ডোমারে পুকুরে ডুবে তিন শিশু ও এক মায়ের মৃত্যু

Send
নীলফামারী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০২:৩১, আগস্ট ১৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩৫, আগস্ট ১৩, ২০২০

পানিতে ডুবে গেছে শিশু

নীলফামারীর ডোমারে পুকুরে ডুবে মা-মেয়ে ও অন্য ঘটনায় দুই শিশুসহ চার জনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১২ আগস্ট) সকালে ও দুপুরে পৃথক স্থানে ঘটনা দুটি ঘটে।

আজ সকালে উপজেলার ভোগডাবুড়ি ইউনিয়নের চিলাহাটি প্রগতিপাড়ার একটি পুকুরে পড়ে মা আলেয়া বেগম (২৫) ও তার সাত মাসের শিশুকন্যা মনি আক্তারের মৃত্যু হয়। বেলা ১১টার দিকে তাদের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নীলফামারী জেনালের হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ। আলেয়া ওই গ্রামের ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী আলেয়া মানসিক রোগী। বুধবার সকালে শিশুটি বিছানায় মলত্যাগ করলে তা পরিষ্কার করার জন্য সন্তানকে নিয়ে বাড়ি সংলগ্ন পুকুর পাড়ে যায় আলেয়া বেগম। সেখানে পরিবারের সদস্যদের অজান্তে পিছলে পানিতে পড়ে তাদের মৃত্যু হয়। পরে সকাল ১০টার দিকে মা-মেয়ের লাশ ভাসতে দেখে এলাকার লোকজন।

অপরদিকে, বুধবার দুপুরে উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের ঘোনপাড়া গ্রামে পুকুরপাড়ে খেলার সময় পানিতে পড়ে মৃত্যু হয় সাইমা বেগম (৫) ও সুমনা আক্তার (৬) নামের দুই শিশুর। সাইমা ইউনিয়নের চাকধাপাড়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে ও সুমনা একই গ্রামের সুমন রহমানের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ওই দুই শিশু ঘোনপাড়া গ্রামে আত্মীয় আব্দুর রহিমের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিল। আজ দুপুরে বাড়ির পাশে পুকুরের ধারে খেলতে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের অজান্তে পানিতে পড়ে যায়। পরে তাদের লাশ ভাসতে দেখে এলাকার লোকজন পুলিশকে খবর দেয়। ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ ওই দুই শিশুর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বলেন, সোনারায় ইউনিয়নের ঘটনায় অভিযোগ না থাকায় দুই শিশুর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

চিলাহাটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বরত কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করে লাশ ময়না তদন্তের জন্য নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

/টিএন/

লাইভ

টপ