বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচনবিজয়ী ছাড়া বাকি সব প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:২৮, জুলাই ১৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৩, জুলাই ১৫, ২০২০

বগুড়া-১ আসনে উপনির্বাচন

বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনের উপনির্বাচনে পাঁচ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হচ্ছে। তারা মোট সংগৃহীত ভোটের এক অষ্টমাংশ না পাওয়ায় তাদের জামানতের টাকা ফেরত পাবেন না।

রিটার্নিং অফিসার ও সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ্ এ তথ্য দিয়েছেন।

জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়া প্রার্থীরা হলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী (ট্রাক) ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ, জাতীয় পার্টির মোকছেদুল আলম (লাঙ্গল), ভোট বর্জনকারী বিএনপির একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির (ধানের শীষ), বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের নজরুল ইসলাম (বটগাছ) ও বাংলাদেশ প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের মো. রনি (বাঘ)।

নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বগুড়া-১ শূন্য আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ১২৩টি কেন্দ্রে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতহীনভাবে ভোট গ্রহণ করা হয়। এক লাখ ৪৫ হাজার ২৯৫ ভোট পেয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাহাদারা মান্নান শিল্পী এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। এ আসনে মোট ভোটার তিন লাখ ৩০ হাজার ৯১৮ জন। মোট বৈধ ভোট পড়েছে, এক লাখ ৪৯ হাজার ৪৩১ ভোট। বাতিল হয়েছে, এক হাজার ৩১৫ ভোট। ভোট গ্রহণের হার ৪৫.৫৭ শতাংশ।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ পেয়েছেন এক হাজার ৫৬৩ ভোট, জাতীয় পার্টির মোকছেদুল আলম পেয়েছেন এক হাজার ২৫১ ভোট, বিএনপির একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির পেয়েছেন ৬৬৪ ভোট, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের নজরুল ইসলাম পেয়েছেন ৪৭৪ ভোট এবং বাংলাদেশ প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের মো. রনি পেয়েছেন ১৮৪ ভোট।

রিটার্নিং অফিসার ও সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ্ জানান, নির্বাচিত সাহাদারা মান্নান ছাড়া প্রতিদ্বন্দ্বী পাঁচ প্রার্থী এক অষ্টমাংশ ভোট পেতে ব্যর্থ হয়েছেন। তাই তাদের মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দেওয়া জামানতের ২০ হাজার টাকা বাজেয়াপ্ত হবে। 

/টিএন/

লাইভ

টপ