মৌলভীবাজারে করোনায় জেলা বিএনপির সহসাধারণ সম্পাদকসহ তিনজনের মৃত্যু

Send
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০২:০৩, আগস্ট ১৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:১৩, আগস্ট ১৬, ২০২০

 

 মৌলভীবাজারে করোনা আক্রান্ত ‍দুই হিন্দু ব্যক্তিকে মৃত্যুর পর দাহ করা হয় শ্মশানে।
মৌলভীবাজার জেলায় ২৪ ঘণ্টায় জেলা বিএনপির সহসাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম নোমানসহ তিন ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হয়ে সিলেট নর্থইস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন।

জানা গেছে,  শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে মো. নুরুল আলম নোমানের (৪৫) মৃত্যু হয়। তিনি সর্দি, কাশি, জ্বর ও হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, পেটের সমস্যার মতো অনেকগুলো রোগে ভুগছিলেন। তার বাসা পৌর শহরের সুলতানপুর এলাকায়। জেলা ছাত্রদলের সাবেক এই সাধারণ সম্পাদকের স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

এদিকে সিলেট নর্থইস্ট মেডিক্যাল হাসপাতালেই শুক্রবার দিবাগত  রাত ১২টা ২০ মিনিটে দেবেশ রঞ্জন দত্ত (৬৫) এবং রাত সাড়ে ১০টার দিকে কাঞ্চন চক্রবর্তী শ্যামল (৭৪) নামে আরও দুই ব্যক্তি মারা যান। তাদের দু’জনের বাড়ি শ্রীমঙ্গল উপজেলার শহরতলীর সবুজবাগ আবাসিক এলাকায়। উভয়ে গত ১০/১২দিন ধরে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এদিকে তাদের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে তাদের দেহ সৎকারের দায়িত্ব নেন উপজেলা দেহ সৎকার ব্যবস্থাপনা কমিটি। আজ শনিবার সকাল ৭ টায় শ্রীমঙ্গল পৌর শশ্মানঘাটে সৎকার কাজ সম্পন্ন হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সৎকার কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক, সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়, সদস্য সচিব, সুদীপ দাস রিংকু, সদস্য অলক পাল, ছোটন চৌধুরী, কানন দেব, অর্জুন দাশ, দিবস মজুমদার, শ্যামল দাশ, সুখদেব কৈরী, নারায়ণ দাশ ও নিহতদের আত্মীয় স্বজন।

সদস্য সচিব সুদীপ দাশ রিংকু বলেন, এই প্রথম করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির সৎকার করছি। এর পূর্বে যারা করোনায় মারা গেছেন মৃত্যুর পর তাদের রিপোর্টে করোনা ধরা পড়েছিল।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো.সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী ওই তিন ব্যক্তির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

 

/টিএন/

লাইভ

টপ