দিনাজপুরে বন্ধুর সহযোগিতায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ২

Send
দিনাজপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:৪১, অক্টোবর ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৪৫, অক্টোবর ১৭, ২০২০

 




পুলিশের হাতে আটক দুুই অভিযুক্ত দিনাজপুরের বিরামপুরে ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। এই ঘটনায় ভিকটিমের পিতার দায়ের করা মামলায় তাদেরকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।










শনিবার (১৭ অক্টোবর) ভোরে পুলিশ উপজেলা শহরের মাহমুদপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করে। তারা হলেন- বিরামপুর পৌর এলাকার মাহমুদপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে নাহিদ ইসলাম (২০) ও একই গ্রামের এনামুল হকের ছেলে সুমন আহমেদ এস্তামুল (২৪)। 


এদিকে ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। এর আগে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) রাতে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ। বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মনিরুজ্জামান মনির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে পৌর শহরের স্থানীয় ওই দুই যুবক মেয়েটিকে বিয়ের প্রলোভনসহ বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। শুক্রবার দিবাগত রাত ৮টার দিকে ওই ছাত্রীর বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে নাহিদ তার সহযোগী বন্ধু সুমনকে নিয়ে ছাত্রীকে মুখ চেপে ধরে বাড়ি থেকে বের করে আনে। পরে বাড়ির পাশে কলা বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় তার বন্ধু সুমন পাহারায় ছিল। ধর্ষণের সময় স্থানীয়রা ওই ছাত্রীর শব্দ শুনে ঘটনাস্থলে আসলে দুই যুবক পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে রাতেই বিরামপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।
বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান মনির বলেন, ভিকটিমের বাবা মামলা করার পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করেছে। তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভিকটিমকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

/আরআইজে/

লাইভ

টপ