নদীতে ডুবে মা-ছেলে, পুকুরে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

Send
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:৪১, আগস্ট ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৪৩, আগস্ট ০৬, ২০২০

পানিতে ডুবে গেছে শিশু

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে মা-ছেলেসহ তিনজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।  বুধবার (৫ আগস্ট) বিকালে উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের সোনাতলা সাহেবনগর এলাকায় পদ্মা নদীতে ডুবে মা-ছেলে ও একই উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের পাকুড়িয়া গ্রামে পানিতে ডুবে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু হয়।

নদীতে ডুবে মৃতরা হলেন দৌলতপুর উপজেলার মথরাপুর গ্রামের আজিবুলের স্ত্রী সেলিনা খাতুন (৩০) ও তার বড় ছেলে সিয়াম (১১)। এ ঘটনায় নৌকায় থাকা সেলিনার বাবা রসুল মন্ডল (৬২) ও সেলিনার ছোট ছেলে সাগর (৯) প্রাণে বেঁচে যান।

স্থানীয় রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সিরাজ মন্ডল জানান, ছোট ডিঙি নৌকায় চড়ে চারজন চানমন্ডল পাড়া এলাকা যাওয়ার সময় তীব্র স্রোতে ছোট ডিঙি নৌকাটি ডুবে যায়। এসময় সেলিনা খাতুনের বাবা রসুল মন্ডল তার নাতি সাগরকে নিয়ে সাঁতরে তীরে উঠলেও পানিতে ডুবে মারা যান সেলিনা খাতুন ও তার বড় ছেলে সিয়াম। পরে স্থানীয়রা নদী থেকে তাদের দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে।

পুকুরে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পানিতে ডুবে তামান্না (১০) নামে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (৫ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের পাকুড়িয়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

স্কুলছাত্রী তামান্না আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের ধর্মদহ গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে এবং ধর্মদহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী।

স্থানীয়রা ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মো. আসলাম উদ্দিন জানান, তামান্না পাকুড়িয়া গ্রামে নানা বাড়িতে বেড়াতে এসে বাড়ির পাশের পুকুরে গোসল করতে নামে। সাঁতার না জানার কারণে তামান্না পানিতে ডুবে যায়। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তামান্নাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

/টিএন/

লাইভ

টপ