এনজিও’র কিস্তি পরিশোধ করতে না পেরে আত্মহত্যার অভিযোগ

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৩:০৫, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:০৫, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

বগুড়াবগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় এনজিও’র ঋণের কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পেরে বেলাল হোসেন (২৬) নামে এক ওয়েল্ডিং মিস্ত্রি ইলেকট্রিক শান মেশিন দিয়ে নিজের গলাকেটে অত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার চোপিনগর দক্ষিণ-মধ্যপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এর আগে তিনি বিষপান করেন বলে জানা গেছে।

শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিম উদ্দিন জানান, এক ব্যক্তির আত্মহত্যার কথা শুনেছেন; কিন্তু কারণ জানা যায়নি।

চুপিনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাফফর রহমান ও স্বজনরা জানান, পেশায় ওয়েল্ডিং মিস্ত্রি বেলাল হোসেন শাজাহানপুর উপজেলার চোপিনগর দক্ষিণ-মধ্যপাড়া গ্রামের কৃষক লুৎফর রহমানের ছেলে। সংসারের প্রয়োজনে তিনি ফোকাস, আশা, এসকেএফ ও সাজেদা ফাউন্ডেশন নামে এনজিও থেকে মোটা অঙ্কের ঋণ নেন। মঙ্গলবার তার দুই হাজার টাকা কিস্তি পরিশোধের দিন ছিল। কিস্তি আদায়কারীদের চাপের মুখে তিনি টাকা জোগাড় করতে না পেরে দুপুরে কীটনাশক পান করেন। এরপর ইলেকট্রিক শান মেশিন দিয়ে গলায় আঘাত করলে গলা কেটে যায়। পরিবারের সদস্যরা আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মারা যান তিনি। খবর পেয়ে শাজাহানপুর থানার এসআই আলমগীর লাশ উদ্ধার করে ওই হাসপাতালের মর্গে রাখেন।

ওসি আজিম উদ্দিন জানান, মামলা করলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/আইএ/

লাইভ

টপ