নেত্রকোনায় ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৮

Send
ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:৫৬, আগস্ট ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩৭, আগস্ট ০৬, ২০২০





নেত্রকোনার মদনে ট্রলারডুবির ঘটনায় নিখোঁজ ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) সকালে রাজালিকান্দার ইউসুফ আহমেদের বাড়ির পেছন দিকে মরদেহটি ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে মাদ্রাসা শিক্ষক হাফেজ রাকিবুল ইসলামের (২৫) মরদেহ উদ্ধার করা হয়। রাকিবুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ।

তিনি জানান, স্থানীয়রা গোবিন্দশ্রী হাওরে মরদেহ ভাসতে দেখে খবর পেয়ে হাফেজ রাকিবুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। লাশ দাফন কাজ সম্পন্ন করার জন্য নগদ সাত হাজার টাকা পরিবারের হাতে তুলে দেওয়াসহ মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। মরদেহ নিয়ে পরিবারের লোকজন ময়মনসিংহ সদরের কোনা পাড়া গ্রামের উদ্দেশে রওনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এরআগে, বুধবার দুপুরে ময়মনসিংহ থেকে ঘুরতে আসা নানা বয়সের মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও পরিবারের লোকজনসহ ৪৮ জন পর্যটক ট্রলারে ওঠে মদন উচিৎপুর ঘাট থেকে রাজালীকান্দার রামদীঘা বিলে পৌঁছাতেই পানির তোড়ে ট্রলারটি ডুবে যায়। পরে ১৭ জনের মরদেহ উদ্দার করা হয়। একজন নিখোঁজ ছিলেন।

অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাইয়ের কারণে ট্রলারটি ডুবে এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে একই পরিবারের ৮ জন এবং ৭ থেকে ১২ বছর বয়সী ৬ শিশু রয়েছে বলে জানা গেছে।

 

আরও পড়ুন:

মদনে নৌকাডুবিতে নিহতদের দাফন সম্পন্ন

নৌকাডুবিতে নিহত ১৭ জনই ছিলেন একই মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষক

নেত্রকোনায় নৌকাডুবিতে প্রাণ গেলো ময়মনসিংহের একই পরিবারের ৮ জনের

/টিটি/

লাইভ

টপ