ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে তা পর্যায়ক্রমে বরাদ্দ দেওয়া হবে।

/আইএ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ