ভিজিডি, বয়স্ক ও বিধবা ভাতা আত্মসাৎ: তিন ইউপি সদস্য বরখাস্ত

Send
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:৫৫, আগস্ট ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৬, আগস্ট ১৪, ২০২০

সিরাজগঞ্জবয়স্ক ও বিধবা ভাতাসহ দুঃস্থদের সরকারি ভিজিডির চাল আত্মসাতের দায়ে সিরাজগঞ্জের কাজিপুরের তিন ইউপি সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহম্মেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক পত্রে তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

বরখাস্তকৃতরা হলেন, উপজেলার খাসরাজবাড়ি ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দুলাল হোসেন এবং গান্ধাইল ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আলাউদ্দিন জোয়াদ্দার।

মন্ত্রণালয়ের আদিষ্ট পত্রের বরাত দিয়ে কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হাসান
সিদ্দিকী শুক্রবার (১৪ আগস্ট) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। একই সঙ্গে কেন তাদের
স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে না, অভিযুক্তদের কাছে তাও জানতে চেয়েছেন মন্ত্রণালয়। আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে বিষয়টি জানাতেও বলা হয়েছে।

এদিকে, কাজিপুর ইউএনও’র কাছে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের পত্রে ইউপি সদস্য দুলাল হোসেন ও শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে বয়স্ক ও বিধবা ভাতা আত্মসাৎ এবং ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন জোয়াদ্দারের বিরুদ্ধে ভিজিডির চাল নয়ছয়ের অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত বলে উল্লেখ রয়েছে।

গত ১৮ জুন খাসরাজবাড়ি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলামে বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তার ওয়ার্ডের বাসিন্দা হযরত আলী। ২৮ মে ইউপি সদস্য দুলাল হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ
করেন ভাতাভোগী মৃত দিল রওশন (বই নং-২৪৬ , হিসাব নং- ৩০৪) এর ভাইপো রফিকুল
ইসলাম। ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন জোয়াদ্দারের বিরুদ্ধে গান্ধাইল গ্রামের একাধিক ব্যক্তি ইউএনও'র নিকট লিখিত অভিযোগ দেন।
কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদ হাসান সিদ্দিকী বলেন, তিন ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিলের বিষয়টি পৃথকভাবে তদন্ত করা হয়। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহণে মন্ত্রণালয় বরাবর সুপারিশ করা হয়। ওই সুপারিশের আলোকেই তাদের সাময়িক বরখাস্তের নির্দেশ পত্র প্রেরণ
করেছে মন্ত্রনালয়। আমি ও জেলা প্রশাসক কার্যালয় এ বিষয়ে অবহিতকরণ পত্র পেয়েছি।

/আরআইজে/

লাইভ

টপ